শুক্রবার, ২১শে জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

২০১৬ সাল উল্লেখ করে কুমিল্লা শিক্ষা বোর্ডের এসএসসির ফল প্রকাশ

আজকের কুমিল্লা ডট কম :
মে ৫, ২০১৭
news-image

ইমতিয়াজ আহমেদ জিতুঃ
কুমিল্লা শিক্ষা বোর্ড কর্তৃপক্ষের সুষ্ঠু ব্যবস্থাপনা ও নজরদারির অভাবে ২০১৭ সালের মাধ্যমিক স্কুল সার্টিফিকেট (এসএসসি) পরীক্ষার ফলাফল শীটে লেখা রয়েছে ২০১৬ সাল। আবার সেই পাতায় স্বাক্ষর রয়েছে কুমিল্লা মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ডের পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক কায়সার আহমেদের। ভুল সাল সম্বলিত ফলাফল শীটটি আবার তুলে দেওয়া হয়েছে বাংলাদেশ সরকারের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও শিক্ষাšী নুরল ইসলাম নাহিদের হাতে।
বিগত ৫ বছরের মধ্যে এবার এ বোর্ডে এসএসসির ফলাফলে বিপর্যয়ের পাশাপাশি ফলাফল শীটে কুমিল্লা শিক্ষা বোর্ড কর্তৃপক্ষের এত বড় ভুলটি নিয়ে চারদিকে চলছে সমালোচনার ঝড়। সামাজিক গণমাধ্যম ফেসবুকেও কুমিল্লা শিক্ষা বোর্ড কর্তৃপক্ষের কঠোর সমালোচনা হচ্ছে।
কুমিল্লা মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ডের পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক কায়সার আহমেদ স্বাক্ষরিত ফলাফল শীটের বিজ্ঞপ্তি পাতায় লেখা রয়েছে-“মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষাবোর্ড, কুমিল্লা-এর অধীনে ফেব্রুয়ারি-মার্চ মাসে অনুষ্ঠিত মাধ্যমিক স্কুল সার্টিফিকেট (এসএসসি) পরীক্ষা ২০১৭ এর ফল বোর্ড সভার অনুমোদনের শর্তে আজ বৃহস্পতিবার ৪ মে, ২০১৬ বেলা ২:০০ টায় প্রকাশ করা হলো।


সংবাদকর্মী ও লেখক সাইয়িদ মাহমুদ পারভেজ তার ফেসবুক স্ট্যাটাসে লিখেছেন-“ মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ও শিক্ষামন্ত্রীর দৃষ্টি আকর্ষণ করছি। কুমিল্লা শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান ও বোর্ড কন্ট্রোলারের দায়িত্বহীনতার কারণে এবারের এসএসসি পরীক্ষার ফলাফল শীটে তারিখ উল্লেখ রয়েছে ৪/৫/২০১৬ । যা অমার্জনীয় অপরাধ । তারিখ ভুল হওয়া একটি ফলাফল শীট কি করে দেশের সরকার প্রধানের হাতে দেয়া হয় ? এজন্য তাদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেয়া জরুরি।
জি উদ্দিন ইকরাম এফবিতে লিখেছেন, কন্ট্রোলারের কন্ট্রোল প্রয়োজন। কারণ এমন ভুল তাহলে সব ক্ষেত্রেই হতে পারে ।
সাইফুল ইসলাম লিখেছেন, এদের চাকুরী থেকে বিদায় করে দেওয়া উচিত।
নজরুল ইসলাম লিখেছেন, তারিখটা বদলাইয়া, পাশের হার বাড়াইয়া আর একটা রেজাল্ট যদি দেয়া যেত, তাহলে হয়তো ওই ২ জন অফিসারের ব্যস্ততা কমতো। ঊনারা এত কাজ করেন তারিখটা ঠিক করার মত অত সুযোগ, সময় পাবেন কি করে।
কুমিল্লা শিক্ষা বোর্ডের পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক কায়সার আহমেদ জানান, এ বিষয়টি আমাদের নজরে এসেছে। এটি অনিচ্ছাকৃত একটি ভুল। একটি শীট কম্পোজ করা থাকে, প্রতি বছর শুধু তারিখ-বছরগুলো পরিবর্তন করা হয়। এবারও তাই করা হয়েছে। এ ভুলের দায়ভার সম্পূর্ণ আমার। এবার এ বোর্ডে ফলাফল খারাপ হওয়ার বিষয়টি নিয়ে পর্যবেক্ষণ করতে ব্যস্ত ছিলাম। এরই মাঝে এই ভুলটি হয়ে গেছে।

আর পড়তে পারেন