শনিবার, ১৩ই এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

নবীনগর প্রেসক্লাব থেকে আবারও বহিস্কার কালের কন্ঠের সাংবাদিক গৌরাঙ্গ দেবনাথ

আজকের কুমিল্লা ডট কম :
মে ৩০, ২০২০
news-image

 

মো. দেলোয়ার হোসেন, নবীনগর :
দৈনিক কালের কণ্ঠ পত্রিকার ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগর উপজেলা প্রতিনিধি ও নবীনগর প্রেসক্লাব সদস্য, গৌরাঙ্গ দেবনাথ অপু নবীনগর প্রেসক্লাবের গঠনতন্ত্র বিরোধী কাজে লিপ্ত থাকার অভিযোগে আবারও ক্লাব থেকে সাময়িক বহিস্কার হয়েছেন।

শনিবার সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে নবীনগর প্রেসক্লাবে অনুষ্ঠিত কার্যনির্বাহী বৈঠকে গঠনতন্ত্রের অনুচ্ছেদ ৫-ধারা-১ এর ‘খ’ উপধারা লঙ্ঘন করার অপরাধে তার বিরুদ্ধে সর্বসম্মতিক্রমে সাময়িক বহিস্কারের এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

নবীনগর প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক আসাদুজ্জামান কল্লোল বহিস্কারের বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, এর পূর্বেও তিনি বিভিন্ন কারণে প্রেসক্লাব থেকে একাধিকবার বহিস্কার হয়েছেন। গৌরাঙ্গ দেবনাথ অপু বিভিন্ন সময়, নানানভাবে ক্লাবকে ও ক্লাবের দায়িত্বরত সাংবাদিকদের নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে, কটাক্ষ ও হেয় প্রতিপন্ন করার হীন প্রচেষ্টায় বিভিন্ন মন্তব্য পোস্ট করে আসছিল। যা ক্লাবের ঐতিহ্য ও ভাবমূর্তি, সম্মান চরমভাবে ক্ষুন্ন হয়েছে। যা কিনা ক্লাবের গঠনতন্ত্র স্বার্থবিরোধী ও গঠনতন্ত্র লঙ্ঘন। সেই কারণে ক্লাবের কার্যকরী কমিটির সভা থেকে তাকে সাময়িক বহিস্কার করা হয়েছে।

নবীনগর প্রেসক্লাবের সভাপতি মাহবুব আলম লিটন বলেন, তার বিরুদ্ধে অভিযোগ আসার পর, কারণ দর্শানোর জন্য ডাকযোগে তিনটি চিঠি দেওয়া হলেও কোন জবাব পাওয়া যায়নি। এ বিষয়ে তদন্ত কমিটি গঠন করে কমিটিতে তাকে ডাকা হলেও তিনি আসেননি। ফলে গঠনতন্ত্রের সকল প্রকার প্রক্রিয়া সম্পন্ন করে, ক্লাবের কার্যকরী কমিটির সভায় সর্বসম্মতিক্রমে তাকে সাময়িকভাবে বহিস্কার করা হয়েছে।

এ বিষয়ে সাময়িক বহিস্কার হওয়া সাংবাদিক গৌরাঙ্গ দেবনাথ অপু বলেন, আমি ক্লাবের বিরুদ্ধে এবং সাংবাদিকতার বিরুদ্ধে কোন লেখালেখি করি নাই। যারা অপসাংবাদিকতা এবং ধান্দাবাজি, চাঁদাবাজির সাথে জড়িত তাদের বিরুদ্ধে আমার কলম ছিল আছে এবং থাকবে। কে কি বহিস্কার করলো তাতে আমার কিছু আসে যায় না। আর এ বিষয়ে আমি কোন চিঠি পাইনি।

এ ঘটনায় উদ্বেগ প্রকাশ করে নবীনগর পৌরসভার মেয়র এড. শিব শংকর দাস আজকের কুমিল্লাকে বলেন, কেন বা কি কারণে তাকে (গৌরাঙ্গ দেবনাথ) সাময়িক বহিস্কার করা হয়েছে সেটা আমি অবগত না। তবে এ বিষয়টি নবীনগরের সাংবাদিকদের জন্য শুভ লক্ষণ না বলে, আমার মনে হচ্ছে।

আর পড়তে পারেন