Tag Archives: গাড়ি ভাংচুর

গুলশান শপিং সেন্টার সিলগালা, পু‌লি‌শের স‌ঙ্গে ব্যবসায়ীদের ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া

ডেস্ক রিপোর্ট:

রাজধানীর গুলশান-১ নম্বরের গোল চত্বর অবরোধ করে ব্যবসায়ী ও কর্মচারীরা বিক্ষোভ করায় ওই এলাকায় তীব্র যানজটের সৃষ্টি হয়। তাদের ছত্রভঙ্গ করতে গেলে পুলিশের সঙ্গে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া হয়। এ সময় সেখানে কয়েকটি গাড়ি ভাংচুর করা হয়।

গুলশান শপিং সেন্টার সিলগালা করার প্রতিবাদে আজ বৃহস্পতিবার দুপুর ১২টার পর সড়ক অবরোধ করেন ব্যবসায়ী ও দোকানের কর্মচারীরা। এতে সাড়ে তিন ঘণ্টার বেশি সময় আশপাশের এলাকায় যানজটের সৃষ্টি হয়। বিকেল পৌনে ৪টার দিকে সড়ক থেকে তাদের সরানোর চেষ্টা করে পুলিশ।

এ সময় ব্যবসায়ীরা ছত্রভঙ্গ হয়ে ফিরে যাওয়ার সময় বেশ কয়েকটি প্রাইভেটকার ও বাস ভাংচুর করে বলে জানা গেছে। সেখানে দুই পক্ষের মধ্যে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া হয়। তবে কিছুক্ষণের মধ্যে পুলিশ গোল চত্বরটি ফাঁকা করে দেয়। এতে করে ওই এলাকায় ফের যান চলাচল স্বাভাবিক হতে থাকে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে গুলশান-১ নম্বর চত্বরে বিপুল সংখ্যক পুলিশ মোতায়েন রয়েছে।

পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে গুলশান-১ নম্বর চত্বরে বিপুল সংখ্যক পুলিশ মোতায়েন করা হয়

এর আগে দুপুর ১২টার দিকে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের (ডিএনসিসি) নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ঝুঁকিপূর্ণ ভবন হওয়ায় মার্কেটটি সিলগালা করে দেন। এ সময় ব্যবসায়ীদের সঙ্গে সিটি করপোরেশনের কর্মকর্তাদের বাগবিতণ্ডা হয়।

গুলশান ট্রাফিক বিভাগের সহকারী পুলিশ কমিশনার মুস্তাফিজুর রহমান গণমাধ্যমকে জানান, ভবনটি পরিত্যক্ত ও ঝুঁকিপূর্ণ হওয়ায় সেটি সিলগালা করতে এসেছিলেন ডিএনসিসি কর্মকর্তারা। এখানে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটও আছেন।

চৌদ্দগ্রামে ইউপি চেয়ারম্যানের উপর সন্ত্রাসী হামলা ও গাড়ি ভাংচুর, হামলাকারীর অস্ত্রসহ ছবি ভাইরাল

স্টাফ রিপোর্টার:

কুমিল্লার চৌদ্দগ্রামে সন্ত্রাসীদের হামলায়  শ্রীপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ও উপজেলা যুবলীগের আহবায়ক শাহজালাল মজুমদার আহত হয়েছে। এসময় সন্ত্রাসীরা হকিষ্টিক দিয়ে তার গাড়িটি ভাংচুর করেছে।

বৃহস্পতিবার (১৪ জুলাই) বিকাল আনুমানিক ৩ টায় উপজেলার শ্রীপুর ইউনিয়নের নালঘর বাজারে ঘটনাটি ঘটে।

সন্ত্রাসী হামলায় আহত শাহজালাল মজুমদার জানান, বৃহস্পতিবার দুপুরে পাশের গ্রাম গোপালনগর থেকে দাওয়াত খেয়ে আসার পথে চিহ্নিত সন্ত্রাসী মনিরুজ্জামান জুয়েলের নেতৃত্বে ৭-৮ জন সন্ত্রাসী আমার গাড়ির গতিরোধ করে। এসময় প্রত্যেকের হাতেই হকিষ্টিকসহ দেশীয় বিভিন্ন অস্ত্রশস্ত্র ছিল। আমার গাড়িতে আমি এবং চালক ব্যতিত কেউ ছিলনা। সন্ত্রাসীদের হামলায় আমি দৌড়ে নালঘর বাজারের পাশে সামাদ মেম্বারের বাড়িতে আশ্রয় নিই। এসময় সন্ত্রাসীরা আমার ব্যবহৃত গাড়িটি ভাংচুর করে। পরে স্থানীয় জনতা একত্রিত হলে সন্ত্রাসীরা পালিয়ে যায়।স্থানীয় সাংসদ মুজিবুল হক মুজিবের নির্দেশে জুয়েল আমার উপর এ হামলা করেছে। বিগত ইউপি নির্বাচনে আমি নৌকা প্রতিক পেয়ে বিজয়ী হয়েও গত ৭ মাস ধরে ইউনিয়ন পরিষদে যেতে পারি না। আমার চেয়ারম্যান কক্ষ তালাবদ্ধ করে রেখেছে এমপি মুজিবুল হকের ভাতিঝারা ও এই সন্ত্রাসী জুয়েল। এমপি সাহেবের পচ্ছন্দের এক মেম্বার প্রার্থী নির্বাচনে পরাজিত হওয়ার পরই আমার উপর এ বিপদ নেমে এসেছে। এ নিয়ে ২ বার আমার উপর হামলা হয়েছে।

এসময় তিনি আরও বলেন, মনিরুজ্জামান জুয়েল বিএনপি’র রাজনীতির সাথে জড়িত। জেলা এবং উপজেলা বিএনপি’র শীর্ষ নেতাদের সাথে তার চলাফেরা। তার বিরুদ্ধে একাধিক মামলায় গ্রেফতারী পরোয়ানা রয়েছে কিন্তু রহস্যজনক কারণে গ্রেফতার হয়না সে। এছাড়াও তার কাছে আমেরিকার তৈরি একটি ষ্টেনগান রয়েছে।

এ দিকে হামলার ঘটনার পর হামলাকারি জুয়েলের অস্ত্রসহ দুটি ছবি ফেসবুকে ভাইরাল হয়েছে।

হোমনায় কেন্দ্রীয় যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক নিখিলের গাড়িবহরে হামলা, আহত ১০

 

ডেস্ক রিপোর্টঃ

কুমিল্লার হোমনায় সম্মেলন থেকে ফেরার পথে কেন্দ্রীয় যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক মাইনুল হোসেন খান নিখিলের গাড়িবহরে হামলার অভিযোগ পাওয়া গেছে। ঘটনার সময় কয়েকটি গাড়ি ভাংচুর করে সন্ত্রাসীরা। এতে হোমনা যুবলীগের নবনির্বাচিত সভাপতি খন্দকার নজরুল ইসলামসহ অন্তত ১০ জন আহত হয়েছেন।

আহতরা হলেন- রেজাউল করিম, মো. রাসেল,মাহমুদ বাপ্পি, জনি, শাকিল, মো. ফরিদ, মামুন, শরিফ ও লিটন। আহতদের বিভিন্ন স্বাস্থ্য কেন্দ্রে নিয়ে চিকিৎসা করা হচ্ছে।

জানা গেছে, মঙ্গলবার হোমনা উপজেলা যুবলীগের ত্রিবার্ষিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে। সম্মেলনের দ্বিতীয় অধিবেশন শেষে ঢাকায় ফেরার পথে এ ঘটনা ঘটে।

প্রত্যক্ষদর্শী যুবলীগ নেতারা জানান, যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক প্রার্থী লায়ন শাহ আজম বিটু কাউন্সিল ভোটে হেরে যাওয়ায় সভাপতিসহ কেন্দ্রীয় নেতারা ঢাকায় ফেরার পথে ৩০-৪০ জন সন্ত্রাসী কেন্দ্রীয় যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক মাইনুল হোসেন খান নিখিলের গাড়িবহরে অতর্কিত হামলা চালায়।

তবে এ ঘটনায় সাধারণ সম্পাদক প্রার্থী লায়ন শাহ আজম বিটুর কোনো মন্তব্য পাওয়া যায়নি। হোমনা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আবুল কায়েস আকন্দ গণমাধ্যমকে জানান, এখনও লিখিত কোনো অভিযোগ পাইনি। অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।