শুক্রবার, ২৪শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

জো বাইডেনের পর এবার ইসরায়েলকে ট্রাম্পের সতর্কবার্তা

আজকের কুমিল্লা ডট কম :
এপ্রিল ৫, ২০২৪
news-image

ডেস্ক রিপোর্ট:

যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের পর এবার ইসরায়েলকে সতর্কবার্তা দিলেন দেশটির সাবেক প্রেসিডেন্ট এবং আসন্ন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে রিপাবলিকান দলের প্রার্থী ডোনাল্ড ট্রাম্প। তিনি বলেছেন, গাজায় যদি শিগগির শান্তি ফিরে না আসে, তাহলে অদূর ভবিষ্যতে আন্তর্জাতিক রাজনীতিতে চরম বিপর্যয়ের মধ্যে পড়বে ইসরায়েল।

সেই সঙ্গে গাজায় হাজার হাজার বেসামরিক নিহতের ঘটনায় এই প্রথমবারের মতো ইসরায়েলের সমালোচনাও করেছেন তিনি।

বৃহস্পতিবার একটি রেডিওতে রিপাবলিকানপন্থি মার্কিন সাংবাদিক হিউ হেউইটকে সাক্ষাৎকার দেন ট্রাম্প। সেখানে হেউইটের এক প্রশ্নের উত্তরে ট্রাম্প বলেন, ‘ইসরায়েলের সরকারকে আমি খুবই সহজ এবং সংক্ষিপ্ত একটি বার্তা দিতে চাই— দ্রুত যুদ্ধ শেষ করুন, শান্তি ফিরিয়ে আনুন এবং মানুষ হত্যা বন্ধ করুন।’

‘এবং তাদেরকে অবশ্যই এটি করতে হবে…কারণ আপনাকে-আমাকে— আমাদের সবাইকে শেষ পর্যন্ত স্বাভাবিক শান্তিপূর্ণ পরিবেশে ফিরতে হবে। সেটি যত শিগগির হয় ততই ভালো।’

গত ৭ অক্টোবর গাজার ইরেজ সীমান্ত দিয়ে ইসরায়েলের ভূখণ্ডে ঢুকে অতর্কিত হামলা চালায় ১ হাজার হামাস যোদ্ধা। তারপর সেখানে এলোপাতাড়ি গুলি চালিয়ে হত্যা করে ১ হাজার ২০০ জন মানুষকে, পাশপাশি জিম্মি হিসেবে ধরে নিয়ে যায় ২৪২ জনকে।

অভূতপূর্ব সেই হামলার পর সেদিন থেকেই গাজায় অভিযান শুরু করে ইসরায়েলি বাহিনী। সেই অভিযানে এ পর্যন্ত নিহত হয়েছেন ৩২ হাজারেরও বেশি ফিলিস্তিনি, আহতের সংখ্যা ছাড়িয়েছে ৭৫ হাজার। সেই সঙ্গে ইসরায়েলি বাহিনীর বোমায় বাস্তুচ্যুত হয়েছেন লাখ লাখ ফিলিস্তিনি।

আন্তর্জাতিক বিভিন্ন মহল থেকে গত কয়েক মাস ধরে গাজায় যুদ্ধবিরতির দাবি জানিয়ে আসছে; কিন্তু ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রী বেঞ্জামিন নেতানিয়াহু বলেছেন, গাজা উপত্যকা নিয়ন্ত্রণকারী গোষ্ঠী হামাসকে সম্পূর্ণ ধ্বংসের আগ পর্যন্ত এই যুদ্ধ থামবেনা।

এদিকে ইসরায়েলি সেনাদের বোমা ও গোলায় প্রতিদিন গাজায় যেসব ভবন ও স্থাপনা ধ্বংস হচ্ছে, নিয়মিত সেসব হামলার ভিডিও ফুটেজ সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে পোস্ট করছে ইসরায়েলের প্রতিরক্ষা বাহিনী আইডিএফ।

বৃহস্পতিবারের সাক্ষাৎকারে ট্রাম্প বলেন, ‘হামাসের বিরুদ্ধে যুদ্ধ আমিও সমর্থন করি, কিন্তু ইসরায়েল যেভাবে এই যুদ্ধ করছে— সেটি আমার পছন্দ নয়।’

আরেকটি কথা হলো তাদের বোমা হামলার ভিডিও ফুটেজ প্রকাশ নিয়ে। এসব ভিডিও ফুটেজগুলোতে দেখা যাচ্ছে যে ভবনগুলোতে বোমা হামলা হচ্ছে এবং বিস্ফোরণে সেগুলো ধসে পড়ছে। যারা এসব ফুটেজ দেখছেন, স্বাভাবিকভাবেই তারা মনে করছেন যে হামলার শিকার ভবনগুলোতে লোকজন ছিল, যারা হামলার ফলে নিহত হয়েছেন।’

‘এসব ফুটেজ খুবই বর্বর এবং জঘন্য। এসব ভিডিওর কারণে প্রতিদিন আন্তর্জাতিক সমর্থন ব্যাপকভাবে হারাচ্ছে ইসরায়েল। আমি জানি না তারা কেন এসব ভিডিও প্রকাশ করছে।’

‘আমরা কথা স্পষ্ট। এই যুদ্ধে ইসরায়েল জিতবে কি না— তা অনিশ্চিত, কিন্তু দীর্ঘদিন যদি এই যুদ্ধ চলে, তাহলে আন্তর্জাতিক জনসমর্থন পুরোপুরি হারাবে ইসরায়েল।’

প্রসঙ্গত, একই দিন ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রী নেতানিয়াহুকে হুঁশিয়ারি দিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। তিনি বলেছেন, যদি গাজায় বেসামরিক হত্যা বন্ধে শিগগিরই কার্যকর পদক্ষেপ না নেওয়া হয়, তাহলে ইসরায়েল ইস্যু সংক্রান্ত নীতিতে পরিবর্তন আনবে যুক্তরাষ্ট্র।

সূত্র : এপি, ইউএনবি

আর পড়তে পারেন