বুধবার, ১৯শে জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

তিতাসে পূর্ব শত্রুতার বিরোধ মিটাতে গিয়ে যুব মহিলালীগ নেতার স্বামী আহত

আজকের কুমিল্লা ডট কম :
ফেব্রুয়ারি ২৭, ২০১৯
news-image

জাকির হোসেন হাজারীঃ
কুমিল্লার তিতাসে পূর্ব শত্রুতা ও দেয়াল নির্মাণ সংক্রান্ত বিরোধকে কেন্দ্র করে বাড়ী ঘরে হামলা ও লুটপাট করেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। সোমবার রাতে চান নাগেরচর গ্রামের দুলাল মিয়ার বাড়ীতে হামলার ঘটনা ঘটে। মঙ্গলবার রাতে ওই হামলার মীমাংশা করতে গিয়ে তৃতীয় পক্ষ উপজেলা যুব মহিলালীগ নেতা শাকিলা পারভীন স্বামী মজিবুর রহমানও হামলায় আহত হন । আহতবস্থায় মজিবুর রহমান কে দাউদকান্দি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎধীন রয়েছেন। হামলার ঘটনায় জাহাঙ্গীর, মোবারক ও শাহ আলমসহ ৫ জনের নামে তিতাস থানায় লিখিত অভিযোগ করেছেন বাড়ীর মালিক দুলাল মিয়া ।

অভিযোগ সুত্রে জানাযায়, উপজেলার মজিদপুর ইউনিয়নের চানঁ নাগেরচর গ্রামের ফজলুক হকের ছেলে দুলাল মিয়া সোমবার(২৫ ফেব্রুয়ারী) বাড়ীর সীমানা প্রাচীর(দেয়াল) নির্মাণ করতে গেলে একই গ্রামের জাহাঙ্গীর বেপারী ও মোবারক মুন্সি বাধাঁ প্রদান করেন। এ নিয়ে দিনের বেলা উভয় পক্ষের তর্কবিতর্ক হয়। পরে ওইদিন রাতে দুলাল মিয়ার বাড়ীতে হামলা, ভাংচুর ও লুটপাট করা হয় বলে তিতাস থানায় অভিযোগ করেন দুলাল মিয়া। এ ঘটনার মীমাংশা করতে গিয়ে উভয় পক্ষের সাথে পৃথক আলোচনা করে বাড়ী ফেরার পথে হামলার স্বীকার হন উপজেলা যুব মহিলালীগ নেতার স্বামী মুজিবুর রহমান। হামলাকারীদের ভয়ে মুজিবুর রহমান তিতাস ছেড়ে দাউদকান্দি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি হন বলে জানান।

আহত মুজিবুর রহমান জানান, আমার স্ত্রী মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী হওয়ায় গ্রামের দুইপক্ষের বিরোধ মীমাংশার জন্য চেষ্টা করি। এতে আমার উপড় ক্ষিপ্ত হয়ে মঙ্গলবার রাতে জাহাঙ্গীরসহ কয়েকজন আমার উপড় হামলা করে।

তিতাস থানার ওসি সৈয়দ আহসান জানান, দুলাল মিয়ার বাড়ীর দেয়াল নির্মাণ নিয়ে উভয় পক্ষের অভিযোগ পেয়েছি। উভয়ের সাথে আলোচনা করে তাদেও বিরোধ সমাধানের পথে, এমন সময় আবারও মুজিবুর রহমানের উপর হামলার ঘটনা ঘটে। মুজিবুর রহমানের উপর হামলার ঘটনায় তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

আর পড়তে পারেন