শুক্রবার, ১লা মার্চ, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

কুবিতে ৫১ শিক্ষার্থীকে ডিনস্ অ্যাওয়ার্ড প্রদান

আজকের কুমিল্লা ডট কম :
জানুয়ারি ২, ২০২২
news-image

কুবি প্রতিনিধিঃ

প্রথমবারের মত ৫১ জন শিক্ষার্থীকে ডিনস্ অনার অ্যাওয়ার্ড প্রদান করেছে কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ে ( কুবি)। রোববার (২ জানুয়ারি) বিকেল ৩টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনিক ভবনের ভার্চ্যুয়াল ক্লাস রুমে এই অ্যাওয়ার্ড প্রদান করা হয়।

অ্যাওয়ার্ড উপ-কমিটির আহবায়ক ও ব্যবস্থাপনা শিক্ষা বিভাগের অধ্যাপক ড. শেখ মকছেদুর রহমানের সভাপতিত্বে এবং উপ-কমিটির সদস্য সচিব ও মার্কেটিং বিভাগের সহযোগী অধ্যাপাক ড. মোহাম্মদ সোলায়মানের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে ভার্চ্যুয়ালি প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. এমরান কবির চৌধুরী।

বিশেষ অতিথি ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ হুমায়ুন কবির, কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক ড. মোঃ আসাদুজ্জামান, সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. মুহ. আমিনুল ইসলাম আকন্দ ও রেজিস্ট্রার (অতিরিক্ত দায়িত্ব) অধ্যাপক ড. মো. আবু তাহের।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপাচার্য বলেন, ডিনস্ অ্যাওয়ার্ড শিক্ষার্থীদেরকে সামনের দিকে এগিয়ে নিয়ে যাবে। এই অর্জন শিক্ষার্থীদের নতুন কিছু অর্জন করতে উৎসাহিত করবে। এই অ্যাওয়ার্ড যারা পাচ্ছেন তাদের জন্য একটি মাইলফলক হয়ে থাকবে।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে উপ-উপাচার্য বলেন, এই অ্যাওয়ার্ড শিক্ষা জীবন শেষ হওয়ার সাথে সাথে দিতে পারলে চাকরি জীবনে শিক্ষার্থীরা অনেক সুযোগ সুবিধা পেত। এই অনুষ্ঠান প্রতিবছর করলে শিক্ষার্থীদের আরো উৎসাহিত হতো।

বিশ্ববিদ্যালয়ের ট্রেজারার বলেন, যারা এই অ্যাওয়ার্ডের জন্য নির্বাচিত হয়েছেন তারা বিশ্ববিদ্যালয়ের আলো৷ এই আলো সারা দেশের আনাচে-কানাচে ছড়িয়ে দিতে হবে। আমরা জানি প্রতিটি পুরষ্কারের পিছনে জড়িয়ে রয়েছে বিশাল ইতিহাস।

এসময় আরও উপস্থিত ছিলেন শিক্ষক সমিতির সভাপতি ও আইন অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. মো. শামিমুল ইসলাম, ছাত্র পরামর্শক ও নির্দেশনা কার্যালয়ের পরিচালক ড. হাবিবুর রহমান, বিভিন্ন অনুষদের ডিন, বিভাগীয় প্রধান ও আবাসিক হলসমূহের প্রাধ্যক্ষসহ বিভন্ন বিভাগের শিক্ষক-শিক্ষার্থীবৃন্দ।

অনুষ্ঠানে স্নাতক পর্যায় থেকে আট শিক্ষাবর্ষের সর্বমোট ১৮ জন এ অ্যাওয়ার্ড পেয়েছেন৷ তারা হলেন, গণিত বিভাগের হুমাইরা দিল আফরোজ ও ফারহানা ইয়াসমিন, পরিসংখ্যান বিভাগের উম্মুল খায়ের সুমি ও সোনিয়া আকতার, অর্থনীতি বিভাগের মিস নয়ন তারা ও স্বর্ণা মজুমদার, ব্যবস্থাপনা বিভাগের সংগীতা বসক ও মোঃ রফিকুল ইসলাম শাকিলা ফেরদৌস, একাউন্টিং বিভাগের অরূপা সরকার ও রাবেয়া জামান, মার্কেটিং বিভাগের নাসরিন আকতার ঝুমুর ও তানজীনা ইয়াসমিন, ফিন্যান্স এন্ড ব্যাংকিং বিভাগের রিপা আকতার, সিএসই বিভাগের নয়ন বণিক, আইসিটি বিভাগের আমেনা বেগম, মোঃ কামরুল হাসান এবং পিন্টু চন্দ্র পাল।

স্নাতকোত্তর পর্যায়ের ছয়টি শিক্ষাবর্ষ থেকে পেয়েছেন সর্বমোট ৩৩ জন। তারা হলেন, গণিত বিভাগের সামিয়া তাহের, খাদিজা বেগম, পারভীন আকতার, হুমায়রা দিল আফরোজ ও মাহিনুর আকতার, পদার্থ বিজ্ঞান বিভাগের সানজিদা হক ও অন্তরা তাজরীন তৃণা, পরিসংখ্যান বিভাগের কনকন আচার্য, রসায়ন বিভাগের শারমিন আকতার রূপা ও মোঃ আলাউদ্দিন হোসাইন, অর্থনীতি বিভাগের মোঃ মাসুদ রানা, মোঃ সাইফুল ইসলাম, স্বর্ণা মজুমদার ও সায়েদা সুরাইয়া সুলতানা, নৃবিজ্ঞান বিভাগের ইসরাত জাহান লিপা, ব্যবস্থাপনা শিক্ষা বিভাগের মোঃ জাহিদ হাসান, সঙ্গীতা বসাক, মোঃ রফিকুল ইসলাম ও শাকিলা ফেরদৌস, একাউন্টিং বিভাগের ফাহামিদা হোসাইন, তৃণা সাহা, ফাহিমুল কাদের সিদ্দিকী ও মোঃ কাউসার খান, মার্কেটিং বিভাগের মোঃ আওলাদ হোসাইন, নাসরিন আকতার ঝুমুর, খালেদা আকতার, জাহিদুল ইসলাম পাটোয়ারী ও তানজীনা ইয়াসমিন। সিএসই বিভাগের মেশকাত জাহান ও তাপসী গোস্বামী, এবং আইসিটি বিভাগের আমেনা বেগম, নাবিলা মেহজাবিন ও মোহাম্মদ কামরুল হাসান

প্রসঙ্গত, বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রথম সমাবর্তন-২০২০ উপলক্ষে ডীনস্ অ্যাওয়ার্ড ঘোষণা করা হয়। স্নাতক ডিগ্রি ২০০৬-০৭ থেকে ২০১৩-১৪ শিক্ষাবর্ষ এবং স্নাতকোত্তর ডিগ্রি ২০১০-১১ থেকে ২০১৫-১৬ শিক্ষাবর্ষের ৫১ জন শিক্ষার্থীরা ডীনস্ অ্যাওয়ার্ডের জন্য মনোনীত হয়েছেন। সম্মাননা হিসেবে শিক্ষার্থীদের ক্রেস্ট এবং সনদপত্র প্রদান করা হয়।

আর পড়তে পারেন