শনিবার, ২৪শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

কুমিল্লায় কাভার্ডভ্যান ভর্তি ৬ লাখ টাকার অবৈধ সেগুন কাঠ উদ্ধার

আজকের কুমিল্লা ডট কম :
মার্চ ১৮, ২০২০
news-image

 

মোঃ আব্বাস আলীঃ
কুমিল্লার সদর দক্ষিণ উপজেলার সুয়াগাজী ফরেস্ট চেক স্টেশনের সামনে থেকে কাভার্ডভ্যান ভর্তি ৬ লাখ টাকার অবৈধ সেগুন কাঠ উদ্ধার করা হয়েছে।

বুধবার সকালে ঢাকা-চট্রগ্রাম মহাসড়কের ধনাইতরী এলাকা থেকে সুয়াগাজী ফরেস্ট চেক স্টেশন কর্তৃপক্ষ অভিযান চালিয়ে অবৈধ পাচার করা এ কাঠ গুলো উদ্ধার করে।

জানা যায়, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে কাজী মোহাম্মদ নূরুল করিম, বিভাগীয় বন কর্মকর্তা, কুমিল্লা সামাজিক বন বিভাগের নির্দেশে ১৮ মার্চ ২০২০ তারিখ তারিখ সকাল আনুমানিক ৬ টায় সুয়াগাজী ফরেস্ট চেক স্টেশনের কর্মকর্তা কর্মচারীগণ ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে সদর দক্ষিণ উপজেলার সুয়াগাজী ফরেস্ট চেক স্টেশনের সামনে ঢাকা অভিমুখী কাভার্ডভ্যান (ঢাকা মেট্রো-ন-১৩-২১৮৩) থামার জন্য সংকেত দিলে গাড়ি চালক সংকেত অমান্য করে দ্রুতগতিতে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা চালায়। পরে কাভার্ডভ্যানটির পিছু ধাওয়া করা হলে ঢাকা-চট্রগ্রাম মহাসড়কের সদর দক্ষিণের ধনাইতরী এলাকায় চালক কাভার্ডভ্যান থামিয়ে পালিয়ে যায়। কাভার্ডভ্যানে তল্লাশী করে দেখা যায় যে, কাভার্ডভ্যানের ভিতর প্রায় ৩০০ ঘনফুট সেগুন কাঠ আছে। গাড়ির মধ্যে পরিবাহিত কাঠের বৈধতার স্বপক্ষে কোন কাগজপত্র ছিল না। কাঠের মধ্যে বন বিভাগের কোনো প্রকার হাতুড়ি চিহ্ন না থাকায় প্রমাণিত হয় যে, অবৈধভাবে সংগৃহীত সেগুন কাঠ অন্যত্র পাচার করা হচ্ছিল। পরে অবৈধ সেগুন কাঠ বোঝাই কাভার্ডভ্যানটি শাকতলার কুমিল্লা বন বিভাগীয় কার্যালয়ে আনা হয়। জব্দকৃত কাঠের বর্তমান বাজার মূল্য প্রায় ৬ লাখ টাকা। বন আদালত, কুমিল্লায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে।

মোঃ তোষাররফ হোসেন, ফরেস্ট রেঞ্জারের নের্তৃত্ব অভিযানে অংশগ্রহণ করেন শাহজাহান সরকার, ফরেস্টার, আবুল কালাম আজাদ, এম.এ মান্নান, মোঃ জুলফু মিয়া এবং মোঃ আবুল হোসাইন, বন প্রহরী। এ ব্যপারে মোঃ তোষাররফ হোসেন, ফরেস্ট রেঞ্জার জানান যে, মহাসড়কে অবৈধ কাঠ পাচার বন্ধে চলমান অভিযান অব্যাহত থাকবে।

আর পড়তে পারেন