বুধবার, ২২শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

২ বছর পর বাড়ির দরজায় কড়া নাড়লেন করোনা ভাইরাসে ‘মৃত’ ব্যক্তি

আজকের কুমিল্লা ডট কম :
এপ্রিল ১৬, ২০২৩
news-image

 

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ

করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন। হাসপাতাল থেকে এমন ঘোষণা দেওয়া হয়। এ নিয়ে ওই ব্যক্তির পরিবার তার অন্ত্যেষ্টিক্রিয়াও সম্পন্ন করে। কিন্তু দুই বছর পর ওই ব্যক্তি জীবিত অবস্থায় পরিবারের কাছে ফিরে এসেছেন। এই ঘটনা ভারতের। খবর এনডিটিভির।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে,কমলেশ পতিদার (৩৫) এর পরিবারের সদস্যরা শনিবার আশ্চর্য হয় যখন সে করোদকালা গ্রামে তার মামীর বাড়িতে আসে।

শনিবার তার চাচাতো ভাই মুকেশ পাতিদার বলেন, দ্বিতীয় ধাপে করোনার সময় কমলেশ পতিদার অসুস্থ হয়ে পড়েছিলেন। তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হলে চিকিৎসকরা তাকে মৃত ঘোষণা করে। হাসপাতাল তাদের কাছে দেহ হস্তান্তর করার পরে, পরিবারের সদস্যরা তার অন্ত্যেষ্টিক্রিয়া সম্পন্ন করেছিল।

তিনি আরও বলেন, “এখন তিনি বাড়ি ফিরে এসেছেন, তবে এতোদিন তিনি কোথায় ছিলেন সে সম্পর্কে তিনি কিছুই প্রকাশ করে নি।

কানওয়ান থানার ইনচার্জ রাম সিং রাঠোর জানায়, পরিবারের সদস্যরা বলছে কমলেশ পতিদার ২০২১ সালে করোনায় আক্রান্ত হয়েছিলেন এবং তাকে ভাদোদরার (গুজরাট) একটি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছিল।

তিনি আরও বলেন, চিকিৎসকরা তাকে কোভিড সংক্রমণের কারণে মৃত ঘোষণা করেছিল, যার পরে পরিবারের সদস্যরা ভাদোদরায় হাসপাতালের দেওয়া দেহের অন্ত্যেষ্টিক্রিয়া সম্পন্ন করে। তারপরে তাদের গ্রামে ফিরে আসে। শনিবার বাড়িতে ফিরে পরিবারের সদস্যরা জানতে পারেন যে তিনি বেঁচে আছেন।

কমলেশ পতিদারের বয়ান রেকর্ড করার পর বিষয়টি পরিষ্কার হবে বলে জানিয়েছেন ওই পুলিশ ইনচার্জ।

আর পড়তে পারেন