Tag Archives: পাপন বুঝতে পারছেন না

পাপন বুঝতে পারছেন না, ‘তামিমের কান্নার কি আছে’

 

স্পোর্টস ডেস্কঃ

দীর্ঘ ১৬ বছরের বর্ণাঢ্য ক্রিকেট ক্যারিয়ার থেকে বিদায় নিয়ে নিলেন বাংলাদেশ ওয়ানডে দলের অধিনায়ক তামিম ইকবাল।

বৃহস্পতিবার চট্টগ্রামের একটি হোটেলে সংবাদ সম্মেলন করে এ সিদ্ধান্ত জানান তিনি। তামিমের এমন আকস্মিক বিদায়ে সারা দেশজুড়ে ভক্ত-সমর্থকদের মনে দাগ কেটেছে।

তামিমের আচমকা এই সিদ্ধান্ত মেনে নিতে পারছেন না ক্রিকেট ফ্যানরা। বিদায়ী সংবাদ সম্মেলনে তামিমের কান্না মন ছুঁয়ে গেছে ভক্তদের।

আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে তামিমের হঠাৎ অবসরের কী কারণ? এটি কি ঝোঁকের বশে নেওয়া সিদ্ধান্ত, নাকি অনেক অভিমানের বহিঃপ্রকাশ? ক্রিকেট বোর্ড কীভাবে নিচ্ছে ওয়ানডে অধিনায়কের এ অবসর? এসব প্রশ্ন এখন সবার মনে। তামিম অবসর নিয়ে গণমাধ্যমের মুখোমুখি হয়েছিলেন বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন।

এই ইস্যুতে নানা প্রশ্নের জবাব দিয়েছেন তিনি। তার কাছে প্রথমে জানতে চাওয়া হয়, তামিমের হঠাৎ করে এমন অবসর কেন?

পাপন বলেন, একটা সিরিজ চলছে। ওর যদি এ রকম কোনো প্ল্যান থাকে, আলাপ করতে অসুবিধা কোথায় ছিল? আমার সঙ্গে তো রোজই কথা হয়। কাউকে না জানিয়ে এ রকম করব— এ মানসিকতা থেকে ওরা বের হবে কবে? মানে এটা করে ওদের কী লাভ হয়, আমি বুঝি না। আমার মাথায়ই ঢোকে না।
তামিম সংবাদ সম্মেলন করতে চেয়েছেন, আপনি কি একদমই টের পাননি? জবাবে বলেন, আমি চট্টগ্রামে খেলা দেখে রাত দেড়টায় ঢাকায় এসেছি। আমার সঙ্গে তিন দিন আগে যখন ওর কথা হলো, আমি স্কোয়াড নিয়ে জানতে চেয়েছি, ও বলেছে— সব ঠিক আছে। তার পর আবার কালও যখন গেছি, টিমের সঙ্গে বসেছি ১০ মিনিট, বেস্ট অব লাক বলে-টলে আমি খেলা দেখলাম। রাতে চলে এলাম। আসার পর আমাকে বলা হলো, ও একটা প্রেস কনফারেন্স করতে পারে।

সঙ্গে সঙ্গে জালাল ভাইকে (ক্রিকেট অপারেশনস কমিটির চেয়ারম্যান) ফোন দিলাম। তিনি ধরলেন না। সকালবেলা জালাল ভাই ফোন করার পর বললাম, এটা কী? কী নিয়ে প্রেস কনফারেন্স করবে? তিনি বললেন, জানি না তো। যা–ই হোক, আমি ভেবেছি, ও বলবে, আমি ফিট না, সামনের দুটা ম্যাচ খেলব না। কিন্তু ক্যাপ্টেন্সি ছেড়ে দেবে বা ইন্টারন্যাশনাল ক্রিকেট খেলবে না— এটি আমার মাথায়ই আসেনি। কারণ ও আমাকে কয়েকবার বলছে, ওর সঙ্গে আমার কথা হয়েছে, আমাকে সে নিজে বলছে যে, ও অন্তত চ্যাম্পিয়নস ট্রফি পর্যন্ত খেলবে।
খেলার বিষয়ে সর্বশেষ আপনাকে তামিম কি বলেছিল? এ সময় পাপন বলেন, তামিম আমাকে বলেছিল ২০২৫ চ্যাম্পিয়নস ট্রফি পর্যন্ত খেলবেন। তার পর ধারণা করেছিলাম বিশ্বকাপের পর না–ও খেলতে পারে। এটুকুই জানি, আর কিছু জানি না।

পাপন যোগ করেন, তিন দিন আগে ওর সঙ্গে কথা হয়েছে। তামিম বলল, ও ফিট, ও খেলবে। তার পর আমি আবার ফিজিওকে জিজ্ঞেস করেছি। বলছে, একদম ফিট। তার পর ও খেলার আগের দিন বলছে, ও ইনজুরড, ফিট না। এটা কী হিসাবে বলল, কী বোঝাইতে চাইল। আমি বুঝিনি।

আমার কথা হলো— তামিম-সাকিব-মুশফিক-রিয়াদ-মাশরাফি, এরা হলো বাংলাদেশের লিজেন্ডস। এদের ভবিষ্যতে সবাই ফলো করবে। এরা কী শেখাতে চাচ্ছে? কী রেখে যাচ্ছে এক্সাম্পল? একজন না, একের পর এক সবাই করছে। রিয়াদ খেলার মাঝখানে কথা নাই বার্তা নাই ওইখানে গিয়া বলল, আমি রিটায়ার করে ফেললাম। মুশফিক হঠাৎ করে বলে দিল, আমি টি-টোয়েন্টি থেকে রিটায়ার করলাম। মানে আমি বুঝতে পারছি না, হোয়াটস গোয়িং অন? এতে কী লাভ হচ্ছে জানি না। যাই হোক, অনেক দিন ধরে প্ল্যান করেই করছে।

তামিমের কান্নার বিষয়টা আপনার কেমন লেগেছে? প্রশ্নোত্তরে পাপন বলেন, আমি কিছুই বুঝতে পারছি না, কান্নারই বা কী হলো। তারে তো কেউ বসতে বলে নাই, করতেও বলে নাই। নিজে থেকে করেছে, কাঁদছে কেন? আর এখন গায়েব হয়ে গেছে কেন? এতদিন না হয় ভাবছে, আমরা আটকাতে চেষ্টা করব যাতে না করে। এখন করেই ফেলছে। এখন ফোন বন্ধ করে রাখছে কেন? খুবই দুঃখজনক।