শুক্রবার, ১লা মার্চ, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

মিথ্যা মামলার প্রতিবেশীকে ফাঁসানোর দায়ে নারীর কারাদণ্ড

আজকের কুমিল্লা ডট কম :
ফেব্রুয়ারি ৩, ২০১৬

karadondoচট্টগ্রাম : প্রতিবেশীকে ফাঁসানোর জন্য অপহরণের মিথ্যা মামলা দায়েরের দায়ে রাবু সুলতানা নামে মামলার এক বাদিকে দুই বছরের সশ্রম কারাদণ্ড ও ২০ হাজার টাকা অর্থদণ্ড দেয়ার নির্দেশ দিয়েছেন চট্টগ্রামের একটি আদালত।

বুধবার চট্টগ্রামের এক নম্বর নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক মো. রফিকুল ইসলাম আসামির উপস্থিতিতে এ রায় দিয়েছেন।

দণ্ডিত রাবু সুলতানা বাঁশখালী উপজেলার কোকদণ্ডী গ্রামের জনৈক জহির আহমেদের স্ত্রী। রায় ঘোষণার পর তাকে জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে।

বিষয়টি নিশ্চিত করে ট্রাইব্যুনালের বিশেষ পিপি অ্যাডভোকেট জেসমিন আক্তার বলেন, ‘২০১৪ সালে বাঁশখালীর জলার কোকদণ্ডী গ্রামের জনৈক জহির আহমেদের স্ত্রী রাবু সুলতানা বাদি হয়ে প্রতিবেশী হাসান কামাম নামে একজনের বিরুদ্ধে একটি অপহরণের মামলা করেন। আদালত অভিযোগটি গ্রহণ করে সেটি বিচার বিভাগীয় তদন্তের নির্দেশ দিলে তদন্তে সেটি মিথ্যা প্রমাণিত হয়। পরবর্তীতে বিচারক হাসান কামালকে মামলা থেকে অব্যাহতি দেন।’

তিনি আরো বলেন, ‘মামলা থেকে অব্যাহতি পেয়ে হাসান কামাল বাদি হয়ে রাবু সুলতানার বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলায় হয়রানির অপরাধে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনের ১৭ ধারায় এক নম্বর নারী ও শিশু নির্যাতন ট্রাইব্যুনালে একটি মামলা দায়ের করেন। ওই মামলায় ২০১৪ সালের ১৮ নভেম্বর রাবু সুলতানার বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করে বিচার শুরু হলে বুধবার রাবু দায়ের করা মামলার দুই সাক্ষীর সাক্ষ্যগ্রহণ শেষে আসামির উপস্থিতিতে দুই বছরের সশ্রম কারাদণ্ড ও ২০ হাজার টাকার অর্থদণ্ড দেয়া হয়।’

আর পড়তে পারেন