রবিবার, ২১শে এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

সমাজ ও রাষ্ট্রে ইসলাম প্রতিষ্ঠায় ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহ্বান : ইসলামী সমাজের আমীর

আজকের কুমিল্লা ডট কম :
ফেব্রুয়ারি ৫, ২০২৩
news-image

প্রেস বিজ্ঞপ্তি:

ইসলামী সমাজ চট্রগ্রাম বিভাগীয় অঞ্চল ১ এর উদ্যোগে- আই, ও জে ব্লক মাঠ, হালিশহর হাউজিং এস্টেট, চট্রগ্রামে অনুষ্ঠিত “কল্যাণ ও শান্তি সমাবেশে” ইসলামী সমাজের আমীর হজরত সৈয়দ হুমায়ূন কবীর বলেছেন,সমাজ ও রাষ্ট্র পরিচালনায় মানব রচিত ব্যবস্থা গণতন্ত্র মেনে চলার মাধ্যমে মানুষ সৃষ্টিকর্তা আল্লাহর সার্বভৌমত্ব, আইন-বিধান ও নিরংকুশ কর্তৃত্ব এবং তাঁরই আইনের আনুগত্যের পরিবর্তে মানুষের সার্বভৌমত্ব, আইন-বিধান ও কর্তৃত্বের মিথ্যা দাবির ভিত্তিতে মানুষের মনগড়া আইনের আনুগত্য স্বীকারের মাধ্যমে সৃষ্টিকর্তা আল্লাহর সাথে কুফর ও শিরক তথা আল্লাহর চরম অবাধ্যতা ও তাঁর সাথে অংশীদার স্থাপন করছে যার কারণে আল্লাহ্ রাব্বুল আলামীনের আযাব-গজব হিসেবে ক্ষমতা ও আধিপত্য বিস্তার নিয়ে মানুষে মানুষে চলছে সংঘাত ও সংঘর্ষ এবং তাদের জীবনে বিরাজ করছে চরম অস্থিরতা ও অশান্তি। গণতন্ত্র দেশবাসীকে বিভিন্ন দলে-উপদলে বিভক্ত করে সংঘাত ও সংঘর্ষের দিকে ঠেলে দিয়েছে।

তিনি বলেন,মানব রচিত ব্যবস্থা প্রতিষ্ঠিত থাকায় সুদ ভিত্তিক অর্থনীতির কারণে প্রয়োজনীয় জিনিসপত্রের মূল্য বেড়ে চলছে এবং সাধারন মানুষ ক্রয় ক্ষমতা হারিয়ে মানবতের জীবন-যাপন করছে। দেশ ও জাতির এহেন নাজুক পরিস্থিতি এবং সংঘাতময় অবস্থা থেকে বাঁচতে হলে সকল ধর্মের লোকদের জন্য যার যার ধর্ম পালনের সুযোগ রেখে আল্লাহর নির্দেশিত ও তাঁরই রাসূল হযরত মুহাম্মাদ (সাঃ) এর প্রদর্শিত পদ্ধতিতে শান্তিপূর্ণ কর্মসূচির মাধ্যমে সমাজ ও রাষ্ট্র থেকে মানব রচিত ব্যবস্থার মূলোৎপাটন করে সৃষ্টিকর্তা আল্লাহ্ প্রদত্ত ব্যবস্থা ইসলামের আইন-বিধান প্রতিষ্ঠা করতে হবে। ইসলামী সমাজের নেতা ও কর্মীগণ গণতন্ত্রসহ সকল মানব রচিত ব্যবস্থা, গণতন্ত্রের অধীনে নির্বাচন এবং সকল প্রকার সন্ত্রাস ও উগ্রবাদের বিরুদ্ধে দৃঢ় অবস্থান গ্রহণ করেই ঈমান ও ইসলামের দাওয়াতের মাধ্যমে ঈমানদার ও সৎকর্মশীল লোক গঠন করে সমাজ ও রাষ্ট্রে ‘ইসলাম’ প্রতিষ্ঠার আন্তরিক প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে।

গতকাল ৪ ফেব্রুয়ারী বিকাল ৩ টায় “মানব জীবনে দুর্ভোগ ও অশান্তির কারণ এবং কল্যাণ ও শান্তির উপায়” বিষয়ে ইসলামী সমাজের উদ্যোগে অনুষ্ঠিত “কল্যাণ ও শান্তি সমাবেশে” আল্লাহর সার্বভৌমত্বের ভিত্তিতে তাঁরই আইন-বিধানের প্রতিনিধিত্বকারী নেতা; ইসলামী সমাজের আমীর বলেন, যারা আল্লাহর রাসূল হযরত মুহাম্মাদ (সাঃ) এর প্রদর্শিত পদ্ধতিতে সমাজ ও রাষ্ট্রে ইসলাম প্রতিষ্ঠার প্রচেষ্টা চালিয়ে যেতে থাকবে তারা আখিরাতে আল্লাহর রহমতে জাহান্নাম থেকে রক্ষা পেয়ে জান্নাত লাভ করবে।

তিনি আরো বলেন,“গণতন্ত্রের অধীনে নির্বাচন কিংবা সশস্ত্র লড়াই নয়! ঈমান ও ইসলামের দাওয়াতের মাধ্যমে মানব রচিত ব্যবস্থার বিরুদ্ধে ঈমানদারগণের সমাজ গঠন আন্দোলনই ইসলাম প্রতিষ্ঠার একমাত্র পদ্ধতি।

ইসলাম প্রতিষ্ঠায় সকলকে তিনি ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহ্বান জানান এবং দল-মত নির্বিশেষে সকলের জন্য ‘ইসলামী সমাজ’ নিরাপদ আশ্রয়স্থল একথার উল্লেখ করে তিনি সকলকে ইসলামী সমাজে শামিল হয়ে ইসলাম প্রতিষ্ঠার ঈমানী, নৈতিক ও মানবিক দায়িত্ব পালন করার আহবান জানান।

সংগঠনের কেন্দ্রীয় নেতা; ঢাকা বিভাগীয় অঞ্চল ১ এর দায়িত্বশীল জনাব মুহাম্মাদ ইউসুফ আলীর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত “কল্যাণ ও শান্তি সমাবেশে” বক্তব্য রাখেন  মোঃ রমজান আলী, মোঃ রহুল আমিন, সৈয়দ মুহাম্মাদ কবীর, হাফিজুর রহমান, আমীর হোসেন, মোঃ নূরুদ্দিন ও চট্টগ্রাম অঞ্চল ১-এর বিভাগীয় দায়িত্বশীল মোঃ আজমূল হক প্রমূখ।

আর পড়তে পারেন