শুক্রবার, ১লা মার্চ, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

আজ আয়কর মেলার প্রথম দিন

আজকের কুমিল্লা ডট কম :
নভেম্বর ১, ২০১৭
news-image

 

‘আয়কর মেলা আইল যে ফিরিয়া ও মিঞা ভাই
আয়কর মেলা আইল যে ফিরিয়া ও মিঞা ভাই…………’

প্রেস বিজ্ঞপ্তিঃ

কর অঞ্চল-কুমিল্লা’র কর কমিশনার ড. সামস্ উদ্দিন আহমেদ এর লেখা ও সুরে গাওয়া গানে কর অঞ্চল-কুমিল্লার আয়োজনে আজ শুরু হওয়া মেলার প্রকৃত আবহ আঁচ করা যায়। শহরের বিভিন্ন প্রান্তে এবং উপজেলা গুলোতে গান বাজিয়ে, বিলবোর্ড, ব্যানার, পোস্টার, রেডিও, ডিশ টিভি ,ডিজিটাল টিভি ইত্যাদি মাধ্যমের সহযোগিতায় কুমিল্লা জেলা জুড়ে আয়কর মেলা প্রচার প্রচারণা। সংশ্লিষ্টদের সাথে কথা বলে জানা যায় এত প্রচার প্রচারণার কারণ হলো মানুষের মন হতে আয়কর ভীতি দূর করে তাদেরকে অর্থনৈতিক কর্মকান্ড এবং কর সংস্কৃতিতে অভ্যস্থ করে তোলা। এজন্যই যত না প্রচার প্রচারণা তার চেয়ে সহজলভ্য সেবা প্রদানে আগ্রহী এ কর অঞ্চল। ওয়ান স্টপ সার্ভিসের মাধ্যমে উৎসব মূখর পরিবেশে কর সেবা প্রদানই আয়কর মেলার উদ্দেশ্য।
একজন করদাতা সাধারণত যে ভুলগুলো করেন তা মেলায় রিটার্ন জমা করলে আর হওয়ার সম্ভাবনা থাকবে না। সাধারণ ভুলগুলো হলো-
ক্স কোন খাতের আয় পরিগণনার সময় যোগে ভুল হওয়া;
ক্স একাধিক উৎসের আয়ের ক্ষেত্রে আয়ের যোগফল সঠিক না হওয়া;
ক্স বিনিয়োগ রেয়াত পরিগণনায় ভুল হওয়া;
ক্স অনুমোদিত খাতে বিনিয়োগ ব্যতিরেকে রেয়াত দাবী;
ক্স করদায় পরিগণনায় ভুল হওয়া;
ক্স সারচার্জ পরিগণনায় ভুল হওয়া;
ক্স সম্পদ বিবরণীর গ্রস সম্পদ/নীট সম্পদ বা দায়ের যোগফল সঠিক না হওয়া;
ক্স জীবনযাত্রা ব্যয় বিবরণীর যোগফল সঠিক না হওয়া ;
ক্স আয় বছরে পরিশোধিত করের প্রতিফলন সম্পদ ও দায় বিবরণী/জীবনযাত্রা ব্যয় বিবরণীতে না থাকা;
ক্স কর রেয়াতের তফসিলে বিনিয়োগ প্রদর্শন করা সত্বেও সম্পদ ও দায় বিবরণীতে বিনিয়োগের প্রতিফলন না থাকা;
ক্স কোন সুদের উপর উৎস কর পরিশোধ করা হয়েছে বলে দাবী করা হলেও রিটার্নে সে সুদ আয় প্রদর্শন না করা;
ক্স বেতন আয়ের ক্ষেত্রে পারকুইজিট পরিগণনায় ভুল হওয়া;
ক্স সম্পদের পরিবৃদ্ধি ও ব্যয় উৎস দ্বারা সমর্থিত না হওয়া;
ক্স নূন্যতম কর পরিগণনা না করা বা পরিগণনায় ভুল করা, ইত্যাদি।
কারা কারা আয়কর রিটার্ন দাখিল করবেন?
সাধারণভাবে, কোন ব্যক্তি করদাতার (রহফরারফঁধষ) আয় প্রতি বছরে ২,৫০,০০০/-টাকার বেশি হয় তবে তাকে রিটার্ন দাখিল করতে হবে। মহিলা এবং ৬৫ বছর বা তদূর্ধ্ব বয়সের করদাতার আয় যদি বছরে ৩,০০,০০০/- টাকার বেশি, প্রতিবন্ধী করদাতার আয় যদি বছরে ৩,৭৫,০০০/- টাকার বেশি এবং গেজেটভুক্ত যুদ্ধাহত মুক্তিযোদ্ধা করদাতার আয় যদি বছরে ৪,২৫,০০০/- টাকার বেশি হয় তাহলে ঐ করদাতাকে আয়কর রিটার্ন দাখিল করতে হবে। তবে নি¤œবর্ণিত ক্ষেত্রসমূহে আয়ের পরিমাণ যা-ই হোক না কেন, ব্যক্তি-করদাতাকে সংশ্লিষ্ট আয় বছরের জন্য আবশ্যিকভাবে আয়কর রিটার্ন দাখিল করতে হবে :
ক) যদি আয় বছরে করদাতার মোট আয় করমুক্ত সীমা অতিক্রম করে;
খ) আয় বছরের পূর্ববর্তী তিন বছরের যে কোন বছর করদাতার কর নির্ধারণ হয়ে থাকে বা তার আয় করযোগ্য হয়ে থাকে;
গ) করদাতা যদি-
১) কোন কোম্পানির শেয়ারহোল্ডার পরিচালক বা শেয়ারহোল্ডার বসঢ়ষড়ুবব হন;
২) কোন ফার্মের অংশীদার হন;
৩) সরকার অথবা সরকারের কোন কর্তৃপক্ষ, কর্পোরেশন, সত্তা বা ইউনিটের বা প্রচলিত কোন আইন, আদেশ বা দলিলের
মাধ্যমে গঠিত কোন কর্তৃপক্ষ, কর্পোরেশন, সত্তা বা ইউনিটের কর্মচারী (বসঢ়ষড়ুবব) হয়ে আয় বছরের যে কোন সময়
১৬,০০০/- টাকা বা তদূর্ধ্ব পরিমাণ মূলবেতন আহরণ করে থাকেন;
৪) যে কোন ব্যবসায় বা পেশায় নির্বাহী বা ব্যবস্থাপনা পদে (যে নামেই অভিহিত হোক না কেন) নিয়োজিত বেতনভোগী
কর্মীর জন্য (বসঢ়ষড়ুবব) এর আয়ের পরিমাণ যা-ই হোক না কেন, উক্ত বেতনভোগী কর্মীর জন্য আয়কর রিটার্ন
দাখিল বাধ্যতামূলক।
ঘ) আয় বছরে করদাতার আয় কর অব্যাহতি প্রাপ্ত বা হ্রাসকৃত হারে করযোগ্য হয়ে থাকে;
ঙ) যদি আয় বছরের কোন এক সময়ে নি¤œবর্ণিত শর্তের যে কোনটি করদাতার জন্য প্রযোজ্য হয়:
(১) মোটর গাড়ীর মালিকানা থাকা (মোটর গাড়ী বলতে জীপ বা মাইক্রোবাসকেও বুঝাবে );
(২) মূল্য সংযোজন কর আইন, ১৯৯১ এর অধীন নিবন্ধিত কোন ক্লাবের সদস্যপদ থাকা;
(৩) কোন সিটি কর্পোরেশন, পৌরসভা বা ইউনিয়ন পরিষদ হতে ট্রেড লাইসেন্স গ্রহণ করে কোন ব্যবসা বা পেশা পরিচালনা;
(৪) চিকিৎসক, দন্তচিকিৎসক, আইনজীবী, চাটার্ড একাউন্টেন্ট, কস্ট এন্ড ম্যানেজমেন্ট একাউন্টেন্ট, প্রকৌশলী, স্থপতি,
সার্ভেয়ার হিসেবে বা সমজাতীয় পেশাজীবী হিসেবে কোন স্বীকৃত পেশাজীবী সংস্থার নিবন্ধন থাকা;
(৫) আয়কর পেশাজীবী (রহপড়সব ঃধী ঢ়ৎধপঃরড়হবৎ) হিসেবে জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের নিবন্ধন থাকা;
(৬) কোন বণিক বা শিল্প বিষয়ক চেম্বার বা ব্যবসায়িক সংঘ বা সংস্থার সদস্যপদ থাকা;
(৭) কোন পৌরসভা বা সিটি কর্পোরেশনের কোন পদে বা সংসদ সদস্যপদে প্রার্থী হওয়া;
(৮) কোন সরকারী , আধা-সরকারী, স্বায়ত্বশাসিত সংস্থা বা কোন স্থানীয় সরকারের কোন টেন্ডারে অংশগ্রহণ করা;
(৯) কোন কোম্পানীর বা কোন গ্রুফ অব কোম্পানীজের পরিচালনা পর্ষদে থাকা।

আয়কর রিটার্ন কী?
আয়কর কর্তৃপক্ষের নিকট একজন করদাতার বার্ষিক আয়ের তথ্যাবলী নির্ধারিত ফরমে উপস্থাপন করার মাধ্যম হচ্ছে আয়কর
রিটার্ন। আয়কর রিটার্ন ফরম এর কাঠামো আয়কর বিধি দ্বারা নির্দিষ্ট করা আছে। আয়কর আইন অনুযায়ী জাতীয় রাজস্ব বোর্ড
কর্তৃক নির্ধারিত ফরমে আয়কর রিটার্ন দাখিল করতে হয়।

আর পড়তে পারেন