Tag Archives: কুবি

কুবি শিক্ষক সমিতির সভাপতি তাহের, সম্পাদক মেহেদি

চাঁদনী আক্তার, কুবি প্রতিনিধি:

কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয় (কুবি) শিক্ষক সমিতির নির্বাচনে নিরঙ্কুশ জয় পেয়েছে বঙ্গবন্ধু ও মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় বিশ্বাসী প্রগতিশীল শিক্ষকদের প্যানেল নীল দল। শিক্ষক সমিতির কার্যনির্বাহী কমিটির ১৫টি পদেই জয় পেয়েছে দলটির সদস্যরা।

এতে সভাপতি পদে একক প্রার্থী হিসেবে নির্বাচিত হয়েছেন পদার্থবিজ্ঞানের অধ্যাপক ড. মো. আবু তাহের। এছাড়া সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হয়েছেন মার্কেটিং বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক মেহেদি হাসান। তিনি অপর প্রতিদ্বন্দ্বী লোকপ্রশাসন বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক জিয়া উদ্দিনকে ৮৯ ভোটে পরাজিত করেন।

সোমবার (১৯ ফেব্রুয়ারি) সকাল সাড়ে ৯টা থেকে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনিক ভবনের শিক্ষক লাউঞ্জে এ ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়। ভোট গ্রহণ চলে দুপুর দেড়টা পর্যন্ত। ভোট গণনা শেষে ফলাফল ঘোষণা করেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার অধ্যাপক ড. রেজাউল করিম। এতে শিক্ষকদের ২৬৬ জন ভোটারের মধ্যে ১৭৪ জন ভোট দিয়েছেন। এরমধ্যে তিনটি ভোট বাতিল করা হয়েছে।

শিক্ষক সমিতি-২০২৪ এর অন্যান্য পদে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়েছেন অর্থনীতি বিভাগের অধ্যাপক ড. কাজী মোহাম্মদ কামাল উদ্দিন (সহ সভাপতি) ও একাউন্টিং এন্ড ইনফরমেশন সিস্টেমস্ বিভাগের অধ্যাপক মো. তোফায়েল হোসেন মজুমদার (সহ সভাপতি), কম্পিউটার সায়েন্স এন্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ড. মাহমুদুল হাছান (যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক), প্রত্নতত্ত্ব বিভাগের সহকারী অধ্যাপক মো. মুর্শেদ রায়হান (কোষাধ্যক্ষ), লোক প্রশাসন বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ড. জান্নাতুল ফেরদৌস (সাহিত্য, সংস্কৃতি ও ক্রীড়া সম্পাদক) এবং মার্কেটিং বিভাগের সহকারী অধ্যাপক মাহফুজুর রহমান ( প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক)।

কার্যকরী সদস্য পদে নির্বাচিত হয়েছেন একাউন্টিং এন্ড ইনফরমেশন সিস্টেমস্ বিভাগের অধ্যাপক ড. বিশ্বজিৎ চন্দ্র দেব, অর্থনীতি বিভাগ অধ্যাপক ড. মো. শামিমুল ইসলাম, পরিসংখ্যান বিভাগের অধ্যাপক ড. দুলাল চন্দ্র নন্দী, নৃবিজ্ঞান বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক মোহাম্মদ আইনুল হক, রসায়ন বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ড. মো. শাহাদাৎ হোসেন, অর্থনীতি বিভাগ সহকারী অধ্যাপক স্বর্ণা মজুমদার ও গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের সহকারী অধ্যাপক মাহমুদুল হাসান।

কুবিতে শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস পালিত

চাঁদনী আক্তার, কুবি প্রতিনিধি:

যথাযোগ্য মর্যাদায় কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ে (কুবি) শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস পালিত হয়েছে। বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার ও বঙ্গবন্ধু ভাস্কর্যে পুষ্পস্তবক অর্পণের মধ্য দিয়ে দিবসটি পালন করা হয়।

বৃহস্পতিবার (১৪ ডিসেম্বর) সকাল সাড়ে ১০ টায় প্রথমে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনিক ভবনের সামনে থেকে র‍্যালি শুরু হয়ে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে গিয়ে শেষ হয়। পরে বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্যে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন।

পুষ্পস্তবক অর্পণ শেষে বঙ্গবন্ধু ভাস্কর্যের পাদদেশে বুদ্ধিজীবী দিবস পালন কমিটির আহ্বায়ক অধ্যাপক ড. মো: মিজানুর রহমানের সভাপতিত্বে কর্মসূচিতে উপস্থিত ছিলেন উপাচার্য অধ্যাপক ড. এএফএম আবদুল মঈন, উপ-উপাচার্য অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ হুমায়ুন কবির এবং কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক ড. মো. আসাদুজ্জামান।

আলোচনা সভায় বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ হুমায়ুন কবির বলেন, ‘প্রথমেই শহীদ বুদ্ধিজীবীদের ও মহান নেতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও তার পরিবারের প্রতি শ্রদ্ধা জানায়। ১৯৭১ সালের ১০ই ডিসেম্বর যখন পাকিস্তান হানাদার বাহিনীরা আত্মসমর্পণের দ্বারপ্রান্তে তখন হানাদার বাহিনীরা নীল নকশা তৈরি করে সিদ্ধান্ত নেয় বাঙালি যেন কখনোই মাথা তুলে দাঁড়াতে না পরে। তাই তো তারা এই নৃশংস হত্যাকাণ্ড চালায় বাঙালি বুদ্ধিজীবীদের উপর। ফলে এখনো আমাদের বুদ্ধিবৃত্তিক জায়গা অসম্পূর্ণ রয়ে গেছে। বঙ্গবন্ধু বিরোধীদলের নেতার প্রতি শ্রদ্ধা জানাতেন, তবে আজ আমরা এই শ্রদ্ধা জানাতে পারছি না, আমরা পক্ষাবলম্বন করছি। আমরা চিত্তবান না হয়ে বিত্তবান হতে চাই। বিত্তের চেয়ে চিত্তের সুখ বেশি। আমরা বঙ্গবন্ধু ও শহীদ বুদ্ধিজীবীদের আদর্শে উজ্জীবিত হতে পারলে দেশকে এগিয়ে নিয়ে যেতে পারবো।’

উপাচার্য অধ্যাপক ড. এএফএম আবদুল মঈন তাঁর সংক্ষিপ্ত বক্তব্যে বলেন, ‘আগে যেমন বুদ্ধিজীবীরা ছিল এখনো আছে। তবে তাঁরা ছিলেন নীতিবান, প্রকৃত দেশপ্রেমিক আর এখন আমরা বৃত্তের দিকে ধাবিত হচ্ছি। বঙ্গবন্ধু বুদ্ধিজীবীদের প্রতি যথাযথ সম্মান ও শ্রদ্ধা জানাতেন ঠিক তেমন তাঁর কন্যাও। বুদ্ধিজীবীদের সাথে ছাত্রদের ছিল গভীর সম্পর্ক। এখন বুদ্ধিজীবীরা তাদের জায়গা হারিয়ে ফেলছে। আমরা প্রগতির দিকে হাটবো, প্রকৃত দেশপ্রেমিক হবো, থাকবে না কোনে পিছুটান। যদি এই কাজ করতে পারি তাহলে বুদ্ধিজীবীদের প্রতি প্রকৃত শ্রদ্ধা জানানো হবে। আমাদের নৈতিকতা ঠিক রাখতে হবে। এই দিনটা শুধু দেশে না দেশের বাইরেও পালিত হয়। আমাদের সব কিছু কথায় না বরং কাজে-কর্মে প্রমাণ দিতে হবে। বৃত্তের দিকে ধাবিত না হয়ে নৈতিক ও বুদ্ধিবৃত্তিক জায়গায় এগিয়ে নিতে হবে।

এতে আরও উপস্থিত ছিলেন ভারপ্রাপ্ত প্রক্টর কাজী ওমর সিদ্দিকী, বিভিন্ন অনুষদের ডিনবৃন্দ, বিভিন্ন বিভাগের চেয়ারম্যান, শিক্ষক- শিক্ষার্থীরা ও কর্মকর্তা-কর্মচারীরা।

উল্লেখ্য, বাদ যোহর কেন্দ্রীয় মসজিদে শহীদ বুদ্ধিজীবীদের আত্মার মাগফিরাত কামনা করে দোয়া মাহফিল আয়োজন করা হয়েছে।

তিশা বাসের ধাক্কায় আহত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি কুবির এক শিক্ষার্থী

কুবি প্রতিনিধি:

কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ে (কুবি) পরিসংখ্যান বিভাগের ২০১৯-২০ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থী ইরফানুল্লাহ তিশা বাসের ধাক্কায় আহত হয়ে আশংকা জনক অবস্থায় ঢাকায় মাতুয়াইল এস এমসি হসপিটালের আইসিইউতে ভর্তি হয়ে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রয়েছে।

বৃহস্পতিবার (৯ নভেম্বর) আনুমানিক সকাল ৯ টার সময় কোটবাড়ি বিশ্বরোড এই ঘটনা ঘটে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, ছেলেটা ওদিকে যাওয়ার সময় (জাগরঝুলি) ঢাকাগামী বাস ছেলেটাকে পিছন থেকে ধাক্কা দেয়। ইরফানের বন্ধু জিল্লুর রহমান বলেন, ইরফান টিউশনি করার জন্য ঝাগরঝুলী বিশ্বরোডে যাওয়ার সময় ঢাকাগামী তিশা বাস পিছনের দিক থেকে ধাক্কা দেয়। এতে ইরফানের হাত ভেঙে গেছে। মাথায় আঘাত পেয়েছে। নাক, মুখ, কান সব দিক দিয়ে রক্ত বের হচ্ছে।

তৎক্ষনাৎ তাকে কুমিল্লা মেডিকেলে নেওয়া হলে দায়িত্বরত চিকিৎসকরা প্রাথমিক চিকিৎসা করে ঢাকার আইসিইউতে স্থানান্তর করেন। বর্তমানে তাকে ঢাকায় মাতুয়াইল এস এমসি হসপিটালের আইসিইউতে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রাখা হয়েছে ।

মাতুয়াইল এসএমসি হসপিটালের কর্তব্যরত চিকিৎসক জানান, রোগীর ফুসফুসে রক্তজমাট হয়েছে। ওগুলো বের করার চেষ্টা করতেছি। আর বাকি অবস্থা শেষে জানা যাবে।

কুমিল্লা ময়নামতি হাইওয়ে পুলিশ অফিসার নজরুল ইসলাম বলেন, আমরা বাসটা আটক করে থানায় নিয়ে এসেছি। এবং তার অভিভাবক আসলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেবো।

কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর (ভারপ্রাপ্ত) কাজী ওমর সিদ্দিকী বলেন, আমি বিষয় টা জানতাম না, এখন জেনেছি বিষয়টা আমি দেখতেছি।

কুবির নারায়ণগঞ্জ জেলা ছাত্র কল্যাণ পরিষদের নেতৃত্বে মুশফিক-লিসান

চাঁদনী আক্তার, কুবি প্রতিনিধি:

কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ে (কুবি) নারায়ণগঞ্জ জেলার অধ্যয়নরত শিক্ষার্থীদের সংগঠন “প্রাচ্যের ড্যান্ডি নারায়ণগঞ্জ জেলা ছাত্র কল্যাণ পরিষদ” এর নতুন কমিটি ঘোষণা করা হয়েছে। এতে সভাপতি হয়েছেন মার্কেটিং ১২তম ব্যাচের শিক্ষার্থী মুশফিকুর রহমান এবং সাধারণ সম্পাদক হয়েছেন একই বিভাগের ১৩তম ব্যাচের শিক্ষার্থী মোঃ জাফরুল হাসান লিসান।

সোমবার (৬ নভেম্বর) সংগঠনের সদ্য বিদায়ি সভাপতি কামাল হোসেন জয় ও সাধারণ সম্পাদক সোহেল রানা স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে ৪র্থ কার্যনির্বাহী কমিটি প্রকাশ করা হয়।

প্রকাশিত কমিটিতে উপদেষ্টা হিসেবে আছেন, কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ হুমায়ুন কবির, জুনিয়র সহকারী ব্যবস্থাপক জনাব শাহীন আহমেদ, ব্যবস্থাপনা বিভাগের সহকারী অধ্যাপক মোঃ জাহিদ হাসান, ফার্মেসি বিভাগের সহকারী অধ্যাপক সাদিয়া জাহান আনিকা এবং সাবেক শিক্ষার্থীদের মধ্যে আছেন তানভীর আহম্মেদ, কাউসার মাহমুদ, তানভীর আহম্মেদ ফয়সাল, মোঃ কবির হোসেন, কামাল হোসেন জয় ও সোহেল রানা।

সংগঠনের পদস্থ অন্যান্য সদস্যরা হলেন, সহ-সভাপতি মোঃ মোস্তফা আল- আমিন, ফাতেমাতুজ জোহরা মীম, মোঃ সোহাগ আহমেদ, মাহির ফয়সাল এবং উম্মে হাবিবা শান্তা। যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক হিসেবে আছেন মোঃ জহিরুল ইসলাম হিমেল, রাজিব ফরাজি, আমিনুল ইসলাম, মোঃ ওমর মিয়া, মিথিলা আক্তার, রনি এবং সিনথিয়া আক্তার।

এছাড়া আরও আছেন, সাংগঠনিক সম্পাদক সাইদুল ইসলাম নাহিদ, দপ্তর সম্পাদক শিশির নন্দী, অর্থ সম্পাদক তানজিনা ইসলাম মুক্তা, প্রচার সম্পাদক মুনতাছির মামুন, সংস্কৃতি বিষয়ক সম্পাদক হাসিব হাসান, সহ-সম্পাদক জহিরুল ইসলাম জয়, আকিব হাসান, জান্নাতুল ফেরদৌস, মাইমুনা রহমান, গাজি আল আমিন, ইব্রাহিম তামিম, মেহেদি হাসান, ইমন হোসাইন, মন্দিরা দাস, রায়হান চৌধুরী, পিয়াস রঞ্জন বিশ্বাস, ওমর ফারুক, আফরোজা জামান, অহনা সুমাইয়া ও আসমা উল হুসনা।

কার্যকরী সদস্য হিসেবে আছেন নাজিম সাফিউল্লাহ, রিমি, শামিম ওম্মান, তাছলিমা আক্তার, সিফাত তাজরীমিন হিয়া, সিয়াম হোসেন, সাজিয়া সুলতানা, রাতুল হোসেন, সোহেল, নাদিয়া এবং শীলা।

প্রসঙ্গত, আগামী এক বছরের জন্য এই কমিটি দায়িত্ব পালন করবেন।

অবরোধে কুবিতে নীল বাস বন্ধ, শিক্ষার্থীদের ভোগান্তি

কুবি প্রতিনিধি:

বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল ও জামায়াতে ইসলামির ডাকা অবরোধের দিন নীল বাসসমূহ বন্ধ রেখেছে কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের কতৃপক্ষ। ফলে ক্লাস-পরীক্ষা চলমান থাকায় ক্যাম্পাসে যাতায়াতে ভোগান্তিতে পড়তে হচ্ছে শিক্ষার্থীদের।

জানা যায়, বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের যাতায়াতের সুবিধার্থে ৮টি নিজস্ব নীল বাস ও ৭টি বিআরটিসি’র লাল বাস রয়েছে। গত ৩০ অক্টোবর বিশ্ববিদ্যালয়ের ৭৭ তম (জরুরি) একাডেমিক কাউন্সিলের সভার পর নীল বাস সমূহ বন্ধের সিদ্ধান্ত নেয় পরিবহন পুল। লাল বাসসমূহ চলাচলের অনুমতি দেওয়া হলেও তা শহরের অভ্যন্তরে না গিয়ে শুধুমাত্র শহরের প্রবেশপথ পুলিশ লাইন ও টমছম ব্রীজ পর্যন্ত চলাচল করতে বলা হয়েছে। শিক্ষার্থীদেরকে পুলিশ লাইন ও টমছমব্রীজ থেকে বাসে ওঠা-নামার কার্যক্রম পরিচালনা করার জন্য নির্দেশ দিয়েছে পরিবহন পুল।

এরপর থেকে বিশ্ববিদ্যালয়ের কয়েকটি ফেসবুক গ্রুপে ক্ষোভ প্রকাশ করে শিক্ষার্থীরা। তারা অভিযোগ করে বলেন, আগে যেখানে লাল ও নীল মিলিয়ে মোট ১৫টি বাস চলমান ছিল সেখানে এখন মাত্র ৭টি লাল বাস চলছে। যার ফলে তাদেরকে গাদাগাদি করে বাসে যাতায়াত করতে হচ্ছে এবং তাদের সময় ও অর্থ অপচয় হচ্ছে।

ফাহিম বাবু নামের এক শিক্ষার্থী বলেন, অবরোধের মধ্যে স্টাফ বাস, শিক্ষকদের বাস যাওয়া আসা করে। লাল বাস যাওয়া আসা করে নীল বাসের সম্যসা কি? প্রসাশনের কাছে শিক্ষার্থী অপেক্ষা স্টাফদের ভ্যালু বেশি ?

ফাহমিদা আকতার নামের আরেক শিক্ষার্থী বলেন, অবরোধের কারণে সিএনজিগুলোও ক্যাম্পাসের দিকে যেতে রাজি হয় না। গেলেও অতিরিক্ত ভাড়া চায়। প্রশাসন লাল বাস চালু রাখতে পারলে নীল বাসে কি সমস্যা?

হাবিবা জাহান নামের আরেক শিক্ষার্থী বলেন, লাল বাসগুলো সন্ধ্যার পরে আর ক্যাম্পাসে আসে না। আমরা যারা শহরে টিউশন করি আমাদের রাতে ক্যাম্পাসে ফিরতে ভাড়া গুনতে হয়। আবার যারা মেয়ে আছে তাদেরও বিভিন্ন ঝুঁকিতে পড়ার সম্ভাবনা থাকে।

হেদায়েতুল ইসলাম বলেন, আগে লাল বাসের পাশাপাশি নীল বাসও চলতো তাও বাসে অনেক ভিড় হতো। এখন শুধুমাত্র লাল চলাচল করলে কি পরিমাণ ভিড়ের মধ্যে আমরা যাতায়াত করি এটা প্রশাসনকে একটু ভেবে দেখার অনুরোধ করছি। অবরোধের প্রভাব কেন শিক্ষার্থীদের নীল বাসের উপর পড়বে? শিক্ষক আর কর্মকর্তা-কর্মচারীদের বাস তো ঠিকই চলাচল করতেছে।

এসব বিষয়ে জানতে চাইলে পরিবহন প্রশাসক ড. স্বপন চন্দ্র মজুমদার তার কার্যালয়ে গিয়ে দেখা করতে বলেন। এরপর তার কার্যালয়ে একাধিকবার যাওয়ার পরেও তাঁকে পাওয়া যায়নি।

কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক ড. মো: আসাদুজ্জামানকে মুঠোফোনে যোগাযোগ করার চেষ্টা করা হলে তাকে পাওয়া যায়নি।

উপাচার্য অধ্যাপক ড. এ এফ এম আবদুল মঈনের সাথে একাধিকবার মুঠোফোনে যোগাযোগ করতে চাইলে বরাবরের ন্যায় তিনিও ফোন রিসিভ করেননি।

কুবিতে জেলহত্যা দিবসে ছাত্রলীগের শ্রদ্ধা

কুবিতে জেলহত্যা দিবসে ছাত্রলীগের শ্রদ্ধা

চাঁদনী আক্তার, কুবি প্রতিনিধি:

জাতীয় জেলহত্যা দিবস উপলক্ষ্যে শোক র‌্যালি ও জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয় (কুবি) শাখা ছাত্রলীগের দুটি পক্ষ । শুক্রবার (৩ নভেম্বর) বেলা সাড়ে ১১টায় কর্মসূচি পালন করা হয়।

এ সময় শাখা ছাত্রলীগের পদ প্রত্যাশী মেসবাহুল আলম শান্ত এবং ইসরাত জাহান জেরিনের নেতৃত্বে ইমাম হোসেন মাসুমসহ বিভিন্ন স্তরের নেতা-কর্মীরা একটি পক্ষে উপস্থিত ছিলেন। র‍্যালি ও পুষ্পস্তবক অর্পণ শেষে সংক্ষিপ্ত শোক সভা করেন।

অন্যদিকে আরেক পদপ্রার্থী মমিন শুভ, মাহী হাসনাইন, নূরউদ্দিন হোসাইনের নেতৃত্বে অন্যান্য নেতা-কর্মীরা পৃথকভাবে র‍্যালি ও পুষ্পস্তবক অর্পণ করে।

এসময় নওয়াব ফয়জুন্নেসা চৌধুরাণী হলের সভাপতি ইসরাত জাহান জেরিন বলেন, ‘আজকের দিনটি জাতিগতভাবে শোকের দিন। স্বাধীনতা বিরোধী ও বিএনপি-জামায়াতের রক্ত যাদের শরীরে বইয়ে বেড়াচ্ছে তাদের বংশধরেরা বাংলার সন্ত্রাস- নৈরাজ্য চালাচ্ছে। তারা ১৯৭৫ সালের আজকের এই দিনে জাতীয় চার নেতাকে জেলখানায় নির্মমভাবে হত্যা করে জাতিকে নেতৃত্ব শূন্য করার একটা প্রচেষ্টা করেছিল। ভবিষ্যতে স্বাধীন বাংলার বুকে এমন পাশবিক নির্যাতন চালাতে না পারে সেজন্য বাংলাদেশ ছাত্রলীগ সোচ্চার ছিল, সোচ্চার আছে এবং থাকবে’।

ইমাম হোসেন মাসুম বলেন, ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট শেখ মুজিবুর রহমানকে হত্যার মাধ্যমে আগেই বাংলাদেশকে হত্যা করে ফেলেছে। এরপর ৩ নভেম্বর যারা আমাদের আশার বাতি ছিল জাতীয় চার নেতাকে হত্যা করেছিল ঘাতকরা। আমরা সেই ঘাতকদের জানিয়ে দিতে চাই আমরা একাত্তরেও ছাড়ি নাই এখনো ছাড়বো না। এই ঘাতক দালালের বিরুদ্ধে বাংলাদেশ ছাত্রলীগের সবসময় সোচ্চার আছে।

কুবির মুরাদনগর ছাত্র কল্যাণ পরিষদের নতুন নেতৃত্বে জাহিদ- রায়হান

কুবির মুরাদনগর ছাত্র কল্যাণ পরিষদের নতুন নেতৃত্বে জাহিদ- রায়হান

চাঁদনী আক্তার, কুবি প্রতিনিধি:

কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ে(কুবি) অধ্যয়নরত শিক্ষার্থীদের আঞ্চলিক সংগঠন মুরাদনগর ছাত্র কল্যাণ পরিষদের নতুন কমিটি গঠন করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার (১৯ অক্টোবর) সদ্য সাবেক সভাপতি আব্দুস শাকুর ও সদ্য সাবেক সাধারণ সম্পাদক বরকত উল্লাহ স্বাক্ষরিত বিজ্ঞপ্তিতে এ কমিটি ঘোষণা করা হয়।

এতে সভাপতি হয়েছেন নৃবিজ্ঞান ২০১৯-২০ সেশনের শিক্ষার্থী জাহিদ হাসান ভুঁইয়া এবং সাধারণ সম্পাদক হয়েছেন রসায়ন ২০১৯-২০ সেশনের শিক্ষার্থী মো: রায়হান সরকার।

কমিটিতে সহ-সভাপতি হয়েছেন, তারিকুল ইসলাম, রাসেল চৌধুরী, সাইফুল ইসলাম, উম্মে হানি জারকা, সোহানুল ইসলাম (শাওন), নাসিফ মোহাইমেন ও মোজাম্মেল হক।

যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক হয়েছেন, মো: সাইদুল হাসান, মেশকাত শরীফ, সাইফুল ইসলাম, ফাহিমা আক্তার, জান্নাতুল ফেরদৌসি, আরিফুল ইসলাম সোহান ও সাবিনা ভুঁইয়া। সাংগঠনিক সম্পাদক হয়েছেন, নুসরাত জাহান মাহমিদা, রাসেল সরকার, হাতেম ভুঁইয়া, জিহাদ হাসান রিজন, দুরডানা ইসলাম ও আশরাফুল ইসলাম।

অর্থ সম্পাদক নাঈম সরকার, উপ অর্থ সম্পাদক নুসরাত জাহান সরকার, দপ্তর সম্পাদক মাহবুব আলম, উপ দপ্তর সম্পাদক সায়মা আক্তার সুরমি, প্রচার সম্পাদক ইব্রাহীম ভুঁইয়া, উপ প্রচার সম্পাদক মারজান মিতু, তথ্য ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক মো: রাসেল, উপ তথ্য ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক মাজমুন নাহার, ছাত্রী বিষয়ক সম্পাদক শায়লা ইসতারা উর্মি ও উপ ছাত্রী বিষয়ক সম্পাদক মুনিয়া আফরোজ। আইন বিষয়ক সম্পাদক সাইফুল ইসলাম, উপ আইন বিষয়ক সম্পাদক শ্রাবন্তি দাস, সাহিত্য বিষয়ক সম্পাদক উপানন্দ সরকার, উপ সাহিত্য বিষয়ক সম্পাদক তানজিনা, ক্রীড়া বিষয়ক সম্পাদক মাইফ ইসলাম, উপ ক্রীড়া বিষয়ক সম্পাদক সানিয়া, সমাজ কল্যাণ বিষয়ক সম্পাদক নাজমুন ও উপ সমাজ কল্যাণ বিষয়ক সম্পাদক সোনিয়া ইসলাম।

কার্যনির্বাহী সদস্যরা হলেন, হাজেরা আক্তার, রুবাইয়া প্রমি, শামছিয়ারা আক্তার খুশি, শায়ের সাব্বির, তানভীর হাসান, নূর মোহাম্মদ পরশ মনি, ইমরান মুন্সি, আসিফ সিকদার, সামিয়া আলম, নাফিসা তাবাসসুম, তাছনুভা নওশীন খান ও আবদুল্লাহ আল নোমান।

উল্লেখ্য নতুন কমিটি আগামী একবছর দায়িত্ব পালন করবে।

পানি সংকটে কুবির বঙ্গবন্ধু হলের শিক্ষার্থীরা

পানি সংকটে কুবির বঙ্গবন্ধু হলের শিক্ষার্থীরা

চাঁদনী আক্তার, কুবি প্রতিনিধি:

কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হলের নতুন ব্লকের একপাশে পানির সংকট দেখা দিয়েছে। ফলে গোসল, খাবার পানি ও ওয়াশরুম ব্যবহার নিয়ে বিড়ম্বনায় পড়তে হচ্ছে শিক্ষার্থীদের।

জানা যায়, মোটর সমস্যা হওয়ার কারণে এ সমস্যা দেখা দিয়েছে। ফলে ট্যাংকে কম পানি উঠে ও ট্যাপে পর্যাপ্ত পানি থাকে না। ফলে বাধ্য হয়েই অন্য ব্লকে ভীড় করতে হচ্ছে শিক্ষার্থীদের।

এ বিষয়ে কম্পিউটার সায়েন্স এন্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের শিক্ষার্থী তরিকুল ইসলাম সিফাত বলেন, গত দুই-তিনদিন যাবত আমাদের ব্লকে পানি নাই। অন্য ব্লকে গিয়ে পানি আনতে হচ্ছে। গোসলের ক্ষেত্রে বড় সমস্যা হচ্ছে। এছাড়া অন্য ব্লকের ওয়াশরুম ব্যবহার করতে হচ্ছে। এজন্য আমাদের বিভিন্ন ধরনের ভোগান্তিতে পড়তে হচ্ছে।

এ সমস্যা সমাধানের আশ্বাস দিয়ে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হলের আবাসিক শিক্ষক মো.আবু বকর সিদ্দিক বলেন, পানি সমস্যা নিয়ে কাজ হচ্ছে। আমাদের একটা পাম্প স্যাংশন (এটা কি) হয়েছে। ফাইলও উঠে গেছে আজকে। এরমধ্যে যে টেম্পোরারি প্রব্লেম হয়েছে এটা আশাকরি দ্রুত সমাধান হয়ে যাবে। পাম্পে পানি কম উঠতেছে এটা নিয়ে কাজ হচ্ছে৷ এটা সমাধান হয়ে যাবে।

কুবিতে কক্সবাজার অ্যাসোসিয়েশনের নবীন বরণ ও প্রবীণ বিদায়

কুবিতে কক্সবাজার অ্যাসোসিয়েশনের নবীন বরণ ও প্রবীণ বিদায়

কুবি প্রতিনিধি:

কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ে (কুবি) কক্সবাজার স্টুডেন্ট ওয়েলফেয়ার অ্যাসোসিয়েশনের নবীনবরণ ও প্রবীণ বিদায় অনুষ্ঠিত হয়েছে। বৃহস্পতিবার (১২ অক্টোবর) দুপুর ১ টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের বিজ্ঞান অনুষদের কনফারেন্স রুমে এই অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়।

কক্সবাজার স্টুডেন্ট ওয়েলফেয়ার অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি আবু বকর সিদ্দিক ফরহাদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন উপাচার্য অধ্যাপক ড. এ এফ এম আবদুল মঈন।

বিশেষ অতিথি হিসেবে ছিলেন ব্যবস্থাপনা শিক্ষা বিভাগের অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ আহসান উল্লাহ, বাংলাদেশ পল্লী উন্নয়ন একাডেমির যুগ্ম পরিচালক ফৌজিয়া নাসরিন সুলতানা ও কুমিল্লা সদর দক্ষিণ সার্কেলের সিনিয়র পুলিশ সুপার এ কে এম এমরানুল হক মারুফ।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপাচার্য অধ্যাপক ড. এ এফ এম আবদুল মঈন বলেন, পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ে চান্স পাওয়া কোন সহজ কাজ নয়। তোমরা সেই কঠিন কাজ সম্পন্ন করেছো এবং কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হয়েছো সেকারণে আমি তোমাদের অভিনন্দন জানাই। আমরা চাই তোমরা নিজেদের এমনভাবে তৈরি কর যাতে কর্মক্ষেত্রে তোমরা কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়কে ইতিবাচকভাবে তুলে ধরতে পারো। এমন কোনো কাজ করবেনা যাতে বিশ্ববিদ্যালয়ের সুনাম ক্ষুণ্ন হয়।

বিশেষ অতিথি অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ আহসান উল্লাহ বলেন, বিশ্ববিদ্যালয় হচ্ছে জ্ঞান সৃষ্টির জায়গা। বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষণার মাধ্যমে জ্ঞান সৃষ্টি করতে হয়। আর বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষা হচ্ছে ক্রিটিক্যাল থিংকিং। আমরা এইখানে এসে শুধু এপ্লাই করি।

আমাদের তিনটা লেভেলের কথা মাথায় রাখতে হবে। লোকাল, ন্যাশনাল ও গ্লোবাল। এই তিন লেভেলেই আমাদের দক্ষতা বাড়াতে হবে। এইভাবে চলবে আমরা সফলতার দ্বারপ্রান্তে যেতে পারবো। অন্যথায় আমরা হেরে যাবো। শুরু থেকেই নিজের ভিত্তি শক্ত করতে হবে। কারণ তথ্য প্রযুক্তির এই যুগে প্রতিযোগিতায় ঠিকে থাকা অনেক কঠিন। সাইকোলজি বুঝলে আমরা সহজেই উন্নতি করতে পারবো। এইজন্য আমাদের দায়িত্বশীল হতে হবে।

কুবিতে প্রত্নতত্ত্ব বিভাগে ক্যারিয়ার ওয়ার্কশপ অনুষ্ঠিত

কুবিতে প্রত্নতত্ত্ব বিভাগে ক্যারিয়ার ওয়ার্কশপ অনুষ্ঠিত

চাঁদনী আক্তার, কুবি প্রতিনিধি:

কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ে (কুবি) প্রত্নতত্ত্ব বিভাগের শিক্ষার্থীদের জন্য আয়োজন করা হল ক্যারিয়ার ওয়ার্কশপ। কর্মশালাটি যৌথভাবে আয়োজন করেন প্রত্নতত্ত্ব বিভাগের আর্ট এন্ড হেরিটেজ সোসাইটি এবং ইভল্ভ ফাউন্ডেশন।

বুধবার (১১ অক্টোবর) সকাল সাড়ে ১০টায় সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদের হল রুমে এ কর্মশালাটি অনুষ্ঠিত হয়। এতে আলোচক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন এনএপি এন্ড স্ট্রাটেজিক প্র্যাকটিশনার এর পিক পারফরম্যান্স কোচ মিস্টার আলী খান।

এসময় তিনি বলেন, মানসিক ভাবে সুস্থ থাকার চেষ্টা করে জীবনকে এগিয়ে নিয়ে যেতে হবে। আপনি যদি ভাগ্য পরিবর্তন করতে চান তবে আল্লাহ আপনাকে সাহায্য করবে। সফল হতে হলে দুইটা জিনিস দরকার। সাইকোলজি এবং স্ট্রাটেজি। জীবনকে উন্নত করতে হলে মেধাকে কাজে লাগিয়ে সফল হতে হবে। আমরা ব্রেইন কে যেভাবে পরিচালনা করবো ব্রেইন সেভাবেই চলবে। সেখানে ইতিবাচক এবং নেতিবাচক উভয় ভাবনা ই আসবে। সুতরাং সাফল্য অর্জন করার জন্য আমাদের ইতিবাচক দিকটি বেছে নিতে হবে। এইসব ইতিবাচক ভাবনা ধরে রাখার জন্য নিয়মিত মনস্তাত্ত্বিকগত ভালো দিকগুলো চর্চায় রাখতে হবে।

উল্লেখ্য, কর্মশালার শিরোনাম ছিল “হোয়াট ইট টেকস টু উইন (পিক পারফরম্যান্স ট্রেইনিং)।” এসময় উপস্থিত ছিলেন প্রত্নতত্ত্ব বিভাগের বিভাগীয় প্রধান সহযোগী অধ্যাপক ড. সোহরাব উদ্দিনসহ বিভাগের শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা।