শুক্রবার, ২৪শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

মতলবে টাকা লুটের উদ্দেশ্যে কৃষি ব্যাংকের নিরাপত্তা প্রহরীকে প্রেমের ফাঁদে ফেলে হত্যা

আজকের কুমিল্লা ডট কম :
এপ্রিল ৬, ২০২৪
news-image

মাসুদ হোসেন, চাঁদপুরঃ

চাঁদপুরের মতলব উত্তর উপজেলার গজরা বাজার কৃষি ব্যাংকে ডাকাতির উদ্দেশ্যে ঐ ব্যাংকের নিরাপত্তা প্রহরী শাহাদাত হোসেন সাজ্জাদ (২০) কে প্রেমের ফাঁদে ফেলে হত্যা করা হয়েছে। নিহত শাহাদাত হোসেন সাজ্জাদ গজরা গ্রামের ছামাদ সরকারের ছেলে। গত ২৫ ফেব্রুয়ারী রবিবার ব্যাংকের ছাদে পিলারের সাথে হাত পা বাঁধা অবস্থায় তার লাশ উদ্ধার করেন পুলিশ। এ ঘটনায় একইদিন মতলব উত্তর থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করা হয়।

শনিবার (৬ এপ্রিল) চাঁদপুর পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই) এর এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে পুলিশ সুপার মোস্তফা কামাল রাশেদ জানান, মতলব উত্তর উপজেলার আলোচিত ক্লুলেস কৃষি ব্যাংকের নিরাপত্তা প্রহরী শাহাদাত হোসেন সাজ্জাদকে হত্যা মামলার দুই আসামীকে গ্রেফতার করেন চাঁদপুর পিবিআই টিম। পিবিআই এর এ্যাডিশনাল আইজিপি বনজ কুমার মজুমদার বিপিএম (বার), পিপিএম এর সঠিক তত্ত্বাবধানে ও দিক নির্দেশনায় পিবিআই চাঁদপুর এর পুলিশ সুপার মোঃ মোস্তফা কামাল রাশেদ এর নেতৃত্বে ও সার্বিক সহযোগিতায় মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই (নিঃ) ইব্রাহীম খলিল ও এসআই মোঃ রিয়াদ মইনুদ্দিন, পুলিশ পরিদর্শক আতিকুর রহমানের নেতৃত্বে একটি বিশেষ টিম নিয়ে অভিযান পরিচালনা করেন। অভিযানে মামলার ঘটনায় জড়িত অন্যতম আসামী মতলব উত্তর উপজেলার গজরা বাজার এলাকার পশ্চিম রায়ের দিয়া প্রধানীয়া বাড়ির মোঃ জাহাঙ্গীর হোসেন প্রঃ জাঙ্গুর ছেলে মোঃ সজিব হোসেন (২১) কে শুক্রবার (৫ এপ্রিল) রাত আড়াইটার সময় রাজধানীর সাভার পৌরসভাধীন অগ্রণী হাউজিং সোসাইটি হতে গ্রেপ্তার করে তাহার দেওয়া তথ্য মোতাবেক ঘটনায় জড়িত আসামী একই বাড়ির মজিবুর রহমানের মেয়ে মিলি আক্তার (২০) কে একইদিন রাত সাড়ে ৯টার সময় তাহার বাড়ি থেকে গ্রেপ্তার করা হয়।

পুলিশ সুপার মোস্তফা কামাল রাশেদ আরো জানান, গত ২৫ ফেব্রুয়ারী রবিবার সকাল সাড়ে ৯টার দিকে মতলব উত্তর থানাধীন গজরা বাজারে অবস্থিত বাংলাদেশ কৃষি ব্যাংক এর ছাদের ইন্টারনেট টাওয়ার এর সাথে রশি দ্বারা বাঁধা অবস্থায় উক্ত ব্যাংকের নৈশ প্রহরী মোঃ শাহদাত হোসেন সাজ্জাদ (১৯) এর লাশ পাওয়া যায়। সাংবাদ পেয়ে পিবিআই ক্রাইমসিন টিম ঘটনাস্থলে পৌছে আলামত জব্দ সহ আধুনিক তথ্য প্রযুক্তির সহায়তায় ঘটনায় জড়িত আসামীদের সনাক্ত করনের যাবতীয় কার্যক্রম গ্রহন করে। সূত্রে বর্ণিত মামলাটি পিবিআই সিডিউল ভুক্ত হওয়ায় মামলাটি অধিগ্রহণ করতঃ এস আই (নিঃ) মোঃ ইব্রাহিম খলিল কে তদন্তকারী কর্মকর্তা নিয়োগ করা হয়।

গ্রেফতারকৃত আসামীদের দেয়া জবানবন্দীতে জানা যায়, ব্যংকের টাকা লুট করার উদ্দেশ্যে ভিকটিমকে আসামী মিলি আক্তার প্রেমের ফাঁদে ফেলে রাতের বেলায় ফোন দিয়ে ব্যাংকের ভিতর থেকে বাহির করে আনে। আসামী মোঃ সজিব হোসেন ও অপর এক আসামী ভিকটিমকে হাত পা বেঁধে ছাদে নিয়ে টাওয়ারের সাথে বেঁধে গলায় বেল্ট ও গামছা পেঁচিয়ে হত্যা করে গ্যাস ও অক্সিজেন সিলিন্ডার দিয়ে ব্যাংকের ভল্ট ভাঙ্গার চেষ্টা করে এবং ব্যাংকের মুল্যবান জিনিসপত্র চুরি করে নিয়ে যায়। আসামী সজিবের দেখানো মোতাবেক গ্যাস সিলিন্ডার ও তালা ভাঙ্গার সরঞ্জামাদি ব্যাংকের পিছনের পুকুর হতে উদ্ধার করে জব্দ করা হয়।

আর পড়তে পারেন