বুধবার, ২২শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

গার্দিওলার সঙ্গে কথা বলেই বার্সাকে না বললেন মেসি!

আজকের কুমিল্লা ডট কম :
আগস্ট ২৬, ২০২০
news-image

স্পোর্টস ডেস্ক:
ভক্তদের বিস্ময় উপহার দিয়ে মঙ্গলবার বার্সেলোনা ছাড়ার ঘোষণা দিয়েছেন লিওনেল মেসি। আর সংবাদ মাধ্যম ইএসপিএন এফসি জানিয়েছে, গত সপ্তাহেই ম্যানচেস্টার সিটি কোচ পেপ গার্দিওলার সঙ্গে ফোনে কথা হয়েছে মেসির। সেই কথোপকথনে মেসির ম্যান সিটিতে যোগ দেয়ার সম্ভাবনা নিয়ে আলোচনা হয়েছে।

এর আগেও কয়েকবার আর্জেন্টাইন সুপারস্টারকে দলে ভেড়ানোর চেষ্টা চালিয়েছে ম্যানচেস্টার সিটি। কিন্তু মেসিই কখনো বার্সা ছাড়তে চাননি। এবার যেহেতু শৈশবের ক্লাবের সঙ্গে সম্পর্ক ছিন্ন করার সিদ্ধান্তটা নিয়েই ফেলেছেন তিনি, কাজেই আশা জেগেছে ম্যান সিটি ভক্তদের মাঝে। আর গত সপ্তাহে মেসি-গার্দিওলার কথোপকথনের পর আরো আশাবাদী হয়ে উঠেছে সিটিজেনরা।

ম্যানচেস্টার সিটি এর আগে একবার উয়েফার আর্থিক নীতিমালা ভঙ্গের কারণে শাস্তি পাওয়ায় বেশ সতর্ক। মেসিকে কেনার ব্যাপারে সাবধানী ভূমিকায় ক্লাবটি।

ক্লাব চেয়ারম্যান খালদুন আল মুবারক বলেন, ‘আমরা এ বিষয়ে খুবই সচেতন রয়েছি। দলের শক্তি বাড়াতে আমরা সবকিছুই করব। এরই মধ্যে আমরা নাথান একে ও ফেরান তোরেসের সঙ্গে চুক্তি করেছি। আরো কয়েকজনকে দলে ভেড়াব। আমাদের একটা পরিকল্পনা রয়েছে। সে অনুযায়ী সবকিছু করা হবে।’

বার্সেলোনার সঙ্গে মেসির চুক্তির একটি শর্ত ছিল, মেসি চাইলেই প্রতি মৌসুম শেষে তার চুক্তিটা কাট-ছাঁট করতে পারবেন। অর্থাৎ ক্লাব ছাড়ার একটা অপশন ছিল তার হাতে। আর ক্লাব ছাড়তে না চাইলে এক মৌসুমের জন্য আবার চুক্তিবদ্ধ হবেন। এতে বার্সেলোনার অনিচ্ছা সত্ত্বেও নতুন দলবদল মৌসুমে মেসিকে কেউ কিনতে চাইলে তার রিলিজ ক্লজ ৭০০ মিলিয়ন ইউরো দিয়েই নিতে হবে। আর্জেন্টাইন অধিনায়কের বার্ষিক বেতনের অঙ্কটাও বেশ বড় (৮.৩ মিলিয়ন ইউরো)। তবে মেসির বাই আউট ক্লজ ও বড় অঙ্কের বেতন দুটোই দেয়ার সক্ষমতা আছে ম্যানচেস্টার সিটির। সবচেয়ে বড় কথা হলো সেখানে রয়েছেন মেসির প্রিয় কোচ পেপ গার্দিওলা।

আর পড়তে পারেন