রবিবার, ২১শে জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

“ধন্যবাদ…”

আজকের কুমিল্লা ডট কম :
ডিসেম্বর ১, ২০১৭
news-image

 

আবরার আল দাইয়ানঃ
আমার আপনার কাছে হয়ত নেহাত খুব ছোট একটি শব্দ মাত্র  । কিন্তু আমাদের  মুখ থেকে সামান্য এই শব্দটাই কিছু মানুষের মুখে এনে দিতে পারে অসামান্য হাসি।হে বলছি সেই সকল মহৎ মানুষদের কথা যারা প্রতিদিন প্রতিনিয়ত রাত দিনের পার্থক্য ঘুচিয়ে জীবনের মায়া ত্যাগ করে সর্বদা আমাদের কে উপহার দিচ্ছে একটি নিরাপদ  শান্তির সমাজ।

কিন্তু আমরা কি সেই সকল মানুষদের প্রতি কোনো দিন কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেছি? হয়ত আমার মতো  আপনার উত্তরটা হবে না। কিন্তু তাদের জন্যই আমরা প্রতিটি দিন নিশ্চিন্তে ঘুমাতে পারি,নিরাপদে রাস্তায় চলাচল করতে পারি জীবনের প্রতিটি বিপদে সেই সকল মানুষ গুলি কে সবার আগে পাশে পাই। আর সমাজের সেই সব অনিবার্য  মানুষদের কেই ‘ধন্যবাদ ‘ জানানোর সুযোগ করে দিয়েছে ভলান্টিয়ার ফর বাংলাদেশ।

রাত তখন ১২টা পুরো কুমিল্লা যখন ঘুমিয়ে পড়েছেন ঠিক তখনই একদল হলুদ টি- শার্ট  তরুণের দল হাতে গোলাপ, চকলেট নিয়ে হাজির ধন্যবাদ  জানাতে সেই সকল মানুষদের যারা প্রতিনিয়ত জীবনের সব সুখ ত্যাগ করে আমাদের জন্য প্রতিটি রাত নির্ঘুম কাটাচ্ছে কেবল মাত্র আমাদের নিরাপত্তা এবং আমাদের সাহায্যের জন্য।

তাদের আয়োজনে সারা দেশে গত ২০ই নভেম্বর ‘ধন্যবাদ ‘জানানো হয় সেই সব সমাজের অবিচ্ছেদ মানুষদের কে।তার থেকে বাদ যায়নি কুমিল্লাও।সারাদেশের মতো কুমিল্লায় ভলান্টিয়ার ফর বাংলাদেশের প্রায় অর্ধশতাধিক  ভলান্টিয়ার হলুদ টি-শার্ট পরিহিত  একই রঙে একসাথে মিলে দুই দলে বিভক্ত হয়ে সকাল ৮টা থেকে শুরু করে বেলা ১টা পর্যন্ত চলে  “গ্রেট কাইন্ডনেস চ্যালেঞ্জ”  প্রোগ্রামটি।

সকাল থেকে শুরু করে সেচ্ছাসেবী তরুণের দল  কুমিল্লার সেই সব মানুষদের কে  ধন্যবাদ জানায়।তার মধ্যে ছিল সাংবাদিক, ডাক্তার, পুলিশ, নার্স, যানবাহন শ্রমিক, ট্রাফিক পুলিশ , ফায়ারফাইটার, জেলা প্রশাসক, সিভিলসার্জন সহ আরো অনেকেই!

ধন্যবাদ জানানোর পর তাদের সেই হাসি মুখতাই দেখতে চেয়েছিলাম আর তাই হয়েছে। আমাদের সফলতা এইখানেই। আমরা সবাই যদি সর্বদা এই সকল ত্যাগী মানুষ গুলিকে  ধন্যবাদ জানাই তাতেই হয়ত তাদের এই অসামান্য  কাজে অনেক বেশী অনুপ্রেরণা যোগাবে।

আর এই ভাবেই আমাদের কে সব সময় নিরাপদে চলার পথে পাশে পাবো এই আশাই করছি।

আর পড়তে পারেন