Tag Archives: ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়ক অ্যাম্বুলেন্স-মোটরসাইকেলের দখলে; স্বাস্থ্য বিধি উপেক্ষা করে যাত্রী পরিবহন

ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়ক অ্যাম্বুলেন্স-মোটরসাইকেলের দখলে; স্বাস্থ্য বিধি উপেক্ষা করে যাত্রী পরিবহন

 

চান্দিনা প্রতিনিধি:

করোনা বিস্তার রোধে দেশব্যাপী কঠোর লকডাউন কে অমান্য করে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে দেদারসে চলছে অ্যাম্বুলেন্স ও মোটরসাইকেল। স্বাস্থ্য বিধি উপক্ষো করে যাত্রী পরিবহন করছে এসব যানবাহন।

মহাসড়কের চান্দিনা অংশে বিভিন্ন ষ্টেশনগুলি যেনো এম্বুল্যান্স, মোটরসাইকেল ও সিএনজি চালিত অটোরিক্সার দখলে। লকডাউনে যাত্রীবাহী বাস চলাচল বন্ধ থাকলেও এসব যানবাহনের দাপট থেমে নেই।

বৃহস্পতিবার (১ জুলাই) থেকে করোনা ভাইরাসের সংক্রামণ রোধে সকল প্রকার গণপরিবহন বন্ধ ঘোষণার পরও মহাসড়কের এই অংশে থেমে নেই যাত্রী পরিবহন।

সরেজমিনে বৃহস্পতিবার (৮ জুলাই) চান্দিনা বাস স্টেশন ঘুরে দেখা যায়, অ্যাম্বুলেন্স, মাইক্রোবাস, প্রাইভেটকার, মারুতি, সিএনজি অটোরিকশা, পিকআপ এমনকি মোটরসাইকেল দিয়েও অবাধে যাতায়াত করছে যাত্রীরা। স্বাস্থ্য বিধি মানার ক্ষেত্রে চালকরা একেবারেই উদাসীন। মাইক্রোবাস, সিএনজি সহ অন্যান্য পরিবহণে একই সিটে ৪-৫ জন করে যাত্রী নিয়ে চলাচল করতে দেখা গেছে। মহাসড়কের চান্দিনা অংশে এখন শুধু বাস ছাড়া সকল যানবাহনই চলাচল করছে।

ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের নিমসার, চান্দিনা ও মাধাইয়া স্টেশন এলাকা ঘুড়ে দেখা গেছে, ‘লকডাউনে’ বাস চলাচল বন্ধ থাকায় অবৈধ যানবাহনগুলো যাত্রী পরিবহনে নেমে পড়েছে মহাসড়কে। প্রাইভেট অ্যাম্বুলেন্স, মাইক্রোবাস, প্রাইভেটকার দিয়ে ২-৩ গুণ অতিরিক্ত ভাড়ায় ঢাকার উদ্দেশ্যে যাত্রী নিতে দেখা গেছে। জেলার ভিতরের যাত্রীদের বহনে সিএনজি অটোরিকশা, ফিটনেসবিহীন মারুতি-মাইক্রোবাস, পিকআপ চলাচল করছে। মহাসড়কের চান্দিনা স্টেশন এলাকায় ঢাকায় যাত্রী বহন করতে সারি সারি প্রাইভেট পরিবহন দাঁড়িয়ে রয়েছে।

বাসের বিকল্প হিসেবে অন্যান্য পরিবহনে এভাবে যাত্রী পরিবহন চলতে থাকলে করোনা ভাইরাসের ডেল্টা ভেরিয়েন্টসহ সংক্রামণ রোধে ‘লকডাউন’ অনেকটাই অকার্যকর হয়ে পড়বে বলে মনে করছেন স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা।

কুমিল্লা মেডিক্যাল কলেজের সাবেক পরিচালক ডা. মুজিব রাহমান বলেন, ‘মানুষকে ঘরে রাখতে সকল প্রকার গণপরিবহন বন্ধ করেছে সরকার। কিন্তু বাসের বিকল্প সকল পরিবহন চলতে থাকলে সেই ‘লকডাউন’ কোনো কাজেই আসবে না। বর্তমান ঢেউয়ের সংক্রামণ মারাত্মক আকার ধারণ করছে। সরকারের সিদ্ধান্ত বাস্তবায়নে প্রশাসনকে আরো কঠোর হতে হবে।’

হাইওয়ে পুলিশের ইলিয়টগঞ্জ ফাঁড়ির উপ-পরিদর্শক (এসআই) মিঠুন বিশ^াস জানান, মহাসড়কে থ্রি-হুইলার চলাচল নিষেধ। আমরা অভিযান চালিয়ে কয়েকটি থ্রি-হুইলার আটক করেছি। অ্যাম্বুলেন্সে যাত্রী পরিবহনের বিষয়টি আমার জানা নেই। চেক পোস্ট করে অভিযান চালিয়ে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।