শনিবার, ১৩ই এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

বরুড়ায় গ্রাম্য বিচারে প্রতিপক্ষের হামলায় তিনজন আহত

আজকের কুমিল্লা ডট কম :
জুলাই ১৯, ২০২০
news-image

এমডি. আজিজুর রহমান, বরুড়া:
কুমিল্লার বরুড়ায় ব্যাংকার শাহজাহানের দুই পরিবারের সম্পত্তি বিরোধ নিষ্পত্তি করার লক্ষ্যে স্থানীয়ভাবে বিচারে প্রতিপক্ষের হামলায় ফকরুল ইসলাম, আলাউদ্দিন, জহিরুল ইসলামসহ তিনজন গুরুতর আহত হয়েছে।

শনিবার (১৮ জুলাই) সকাল ১০টার দিকে বরুড়ার আড্ডা ইউনিয়নের বাগমারা গ্রামে এ হামলার ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় ফরিদ বাদী হয়ে বরুড়া থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন।

পরিবার সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার আড্ডা ইউনিয়নের বাগমারা গ্রামের মৃত-আঃ মুন্সি‘র ছেলের সাথে কচুয়া উপজেলার চাঙ্গিনী গ্রামের হাফিজ উল্লার সাথে ইসলামী শরিয়াহ মোতাবেক বিবাহ অনুষ্ঠিত হয়। তাদের দাম্পত্ব জীবনে দুই ছেলে দুই মেয়ে রয়েছে। ব্যাংকার শাহজানের তালাকপ্রাপÍা প্রথম স্ত্রী নাসরিনের সংসারের দুই ছেলে জাহিদুল ইসলাম ও মুরাদ দীর্ঘদিন যাবৎ শাহজানের দিতীয় স্ত্রী নাজমনু নাহারের পরিবারের উপর বিভিন্ন ভাবে নির্যাতন চালিয়ে আসছে। অনেকদিন ধরে জাহিদুল ইসলাম ও মুরাদের বিরুদ্ধে নাজমুন নাহারের ছেলে মেয়েদের মারধর করাসহ নানাভাবে হয়রানীর করার অভিযোগ রয়েছে।

নাজমুন নাহার জানান, তালাকপ্রাপÍা প্রথম স্ত্রী নাসরিনের দুই ছেলে জাহিদুল ইসলাম ও মুরাদ শাহজানের সম্পূর্ন স্থাবর অস্থাবর সম্পত্বি এককভাবে ভোগদখলের জন্য তাদের তারিয়ে দিতে বিভিন্ন ভাবে হয়রানি করে আসছে। এ সব বিষয়ে দুই পরিবারকে শাহজান বসবাসের জন্য পৃথক বাড়ি নির্মাণ করে দেন। এরপরেও জাহিদুল ইসলাম ও মুরাদ নাজমুন নাহারের উপর অমানসিক নির্যাতন চালায়। শনিবার শালিশ বৈঠক অনুষ্ঠেয় পূবে গত শুক্রবার রাতে জাহিদুল ইসলাম ও মুরাদ নাজমুন নাহারের গলায় দা দিয়ে চেপে ধরে হত্যার চেষ্টায়।

এর ধারাবাহিকতায় গত শনিবার সামাজিক গ্রাম্য শালিশ বৈঠকে উভয়ের মাঝে শান্তির প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে শাহজানের চাকরি শেষে পেনশানের টাকা হাতে পাওয়ার পর তার সকল সম্পত্তির দুই পরিবারের মাঝে সমহারে বন্টন করার সিদ্ধান্ত দিয়ে দরবার সমাপ্ত করে। দরবার শেষ করে নাজমুন নাহারের তিন ভাই ফকরুল ইসলাম, আলাউদ্দিন, জহিরুল ইসলামকে পেছন থেকে জাহিদুল ইসলাম ও মুরাদ বহিরাগত ২০/২৫ ক্যাডারসহ দেশীয় অস্ত্র দিয়ে আঘাৎ করে অতর্কিত হামলা চালায়। এতে তারা তিনিজন রক্তাক্ত গুরুতর আহত হয়। পরে স্থানীয়রা তাদেরকে আহত অবস্থায় উদ্ধার করে বরুড়া স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক উন্নত চিকিৎসার কুমিল্লা সদর মেডিকেলে রেফার করেন। অভিযুক্ত জাহিদুল ইসলামের মুঠোফোনে এ ব্যাপারে জানতে চাইলে তিনি এ সম্পর্কে কথা বলতে পারবেন না বলে সংযোগটি বিচ্ছিন্ন করে দেন।

এ বিষয়ে আড্ডা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান জাফর উল্লাহ চৌধুরী জানান, ঘটনার বিষয়টি তিনি অবগত আছেন। শাহজানের তালাকপ্রাপ্ত স্ত্রীর দুই ছেলে বহিরাগতদের নিয়ে এ হামলা চালায়। এমন নেক্কারজনক ঘটনার জন্য তিনি দুঃখ প্রকাশ করেন।

এ ব্যাপারে বরুড়া থানা পুলিশ পরিদর্শক বিকাশ জানান, এ ঘটনায় একটি অভিযোগ নেওয়া হয়েছে। ঘটনাস্থল পরিদর্শন শেষে ঘটনার সত্যতা পাওয়া গেছে। তদন্ত শেষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

আর পড়তে পারেন