বুধবার, ১৭ই এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

ব্রাহ্মণপাড়ায় পানি খাওয়ার অজুহাতে বাড়িতে ঢুকে কিশোরীকে ধর্ষণ

আজকের কুমিল্লা ডট কম :
মার্চ ২, ২০২৪
news-image

উপজেলা প্রতিনিধি:

কুমিল্লার ব্রাহ্মণপাড়ায় এক কিশোরীকে ধর্ষণের অভিযোগে এক কিশোরকে (২০) গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। শুক্রবার (১ মার্চ) সকাল সাতটার দিকে উপজেলার শশীদল ইউনিয়নের দেউষ এলাকা থেকে তাকে আটক করা হয়। একইদিন তাকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

এর আগে শুক্রবার ভোরে এ ঘটনায় ওই কিশোরীর মা বাদী হয়ে কিশোরের বিরুদ্ধে নারী ও শিশু নির্যাতন আইনে ধর্ষণের মামলা করেছেন।

ধর্ষণের শিকার কিশোরীকে শুক্রবার সকালে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠিয়েছে পুলিশ।

মামলার এজাহার, পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, ভুক্তভোগী কিশোরী স্থানীয় একটি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে নবম শ্রেণির শিক্ষার্থী। তার মা স্থানীয় একটি কিন্ডারগার্টেন স্কুলে শিক্ষকতা করেন। অভিযুক্ত কিশোর ওই স্কুলছাত্রীকে প্রায়ই উত্ত্যক্ত করত।

অভিযুক্ত কয়েকদিন ধরে ওই স্কুলছাত্রীর বাড়ির সামনে মাটি ভরাটের কাজ করছিল। ঘটনার দিন তার মা স্কুলে চলে যাওয়ায় বৃহস্পতিবার দুপুরে ওই কিশোরী বাড়িতে একা ছিলেন। অভিযুক্ত কিশোর পানি খাওয়ার অজুহাতে ওই কিশোরীর ঘরে যায়। এ সময় ওই কিশোরীকে একা পেয়ে ধর্ষণ করে। এ সময় কিশোরী চিৎকার করলে বাড়ির লোকজন দৌড়ে এসে কিশোরীকে উদ্ধার করে।

ভুক্তভোগীর মা বলেন, সে প্রায়ই আমার মেয়েকে উত্ত্যক্ত করত। সম্মানের কথা চিন্তা করে আমার মেয়ে বিষয়টি কাউকে জানায়নি। ঘটনার দিন বৃহস্পতিবার আমি স্কুলে চলে যাওয়ায় বাড়িতে একা পেয়ে আমার মেয়েকে ধর্ষণ করে। আমি তার দৃষ্টান্তমূলক বিচার দাবি করছি।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ব্রা‏‏হ্মণপাড়া থানার উপপরিদর্শক (এসআই) শিশির ঘোষ বলেন, কিশোরীকে ধর্ষণের অভিযোগে থানায় মামলা হয়েছে। এ ঘটনার সঙ্গে জড়িতকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। তাকে একইদিন শুক্রবার সকালে কুমিল্লা জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে পাঠানো হয়েছে।

আর পড়তে পারেন