বুধবার, ২১শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

দেবিদ্বারে উপজেলা চেয়ারম্যানের বাড়িতে সাংবাদিককে মারধর করলো ইউপি চেয়ারম্যান

আজকের কুমিল্লা ডট কম :
নভেম্বর ১, ২০২৩
news-image

কুমিল্লা প্রতিনিধি:

কুমিল্লার দেবিদ্বারে সম্প্রতি সংখ্যালঘুর ওপর হামলা মারধরের ঘটনায় সংবাদ প্রকাশের জের ধরে উপজেলার জাফরগঞ্জ ইউনিয়নের চেয়ারম্যান জাহিদুল আলমের বিরুদ্ধে সাংবাদিক শফিউল আলম রাজীবের ওপর হামলা মারধর ও মোবাইল ছিনিয়ে নিয়ে ভাংচুর করার অভিযোগ উঠেছে।

সাংবাদিক শফিউল আলম রাজীব দেবিদ্বার উপজেলা প্রেস ক্লাবের সাংগঠনিক সম্পাদক ।

জানা যায়, মঙ্গলবার সন্ধ্যায় দেবিদ্বার উপজেলা চেয়ারম্যান আবুল কালাম আজাদের সরকারি বাসভবনে (গোমতী) সংবাদ সংগ্রহে গেলে ৮নং জাফরগঞ্জ ইউপি চেয়ারম্যান জাহিদুল আলমের সমর্থক বিল্লাল গাজী, আফসান রুবেলসহ ৩-৪ জন প্রথমে গালমন্দ ও পরে হামলা করে। ওই সময় সাংবাদিক রাজীব আশ্রয় ও ঘটনাটি জানাতে উপজেলা চেয়ারম্যানের সরকারি বাসভবনে ঢুকে বিষয়টি উপজেলা চেয়ারম্যানকে জানাতে গেলে ইউপি চেয়ারম্যান জাহিদুল আলম পুনরায় সাংবাদিক রাজীবকে মারধর এবং মোবাইল ছিনিয়ে নিয়ে ভাঙচুর করেন।

হামলায় আহত সাংবাদিক শফিউল আলম রাজীব জানান, ঘটনার পর তাৎক্ষণিক বিষয়টি উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আবুল কালাম আজাদ, ইউএনও নিগার সুলতানাকে অবহিত করা হয়।

দেবিদ্বার উপজেলা প্রেস ক্লাবের নেতৃবৃন্দ ওই হামলার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে অবিলম্বে ইউপি চেয়ারম্যান জাহিদসহ হামলাকারীদের গ্রেফতার করে আইনের আওতায় আনার দাবি জানান।

হামলার বিষয়ে জাফরগঞ্জ ইউনিয়নের চেয়ারম্যান জাহিদুল আলম বলেন, সাংবাদিকের ওপর কোনো প্রকার হামলা বা মোবাইল ভাঙচুরের ঘটনা ঘটেনি। তবে সাংবাদিক রাজীবের সঙ্গে আমার কথা কাটাকাটি হয়েছে, যা আমার করা ঠিক হয়নি।

এ ব্যাপারে দেবিদ্বার উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আবুল কালাম আজাদ জানান, বিষয়টি মীমাংসার জন্য সুলতানপুর ও গুনাইঘর ইউপি চেয়ারম্যানকে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে।

আর পড়তে পারেন