বুধবার, ২১শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

বঙ্গবন্ধু একটি অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশ রেখে গেছেন : ইঞ্জিঃ মোহাম্মদ হোসাইন

আজকের কুমিল্লা ডট কম :
অক্টোবর ২৩, ২০২৩
news-image

মাসুদ হোসেন, চাঁদপুরঃ

সনাতন ধর্মাবলম্বীদের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় উৎসব শারদীয় দুর্গাপূজা উপলক্ষে হাজীগঞ্জ শাহরাস্তির সনাতন ধর্মাবলম্বীদের সাথে শুভেচ্ছা বিনিময় করতে ২১ এবং ২২ অক্টোবর সন্ধ্যা থেকে গভীর রাত পর্যন্ত চাঁদপুর-৫ আসেন মনোনয়ন প্রত্যাশিত ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশন বাংলাদেশ ঢাকা সেন্টার এর চেয়ারম্যান ও চাঁদপুর জেলা আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা মণ্ডলীর সদস্য, ইঞ্জি. মোহাম্মদ হোসাইন।

রবিবার (২২ অক্টোবর) হাজীগঞ্জ উপজেলার বিভিন্ন পূজা মন্ডপ পরিদর্শনের সময় মন্দিরে উপস্থিত দর্শনার্থীদের উদ্দেশ্যে বলেন আমি হাজীগঞ্জ-শাহরাস্তির সন্তান, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী বঙ্গবন্ধু কন্যা দেশরত্ন শেখ হাসিনার পক্ষ থেকে সনাতন ধর্মাবলম্বীদের শারদীয়া শুভেচ্ছা ও প্রীতি জানাই। জাতির পিতার নেতৃত্বে একটি অসাম্প্রদায়িক রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে সব ধর্মের মানুষ ঐক্যবদ্ধ হয়ে মুক্তিযুদ্ধে অংশ নেয়। অনেক ত্যাগের বিনিময়ে প্রতিষ্ঠিত হয় সোনার বাংলাদেশ।

তিনি আরো বলেন, বঙ্গবন্ধুর একটি অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশ রেখে গেছেন, যার দলিল হচ্ছে সংবিধান। সংবিধানের ধর্মনিরপেক্ষতা ধর্মহীনতা নয়, সব ধর্মের মানুষ নিরাপদে নির্বিঘ্নে নিশ্চিন্তে উৎসবমুখর পরিবেশে ধর্ম পালন করবে এ অধিকার সংরক্ষিত আছে। মুক্তিযুদ্ধের সময় পাকিস্তানি হানাদার বাহিনীর সাথে এদেশীয় রাজাকার, আলবদর, আলশামস মুক্তিযোদ্ধাদের হত্যা করেছে, আমার মা বোনদের পাশবিক নির্যাতন অত্যাচার করেছে। তারা এখনও সনাতনী হিন্দুধর্মাবলম্বীদের বিরুদ্ধে বিভিন্ন পূজা-পার্বণে আঘাত হানার চেষ্টা করে। আওয়ামী লীগের নেতৃত্বে বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা সরকারের নেতৃত্বে আমাদের এই লড়াই অব্যাহত আছে।

এই দেশে সংখ্যালঘু হিন্দু সম্প্রদায় নয়, ধর্ম-বর্ণ ভূলে আমরা বাঙ্গালী, মুক্তিযুদ্ধের সময়ে ঐক্যবদ্ধভাবে যুদ্ধ করে হানাদার বাহিনীকে পরাস্ত করে স্বাধীন বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠা হয়েছে, ওরা আত্মসমর্পণে বাধ্য হয়েছে, ঠিক তেমনই ষড়যন্ত্রকারি দেশ বিরোধী শক্তিকে আত্মসমর্পণ করতে বাধ্য করবো, এসব ষড়যন্ত্রকারিরাই এই দেশে সংখ্যালঘু, নিশ্চিন্তে নিরাপদে নির্বিঘ্নে আমরা সকল ধর্মের মানুষ ধর্ম পালন করতে পারবো এমন সোনার বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রাণের ঝুঁকি নিয়ে রাষ্ট্র পরিচালনা করছেন। ষড়যন্ত্রকারী, রাষ্ট্রবিরোধী,স্বাধীনতা ও মুক্তিযুদ্ধ বিরোধী শক্তিকে ঐক্যবদ্ধভাবে প্রতিহত করতে হবে।

পূজামণ্ডপ পরিদর্শন কালে উপস্থিত ছিলেন, মোহাম্মদ হোসাইনের সহধর্মিণী ট্রাস্ট ব্যাংকের সিনিয়র ভাইস প্রেসিডেন্ট, সুরাইয়া তালুকদার, বাংলাদেশ হিন্দু বৌদ্ধ ঐক্য পরিষদ হাজীগঞ্জ উপজেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি মিঠুন ভদ্র, ৯ নং গন্ধব্যপুর উত্তর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি আলহাজ্ব নূরুর রহমান বেলাল, হাজীগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সহ সভাপতি, দিলিপ কুমার, জেলা তাঁতী লীগের সাবেক সভাপতি ইঞ্জি. মোখলেছুর রহমান, জমিদার বাড়ি পূজামণ্ডপের সভাপতি, শ্রী প্রিয়লাল দেবনাথ, সাধারণ সম্পাদক শ্রী লিঠন পাল, সাবেক ছাত্রনেতা ইঞ্জি. নেছার পাটওয়ারী, পৌর আওয়ামী লীগ নেতা শাহজালাল, জেলা ছাত্রলীগের সহ সভাপতি ফারুক আহমেদ, উপ সম্পাদক সুমন, পৌর তাঁতী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সাইফুল ইসলাম সহ পূজা উজ্জাপন কমিটির নেতৃবৃন্দ, উপজেলা আওয়ামী লীগ ও অঙ্গ সংগঠনের নেতৃবৃন্দ প্রমুখ।

এছাড়াও হাজীগঞ্জ-শাহরাস্তি উদ্দেশ্যে তিন দিনের সফরে শুক্রবার, হাজীগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আলহাজ্ব হেলাল উদ্দিন মিয়াজির অফিস উদ্বোধন, চাঁদপুর বর্ণচোরা নাট্যগোষ্ঠী এর ৫০ বছর উপলক্ষে আন্তর্জাতিক নাট্যোৎসবে প্রধান অতিথি হিসেবে অংশগ্রহণ, হাজীগঞ্জ উপজেলা ৯ নং গন্ধব্যপুর উত্তর ইউনিয়নে এতিমদের সাথে শুভেচ্ছা বিনিময় ও দুপুরের খাবার গ্রহণ করেন।

শনিবার জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ,জেলা প্রশাসক, জেলা পুলিশ সুপার, শাহরাস্তি উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি, সাধারণ সম্পাদক, পৌর মেয়র ও উপজেলা আওয়ামী ও অঙ্গ সংগঠনের নেতৃবৃন্দ সহ শাহরাস্তি উপজেলা কালিবাড়ি মন্দির সহ অন্যান্য পূজামণ্ডপ পরিদর্শন করেন, শাহরাস্তি উপজেলার গ্রামীণ সুবিধা বঞ্চিত মহিলাদের কর্মসংস্থানের লক্ষ্যে সেলাই মেশিন বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে অংশগ্রহণ করেন এবং দুই উপজেলার বিভিন্ন সামাজিক ও রাজনৈতিক কর্মকান্ডে অংশগ্রহণ করেন ইঞ্জি. মোহাম্মদ হোসাইন।

আর পড়তে পারেন