Tag Archives: পদযাত্রা

শুক্রবার নোয়াখালীতে বিএনপির পদযাত্রা, উৎসবের আমেজ

নোয়াখালী প্রতিনিধি:

যুগপৎ আন্দোলনের কর্মসূচির ধারাবাহিকতায় নোয়াখালীতে আগামীকাল বিএনপির দেশ বাঁচাতে মেহনতি মানুষের পদযাত্রা অনুষ্ঠিত হবে।

শুক্রবার (১৪ জুলাই) দুপুর ৩টায় নোয়াখালী শহরের শহীদ ভুলু স্টেডিয়ামে এই কর্মসূচির আয়োজন করা হয়। এরই মধ্যে নোয়াখালীর বিভিন্ন উপজেলায় দেখা দিয়েছে উৎসবের আমেজ। বিএনপির সহযোগী সংগঠন কৃষকদল, শ্রমিকদল, মৎসজীবীদল,তাঁতীদল ও জাসাসের উদ্যেগে এই পদযাত্রার আয়োজন করা হয়।

পথযাত্রায় প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তৃতা করবেন, বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। পদযাত্রার প্রধান সমন্বয়কারী হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন বিএনপির কেন্দ্রীয় ভাইস চেয়ারম্যান ডা.এ জেড এম জাহিদ হোসেন।

পদযাত্রা ঘিরে বিএনপির নেতাকর্মিদের মাঝে উৎসব মুখর পরিবেশ বিরাজ করছে। বৃহস্পতিবার সকালে কেন্দ্রীয় বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান বরকতউল্লা বুলু, বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান মোহাম্মদ শাহজাহান, নোয়াখালী জেলা বিএনপির সাবেক সাধারণ সম্পাদক হারুনুর রশীদ আজাদ, মাহবুব আলমগীর আলো, ছাত্রদল চট্টগ্রাম বিভাগীয় সম্পাদক মনজুরুল আজম সুমন, নোয়াখালী জেলা যুবদলের সাধারণ সম্পাদক নুরুল আমিন খান, জেলা বিএনপির সদস্য মো.গোলাম মোমিত ফয়সাল, জেলা শ্রমিকদলের সদস্য সচিব নিজাম উদ্দিন সভাস্থল পরিদর্শন করেন।

জেলা বিএনপির সাবেক সাধারণ সম্পাদক হারুনুর রশীদ আজাদ বলেন, তারুণ্যের সমাবেশের পাশাপাশি শ্রমিক দল, কৃষক দল, তাঁতী দল, মৎস্যজীবী দল ও জাসাসের যৌথ উদ্যোগে দেশ বাঁচাতে মেহনতি মানুষের পদযাত্রা সরকার বিরোধী রাজনীতিতে নতুন মাত্রা যোগ করছে। নোয়াখালীতে পাঁচ সংগঠনের যৌথভাবে পদযাত্রা কর্মসূচি পালনে শ্রমজীবী মানুষের নবজাগরণ ঘটাবে।

নোয়াখালী জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট আবদুর রহমান বলেন, এ পদযাত্রায় বৃহত্তর নোয়াখালীর পাঁচটি জেলার নেতাকর্মি অংশ গ্রহণ করবে। জেলা বিএনপির নেতাকর্মিরা তাদের সর্বাত্মক সহযোগিতা করছে। অপর এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, এখন পর্যন্ত সরকারি দলের নেতাকর্মি বা পুলিশ আমাদের নেতাকর্মিদের কোন হয়রানি করেনি।

কুমিল্লায় বিএনপির পদযাত্রায় পুলিশের উপর হামলা, ২ শতাধিক নেতাকর্মীর বিরুদ্ধে মামলা

 

চান্দিনা প্রতিনিধিঃ

কুমিল্লা উত্তর জেলা বিএনপির ‘পদযাত্রা’ কর্মসূচীতে বিএনপি নেতা-কর্মীরা পুলিশের উপর হামলার অভিযোগে বিএনপি কেন্দ্রীয় কমিটির যুগ্ম মহাসচিব হাবিব-উন-নবী খাঁন সোহেল সহ কুমিল্লা উত্তর জেলার দুই শতাধিক নেতা-কর্মীদের বিরুদ্ধে থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে।

রবিবার (২৬ ফেব্রুয়ারী) দুপুরে চান্দিনা থানার অফিসার উপ-পরিদর্শক (এস.আই) তাপস দাস বাদী হয়ে ওই মামলাটি দায়ের করেন। মামলায় বিএনপি’র স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন এর ছেলে ও কেন্দ্রীয় বিএনপি নির্বাহী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মারুফ হোসেন, কুমিল্লা উত্তর জেলা বিএনপি যুগ্ম আহবায়ক ও চান্দিনা উপজেলা বিএনপি সভাপতি আতিকুল আলম শাওন, সাধারণ সম্পাদক কাজী আরশাদ সহ কুমিল্লা উত্তর জেলা ও বিভিন্ন উপজেলা বিএনপি’র ৩৬ নেতা-কর্মীকে আসামী করা হয়। এছাড়াও অজ্ঞাতনামা আসামী করা হয়েছে আরও ১৭০জনকে।

জানাযায়, বিএনপি’র কেন্দ্রীয় কর্মসূচীর অংশ হিসেবে শনিবার (২৫ ফেব্রুয়ারী) বিকেলে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের দাউদকান্দি উপজেলার দড়ানিপাড়া এলাকায় অবস্থান নেয় কুমিল্লা উত্তর জেলা বিএনপি ও অঙ্গ-সংগঠনের নেতা-কমর্ীরা। সেখানে পুলিশি বাঁধায় স্থান ত্যাগ করে মহাসড়কের চান্দিনা-মুরাদনগর উপজেলার সীমান্তবর্তী গোমতা এলাকায় অবস্থান নেয়। সেখানেও বাঁধা পেয়ে দেবীদ্বার ও চান্দিনা উপজেলার সীমান্তবর্তী কুটুম্বপুর-খাদঘর এলাকা থেকে প্রায় দুই সহস্রাধিক নেতা-কর্মী ‘পদযাত্রা’ শুরু করলে বাঁধা দেয় পুলিশ।

এদিকে, দফায় দফায় পুলিশি বাঁধার মুখে পড়ে ক্ষিপ্ত হয়ে উঠে বিএনপি নেতা-কর্মীরা। ক্ষিপ্ত বিএনপি নেতা-কর্মীরা হঠাৎ পুলিশের উপর চড়াও হয়ে ধস্তা-ধস্তি শুরু করলে পুলিশ রাবার বুলেট নিক্ষেপ ও লাঠিচার্জ করে ছত্রভঙ্গ করে। এতে বিএনপি’র অন্তত ২৫ নেতা-কর্মী আহত হয়। তাদের কেউ রাবার বুলেটে, কেউ পুলিশের লাঠি চার্জে আবার কেউবা কালভার্ট থেকে লাফিয়ে পড়ে ও পদদলিত হয়ে আহত হয়।

চান্দিনা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. সাহাবুদ্দীন খাঁন বিষয়টি বলেন- সরকারি কাজে বাঁধা, মহাসড়কে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করে ভাংচুর ও বিস্ফোরক দ্রব্যাদি বহনের অপরাধে মামলাটি দায়ের করা হয়েছে। আমরা আসামীদের অবস্থান নিশ্চিত করে গ্রেফতারের চেষ্টা করছি এবং ঘটনার সাথে আরও কারা জড়িত সেটিও খতিয়ে দেখা হচ্ছে। তদন্ত সাপেক্ষে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।