Tag Archives: কুমিল্লায় ব্যস্ত সময় পার করছেন প্রতিমা কারিগররা

কুমিল্লায় ব্যস্ত সময় পার করছেন প্রতিমা কারিগররা,শেষ মুহুর্তে চলছে রং তুলির কাজ

 

সাকিব আল হেলাল।।
ঘরে ঘরে দেবী দূর্গার আগমনি বার্তা।আর কিছুদিন পর শুরু হতে যাচ্ছে হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় উৎসব শারদীয় দূর্গাপূজা। দেবীকে ন্বাগত জানাতে প্রতিমা তৈরিতে ব্যাস্ত সময় পার করছেন প্রতিমা বা মৃৎ শিল্পিরা।

সময় যত ঘনিয়ে আসছে ততই বাড়ছে ব্যাস্ততা।আগামী ২৮ সেপ্টেম্বর মহালয়ার মধ্য দিয়ে অনুষ্ঠানুকতা শুরু হবে ,৩ অক্টোবর মহাপঞ্চমী, ৪ অক্টোবরে মহাষষ্ঠি,৫ অক্টোবর মহাসপ্তমী,৬ অক্টোবর মহাঅষ্টমী,৭ অক্টোবর নবমী পূঁজা মধ্য দিয়ে শুরু হতে যাচ্ছে এবারের শারদীয় দূগা পূঁজা। মন্ডপ থেকে মন্ডপে বেঁজে উঠবে ঢাক ঢোল আর কাঁসার শব্দ।পাঁচ দিনের এই উৎসবের পর ৮ অক্টোবর বিজয়া দশমীতে প্রতিমা বিসর্জনের পর ঘটবে সমাপ্তি।

এদিন বিকেলের মন কেমনের সূর্যাস্তে সিঁদুর খেলার আনন্দে গা ভাসিয়ে উমাকে বিদায় জানাবে। আর তার মধ্যে দিয়েই শুরু হবে অপেক্ষা। আরও একটা বছরের অপেক্ষা। আর বোল উঠবে ‘আসছে বছর আবার হবে। ‘

কুমিল্লার বরুড়া, বুড়িচং ও চান্দিনার বেশ কয়েকটি পূঁজা মন্ডপ ঘুরে দেখা যায়,কাদা-মাটি,বাঁশ,খড়,সুতলি দিয়ে শৈল্পিক ছোঁয়ায় তিল তিল করে গড়ে তোলা দেবী দুর্গার প্রতিমা তৈরিতে ব্যাস্ত সময় পার করছেন প্রতিমা কারিগররা।বুড়িচং ,বরুড়ার ও চান্দিনার বেশির ভাগ পূঁজা মন্ডপ ঘুরে দেখা যায়,মাটির কাঠামো নির্মানের মূল কাজ শেষ করেছেন মৃৎ শিল্পীরা।এখন বাকি রং তুলির ছোঁয়ায় প্রতিমার রূপ যৌবনা ফিরিয়ে আনার মূল কাজ।

তবে প্রতিমা শিল্পিরা জানান,বৃষ্টি না থাকায় দ্রুত শুকিয়ে যাওয়ায় আমাদের কাজ করতে সুবিধা হচ্ছে।তাই প্রতিমা নির্মানের কাজও শেষ হচ্ছে তারাতাড়ি”।

কুমিল্লা পূজা উৎযাপন পরিষদ জানান,এ বছর কুমিল্লায় ৭৫৭টি পূঁজা মন্ডপে শারদীয় দূর্গাপূঁজা অনুষ্ঠিত হবে।যা গতবারের চেয়ে একটু বেশি। পূঁজা উদযাপন পরিষদ আরো বলেন, পূঁজা উদযাপন পরিষদের পক্ষ থেকে সকল মন্ডপে সর্বাধিক সহযোগীতা করা হবে”।