Tag Archives: কুমিল্লা সদর উপজেলা

কুমিল্লায় গায়ে হলুদের রাতে প্রেমিকার আত্মহত্যা, খবর পেয়ে প্রেমিকের বিষপান

 

ডেস্ক রিপোর্টঃ

কুমিল্লায় গায়ে হলুদের রাতে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন শারমিন আক্তার (২৩) নামের এক তরুণী। শুক্রবার (৫ মে) ভোর ৪টায় নগরীর বাগিচাগাঁও এলাকায় নিজ বাসায় গলায় ওড়না পেঁচিয়ে আত্মহত্যা করেন তিনি।

প্রেমিকার আত্মহত্যার খবর শুনে সকালে বিষপানে আত্মহত্যার চেষ্টা চালান তার সাবেক প্রেমিক রনি। বর্তমানে তিনি কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।

নিহত শারমিন আক্তারের গ্রামের বাড়ি কুমিল্লা সদর উপজেলার কাকিয়ারচর এলাকায়। তারা নগরীর বাগিচাগাঁও এলাকায় ভাড়া থাকেন।

প্রেমিক রনি কুমিল্লা সদর উপজেলার পালপাড়া এলাকার মৃত তাজুরুল ইসলামে ছেলে।

কুমিল্লা কোতোয়ালি মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আহমেদ সনজুর মোর্শেদ এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

স্থানীয়রা জানান, বৃহস্পতিবার রাতে নগরীর বাগিচাগাঁও এলাকায় শারমিনের গায়ে হলুদের অনুষ্ঠান চলছিল। হলুদের অনুষ্ঠানে হঠাৎ প্রেমিক রনি তার দলবল নিয়ে এসে হাজির হন। এসময় তিনি শারমিনকে বিয়ে না করার জন্য আকুতি মিনতি জানিয়ে কান্নাকাটি শুরু করেন। হলুদের অনুষ্ঠানে হঠাৎ প্রেমিকের উপস্থিতি এবং বিয়ে না করার আকুতি শোনার পর বিমর্ষ ছিলেন শাারমিন। পরে ভোর সাড়ে ৪টার দিকে নিজের শয়ন কক্ষে গলায় ওড়না পেঁচিয়ে আত্মহত্যা করেন তিনি।

নিহত শারমিনের ভাবি হাসনাত জাহান ভূঁইয়া প্রীতি জানান, ২০২০ সালের শেষের দিকে বুড়িচং উপজেলার বাকশিমুল এলাকার আসাদুজ্জামান অনিল নামের এক যুবকের সঙ্গে শারমিনের বিয়ে ঠিক হয়। তার ভাই যুক্তরাষ্ট্রে থাকায় ২০২৩ সালের ৫ মে বিয়ের তারিখ নির্ধারণ করা হয়।

তিনি বলেন, শারমিন হলুদ অনুষ্ঠানের পর পোশাক পরিবর্তনের জন্য নিজের রুমে গিয়ে ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেন।

এ বিষয়ে প্রেমিক রনির মা বলেন, ‘শারমিন আমাদের পুত্রবধূ। কোর্ট ম্যারিজ করে তারা বিয়ে করেছে। কিন্তু আমাদের পরিবারের অবস্থা ভালো না হওয়ায় বউমার পরিবার আমাদের পরিবারের সঙ্গে সম্পর্ক রাখতে রাজি হয়নি। তারা ডিভোর্স ছাড়াই বউমাকে অন্য জায়গায় বিয়ে দিতে চায়।’

তিনি আরও বলেন, ‘আমাদের পুত্রবধূ দুইমাসের অন্তঃসত্ত্বা। আমার ছেলেও সকালে বিষপান করে আত্মহত্যার চেষ্টা করে। আমরা এর ন্যায্য বিচার চাই।’

কুমিল্লা কোতোয়ালি মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আহমেদ সনজুর মোর্শেদ বলেন, ঠিক কী কারণে এ ঘটনা ঘটেছে তা এখনো নিশ্চিত নই। আমরা এ বিষয়ে খোঁজখবর নিচ্ছি। এ ঘটনায় থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা করা হয়েছে।

কুমিল্লা সদরের কালির বাজারে নানার বাড়িতে বেড়াতে এসে ড্রাম ট্রাক চাপায় নিহত শিশু

 

সাকিব আল হেলালঃ

কুমিল্লা সদর উপজেলার কালির বাজার ইউনিয়নের হাতিঘাড়া গ্রামে তাহমিদুল ইসলাম (৫) নামের এক শিশু ড্রাম ট্রাকের চাপায় নিহত হয়েছে।

বুধবার (২৩ ডিসেম্বর) দুপুর ২টায় কালির বাজার-কোটবাড়ি সড়কের হাতিগাড়া চৌমুহনী এলাকায় বালুবাহী ড্রামট্রাক চাপায় ঘটনাস্থলেই তাহমিদুল ইসলাম নামের শিশুর মৃত্যু হয়।

সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত তাহমিদুল ইসলাম বরুড়া উপজেলার মির্জানগর গ্রামের এমরান মিয়ার ছেলে।

স্থানীয় ও পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, নিহত শিশু মায়ের সাথে নানার বাড়ি হাতিগাড়া (সরদার বাড়ি) এলাকায় বেড়াতে আসে। সিএনজি থেকে নেমে সড়ক পারাপারের সময় কোটবাড়িমুখি দ্রুতগতির একটি ড্রামট্রাক চাপা দিলে তাৎক্ষণিক তার মৃত্যু হয়।

দুর্ঘটনার পর ঘাতক চালক ড্রামট্রাক নিয়ে পালিয়ে যাওয়ার সময় স্থানীয় কয়েকজন বাইক নিয়ে ধাওয়া করে কোটবাড়ি বাজার এলাকা থেকে চালকসহ গাড়িটি আটক করে।

খবর পেয়ে নাজিরা বাজার ফাঁড়ি পুলিশের এসআই ফারুক সঙ্গীয় ফোর্সসহ ঘটনাস্থলে পৌঁছে গাড়িসহ চালককে আটক করে ফাঁড়িতে নিয়ে আসেন।

শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত নিহতের পরিবার ময়নাতদন্ত ও মামলা করতে অনিহা প্রকাশ করেছেন বলে জানা গেছে।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে নাজিরা বাজার ফাঁড়ির এসআই ফারুক বলেন, বুধবার সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত কোন মামলা বা লিখত অভিযোগ দায়ের করা হয়নি।