Tag Archives: ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে চাঁদাবাজি বন্ধে ইলিয়টগঞ্জ হাইওয়ে পুলিশের সচেতনতা কার্যক্রম

ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে চাঁদাবাজি বন্ধে ইলিয়টগঞ্জ হাইওয়ে পুলিশের সচেতনতা কার্যক্রম

 

জাকির হোসেন হাজারীঃ

ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের পরিবহন সেক্টরে চাঁদাবাজি বন্ধ ও শৃঙ্খলা ফেরাতে কুমিল্লার ইলিয়টগঞ্জ হাইওয়ে পুলিশ মহাসড়কে সচেতনতামূলক কার্যক্রম চালু করেছে। শুক্রবার (১৯ জুন) সকালে ইলিয়টগঞ্জ হাইওয়ে পুলিশের ইনচার্য গোলাম মোস্তফা এ বিশেষ অভিযান শুরু করেছেন।

শুক্রবার (১৯ জুন) সকালে মহাসড়কের ইলিয়টগঞ্জ মুরাদনগর মোড়, কুডুম্বপুর, মাধাইয়া স্ট্যান্ডে গাড়ি চালক, মালিক ও সমিতির নেতাদের সাথে মতবিনিময় করেন ইলিয়টগঞ্জ হাইওয়ে পুলিশ।

জানা যায়, দীর্ঘদিন ধরে একটি চক্র মহাসড়কের বিভিন্ন পরিবহন থেকে চাঁদাবাজি করে আসছে। তাদের কারণে গাড়ি চালক ও মালিকরা অতিষ্ঠ। এই চাঁদাবাজি বন্ধ করতে হাইওয়ে পুলিশ মাঠে নেমে চালকদের সচেতনতামূলক কার্যক্রম চালু করেছে। চালকদের সাথে কথা বলে কাউকে কোন প্রকার চাঁদা না দেয়া ও কেউ চাঁদা চাইলে সাথে সাথে তাদের ফোন করে পুলিশকে অবগত করার পরামর্শ দেন। পরিবহন সমিতির নামে বেনামে বিভিন্ন গাড়ি থেকে টাকা আদায় আর করতে দেওয়া হবে না বলে মতবিনিময় সভায় পুলিশ চাঁদাবাজদের হুশিয়ার করেন।

চাঁদাবাজি বন্ধ ছাড়াও করোনাভাইরাস প্রতিরোধে করণীয় সকল বিষয়ে গাড়ি চালকদের সঙ্গে সচেতন করা হয়।

ইলিয়টগঞ্জ হাইওয়ে পুলিশের ইনচার্য গোলাম মোস্তফা জানান, কিছু ব্যক্তি পরিবহনের নেতা দাবি করে মহাসড়কে নতুন করে চাঁদাবাজি শুরু করেন। তাদের কারণে গাড়ি চালক ও মালিকরা অতিষ্ঠ। গাড়ি চালকদের সচেতন করতে এবং মহাসড়কে চাঁদাবাজি বন্ধ করতে আমরা বিশেষ অভিযানে নেমেছে। তাছাড়া মহা সড়ক থেকে সিএনজিসহ তিন চাকার যেসব গাড়ি আটক করা হয়, এতে কাউকে টাকা পয়সা না দিতেও নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। নতুন প্রজ্ঞাপন মোতাবেক শাস্তিস্বরূপ দুই মাস গাড়ি আটক রাখা হবে। পরবর্তীতে হাইওয়ে পুলিশের পুলিশ সুপারের নির্দেশ মোতাবেক গাড়ি ছেড়ে দেওয়া হবে।