Tag Archives: কুমিল্লায় মাঠে উঠানে রঙিন সরিষার উৎসব

কুমিল্লায় মাঠে উঠানে রঙিন সরিষার উৎসব

 

ডেস্ক রিপোর্টঃ
নোয়াপাড়া। কুমিল্লা সদর দক্ষিণ উপজেলার গলিয়ারা ইউনিয়নের একটি গ্রাম। গ্রামের মাঠ জুড়ে সরিষার ফসল। পাকা সরিষার ফসল তোলায় ব্যস্ত কৃষক ও শ্রমিকরা। মাথায় ও রিকশা ভ্যানে বাড়িতে নেয়া হচ্ছে সরিষার ফসল।

বাড়িতে নেয়ার পর কেউ হাত দিয়ে- কেউ মেশিন দিয়ে সরিষা ছাড়ায়। নোয়াপাড়ার কৃষক রফিকুল ইসলাম,রাহেলা বেগমসহ কুন্দারঘোড়া, কৃষ্ণপুর, নলকুড়িসহ কয়েকটি গ্রামের উঠানে এখন সরিষা ছড়ানোর উৎসব চলছে। সরেজমিন গিয়ে নাকে লাগে সরিষার ঘ্রাণ। কৃষক-কৃষাণীরা সরিষা ছাড়ানো, পরিস্কার ও শুকানোতে ব্যস্ত। ফসল ভালো হওয়ায় খুশি কৃষক পরিবার। উঠানে হলুদ আর খয়েরি সরিষার গায়ে রোদ লেগে ঝলমলিয়ে উঠে। এসব গ্রামের অনেকে নিজের খেতের

সরিষা ভাঙিয়ে তেল তৈরি করে। বাজারের সয়াবিন তেলে তাদের বিশ্বাস কম বলেও জানান।
নোয়াপাড়া গ্রামের কৃষক কামাল হোসেন বলেন,তিনি ৪৪শতক জমিতে সরিষা চাষ করেছেন। খরচ হয়েছে সাড়ে সাত হাজার টাকার মতো। এই জমিতে ৬মণের উপরে সরিষা পেয়েছেন।

প্রতি মণ দুই হাজার টাকার হিসেবে ১২ হাজার টাকা পাবেন। এছাড়া সরিষার গাছ জ্বালানি হিসেবে ব্যবহার করবেন।
গলিয়ারা ইউনিয়নের উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা শাহিদা খানম বলেন,কম সময়ে কম খরচে বেশি লাভ পাওয়ায় কৃষকরা সরিষা চাষে মনোযোগী হচ্ছে। এই এলাকায় টরি সেভেন,দেশী,বারি ১৮,৯,বিনা ৯ জাতের সরিষা চাষ করা হয়। তবে বেশি চাষ করা হয় বিনা ৯জাত।

কুমিল্লা সদর দক্ষিণ উপজেলার কৃষি কর্মকর্তা মহিউদ্দিন মজুমদার বলেন,সদর দক্ষিণ উপজেলায় ১৩০ হেক্টর জমিতে এবার সরিষার চাষ হয়েছে।

সরিষার উৎপাদন বাড়াতে আমরা প্রদর্শনী প্লটের পাশাপাশি কৃষকদের পরামর্শ দিয়ে থাকি। কারণ বাজারের যে সয়াবিন তেল রয়েছে তার অধিকাংশ ভেজাল। খাঁটি সয়াবিন তেলের প্রতি কেজির দাম নি¤েœ ৩০০ টাকা হওয়ার কথা। সেখানে আমরা তা একশ’ টাকায় কিনছি।