Tag Archives: উদ্ধার হয়নি এখনো

বরুড়ায় শশুরবাড়িতে গাছের সাথে বেঁধে ২ সন্তানের জননীকে মারধর, উদ্ধার হয়নি এখনো

স্টাফ  রিপোর্টার:

কুমিল্লার  বরুড়া উপজেলার খয়রাতপাড়া গ্রামে শশুরবাড়িতে  যৌতুক দিতে অস্বীকৃতি ও স্বামীর পরকীয়ায় বাঁধা  দেওয়ায়  গাছের সাথে বেঁধে সদ্য দ্বিতীয় সন্তানের মা হওয়া শিরিন আক্তারকে (২৮)  বেল্ট দিয়ে মারধর করার অভিযোগ পাওয়া গেছে ।

স্বামী শাহ জালালসহ শশুর বাড়ির লোকজন শিরিন আক্তারকে বাড়িতে রেখেই নির্যাতন করছেন। শিরিন আক্তারের ভাই আবু বকর সিদ্দিক তার বোনকে নিজ বাড়িতে আনার জন্য গেলে শিরিনের স্বামীসহ শশুর বাড়ির লোকজন তার সাথে খারাপ আচরণ করে মারধরের হুমকি দিয়ে বাড়ি থেকে বের করে দেয়।

এ ঘটনায় রোববার (১৫ জানুয়ারি) সকালে  শিরিনের আক্তারের স্বামী শাহ জালাল, শশুর মজনু মিয়া ও শাশুড়ি চন্দবানের বিরুদ্ধে বরুড়া থানায়  একটি লিখিত অভিযোগ করেছেন  নির্যাতিত শিরিনের আক্তারের মা রাবেয়া বেগম ।

থানায় লিখিত অভিযোগ ও স্থানীয় একাধিক সূত্রে জানা যায়, ১২ বছর পূর্বে শাহজালালের সাথে শিরিন আক্তারের বিয়ে হয়। বিয়ের পরই যৌতুকের জন্য  শশুর-শাশুড়ির প্ররোচনায় বার বার শিরিন আক্তারকে নির্যাতন করে স্বামী শাহজালাল। একবার শিরিন আক্তারের পিতা নুরুল ইসলামে দেশিয় অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে আহত করে শাহজালাল। পরে থানা পুলিশ তাকে গ্রেফতার করে। পরে অসহায় শিরিন আক্তারের পরিবার মেয়ের সংসারের কথা চিন্তে করে শাহজালালকে ছাড়িয়ে আনে। তাদের সংসারে আসে এক কণ্যা সন্তান। এরপরই শাহজালাল  পরকীয়া প্রেমে আসক্ত হয়ে পড়েন। শিরিন আক্তার স্বামীর পরকীয়ায় বাঁধা দিলেই চলে  নির্যাতন। এক পর্যায়ে শিরিন আবার গর্ভবতী হয়। শশুরবাড়ির লোকজনের অত্যাচার-নির্যাতন সহ্য করতে না পেরে শহরে মা-বাবার কাছে চলে আসেন শিরিন। এদিকে শাহজালাল তার পরকীয়া প্রেমিকাকে নিজ বাড়িতে নিয়ে বসবাস করতে থাকে। পরে স্থানীয় সমঝোতায় শিরিনকে আবার নিজ বাড়িতে নিয়ে যায় শাহজালাল। সম্প্রতি শিরিন দ্বিতীয় সন্তানের মা হয়েছে। এরপরেই আবার যৌতুকের জন্য চাপ প্রয়োগ শুরু করে শশুর বাড়ির লোকজন। এরই ধারাবাহিকতায় ১৪ জানুয়ারি রাত ৭ টা থেকে স্বামী, শশুর-শাশুড়ি তাকে মারধর করা শুরু করে। স্থানীয় একাধিক সূত্র জানায়, গাছের সাথে বেঁধে সদ্য দ্বিতীয় সন্তানের মা হওয়া শিরিন আক্তারকে  বেল্ট দিয়ে মারধর করা হয়। আজ রোববার বিকেলেও শিরিনকে মারধর করা হয়েছে বলে স্থানীয় সূত্র জানায়। শিরিনের সাথে তার বাপ-মায়ের যোগাযোগ বন্ধ করে দিয়েছে শশুর বাড়ির লোকজন।

স্থানীয় সূত্র আরো জানায়, শিরিনকে রক্ষা করার জন্য যেই আসবে তাকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে হামলা করার প্রস্তুতি নিয়ে রেখেছে স্বামী শাহজালাল।

এ বিষয়ে  অভিযোগের  তদন্তকারি কর্মকর্তা বরুড়া থানা পুলিশের উপ-পরিদর্শক (এসআই) ফখরুল জানান, এখনো ওই মেয়ের শশুর বাড়িতে যাওয়া হয়নি। অন্য কাজে ব্যস্ত ছিলাম সারাদিন। সময় করে তদন্ত করার জন্য যাবো।