Tag Archives: ড্রেজার মেশিন

মুরাদনগরে ২টি ড্রেজার মেশিন ও ৫ হাজার ফুট পাইপ বিনিষ্ট

মুরাদনগরে ২টি ড্রেজার মেশিন ও ৫ হাজার ফুট পাইপ বিনিষ্ট

মুরাদনগর প্রতিনিধি:

কুমিল্লার মুরাদনগর উপজেলায় অবৈধভাবে কৃষি জমি থেকে মাটি উত্তোলনের অভিযোগে দুইটি ড্রেজার মেশিন ও পাচঁ হাজার ফুট পাইপ বিনিষ্ট করেছে ভ্রম্যমান আদালত।

রোববার বিকেলে উপজেলার বাঙ্গরা বাজার থানাধীন বাঙ্গরা পশ্চিম ইউনিয়নের কুরুন্ডি গ্রামে উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট নাসরিন সুলতানা নিপা নেতৃত্বে ভ্রম্যমান আদালতের মাধ্যমে এ অভিযান পরিচালনা করেন।

জানা যায়, উপজেলার কুরুন্ডি গ্রামের বিলে স্থানীয় ইউপি সদস্য সবুজ ও গণি নামে দুই ব্যক্তি পৃথক দুইটি স্থানে প্রথমে সামান্য একটু জমি ক্রয় করে। পরে সেই কৃষি জমি থেকে অবৈধ ড্রেজার দিয়ে মাটি উত্তোলন করার ফলে আশ-পাশের জমি ভেঙ্গে পরলে প্রভাব খাটিয়ে নাম মাত্র মূল্য দিয়ে নিরিহ কৃষকের কাছ থেকে হাতিয়ে নেয় অনেক কৃষি জমি।

মুরাদনগরে ২টি ড্রেজার মেশিন ও ৫ হাজার ফুট পাইপ বিনিষ্ট

তাদের ভয়ে সরাসরি কেউ প্রতিবাদ না করতে পেরে স্থানীয় ভাবে নাম প্রকাশ না করে মুরাদনগর উপজেলা কমিশনারের কাছে কৃষি জমি থেকে অবৈধ ড্রেজার দিয়ে মাটি উত্তোলনের বিষয়টি অবহিত করে।

পরে রোববার বিকেলে খরা রুদ্রের তাপে ৫ কিলোমিটার পায়ে হেঁটে সুদূর বিলের মাঝখানে ঘটনাস্থলে গিয়ে ভ্রাম্যমাণ আদালত অভিযান চালায়। এসময় ২টি ড্রেজার মেশিন ও ৫ হাজার ফুট পাইপ বিনষ্ট করে ভ্রাম্যমাণ আদালত।

এ বিষয়ে উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট নাসরিন সুলতানা নিপা বলেন, ভ্রাম্যমান আদালতের মাধ্যমে অবৈধ ড্রেজারের বিরুদ্ধে বালুমহাল ও মাটি ব্যবস্থাপনা আইন, ২০১০ অনুসারে মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করা হয়েছে। যতক্ষণ পর্যন্ত পুরো উপজেলায় একটি ড্রেজারও চালু থাকবে ততক্ষণ পর্যন্ত আমাদের অভিযান অব্যাহত থাকবে।

কুমিল্লার মুরাদনগরে পুলিশের অভিযানে তিনটি ড্রেজার মেশিন জব্দ

 

মাহবুব আলম আরিফ, মুরাদনগরঃ

কুমিল্লার মুরাদনগরে অবৈধভাবে কৃষি জমি থেকে মাটি উত্তোলনের সময় তিনটি ড্রেজার মেশিন জব্দ করেছে পুলিশ।

বৃহস্পতিবার (৮ জুলাই) দুপুরে উপজেলার বাঙ্গরা বাজার থানাধীন এলখাল পশ্চিম বিল থেকে দুটি ও পূর্বধইর থেকে একটি ড্রেজার মেশিন জব্দ করা হয়।

এ সময় ঘটনাস্থলে ড্রেজার মেশিনের মালিকদের না পাওয়ায় অজ্ঞাতনামায় বাঙ্গরা বাজার থানায় জিডি করা হয়েছে।

স্থানীয় কৃষকদের সাথে কথা বলে জানা যায়, এইসব ড্রেজারের জন্য জমিতে আগের মতো এখন আর ধান চাষ করা যায় না, আস্তে আস্তে সব ফসলি জমি নষ্ট করে ফেলছে এইসব ভুমিদস্যুরা। এরা প্রথমে সামান্য একটু জমি ক্রয় করে সেখানে ড্রেজার বসায়। পরে আশ-পাশের জমি গুলো ভেঙ্গে পরলে নাম মাত্র টাকা দিয়ে কিনে নেয়। বেশি কিছু বললে নানানভাবে ভয়ভিতি দেখায়।

অভিযান পরিচালনা করাকালিন সময় মুরাদনগর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মীর আবিদুর রহমান বলেন, ড্রেজার মেশিন পরিবেশ ও ফসলি জমির জন্য অত্যন্ত ক্ষতিকর, স্থানীয় কৃষকদের অভিযোগের ভিত্তিতে বাঙ্গরা বাজার থানায় আজ দ্বিতীয় বারের মতো অভিযান পরিচালনা করেছি। কুমিল্লা পুলিশ সুপার ফারুক আহমেদ বিপিএমবার স্যারের নির্দেশনায় আমরা এই ড্রেজার বিরোধী অভিযান পরিচালনা করে আসছি। ড্রেজার বিরোধী এই অভিযান অব্যাহত থাকবে বলে জানান তিনি।

তিনি আরো বলেন, মুরাদনগরের স্থানীয় সংসদ সদস্য ইউসুফ আবদুল্লাহ হারুন এফসিএ,তিনি নিজেও ড্রেজারের বিরুদ্ধে অনেক সোচ্চার, তিনি আমাদের ড্রেজারের বিরুদ্ধে শক্তভাবে পদক্ষেপ নিতে উৎসাহিত করছেন।

এ সময় বাঙ্গরা বাজার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোঃ কামরুজ্জামান তালুকদারসহ পুলিশের একটি টিম উপস্থিত ছিলেন।