শনিবার, ২৪শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

দাউদকান্দির স্বপাড়া উপস্বাস্থ্য কেন্দ্রটি এখন বস্তার গোডাউন

আজকের কুমিল্লা ডট কম :
এপ্রিল ৬, ২০২২
news-image

স্টাফ রিপোর্টার:
কুমিল্লার দাউদকান্দি উপজেলার স্বপাড়া স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ কেন্দ্রটি এখন বস্তার গোডাউন এ পরিণত হয়েছে। চারিদিকে সৃষ্টি হয়েছে ময়লা আবর্জনার স্তুপ । প্রতিদিন সেখানে সরকারি ঔষধ বিতরনের মাধ্যমে জনসাধারণের মধ্যে সেবা দেওয়ার কথা থাকলেও নিয়মিত বসেন না দায়িত্বপ্রাপ্ত চিকিৎসক কাজি কায়েদা খানম।

মঙ্গলবার(৫ এপ্রিল)) সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, উপজেলার মারুকা ইউনিয়নের স্বপাড়া উপস্বাস্থ্য কেন্দ্রের মূল দরজায় তালাবদ্ধ অবস্থায় থাকলেও পূর্ব পাশের বারান্দায় বস্তা রেখে গোডাউনে পরিণত করেছে স্থানীয় ব্যবসায়ী সিপন মিয়া। তিনি বলেন, এখানে কোন ডাক্তার আসেনা, খালি পড়ে আছে, তাই আমি দরজা লাগিয়ে আমার কিছু মালামাল রাখছি।

স্বপাড়া গ্রামের বাসিন্দা সুমন মিয়া ও মফিজুল ইসলাম বলেন, একসময় দশ গ্রামের মানুষ এখান থেকে চিকিৎসা সেবা পেত। গত করোনার পর থেকে এখানে কোন ডাক্তার, নার্স কেউই আসে না। হাসপাতালটি চালু রাখার দাবীতে এলাকার লোকজন মানববন্ধনও করেছে, ওই সময় উপরের লোকজন এসে দেখে গেছে, কিন্তু কোন কাজ হয়নি। আজ ছয় মাস হলো এটি তালাবদ্ধ ।

দায়িত্বরত মেডিকেল অফিসার কাজি কায়েদা খানম বলেন, আমি নতুন, কয়েকদিন হলো স্বপাড়া উপস্বাস্থ্য কেন্দ্রে পোষ্টিং হয়েছে। জরাজীর্ণ ভবনে বসার পরিবেশ না থাকায় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স গৌরীপুরে বসি। সেখানকার জরাজীর্ণ ভবন এবং পরিবেশগত অবস্থার কথা আমার উর্ধ্বতন কতৃপক্ষকে জানিয়েছি।
উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. তৌহিদ আল হাসান বলেন, স্বপাড়া উপস্বাস্থ্য কেন্দ্রটি ছয়মাস বন্ধ কেউতো আমাকে জানায়নি। সেখানে ফার্মাসিস্টের পদটি শুন্য এবং একজন স্যাকমো থাকলেও প্রেষনে সে মালিগাঁও ডিউটি করছেন। কমিউনিটি ক্লিনিকের একজনকে দিয়ে সপ্তাহে একদিন ওষুধ বিতরণ করা হতো। ছয়মাস পর এসে আপনি(সাংবাদিক) আমাকে জানাচ্ছেন যে উপস্বাস্থ কেন্দ্রটি বন্ধ রয়েছে। আমরা খবর নিচ্ছি।

পুরো বিষয়টি খবর নিয়ে ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে বলে জানান কুমিল্লা জেলা সিভিল সার্জন ডা. মোবারক হোসেন।

আর পড়তে পারেন