Tag Archives: মেঘনায় জমি নিয়ে বিরোধ হামলায় একজন নিহত

মেঘনায় জমি নিয়ে বিরোধ হামলায় একজন নিহত

স্টাফ রিপোর্টার:
কুমিল্লার মেঘনায় জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে প্রতিপক্ষের হামলায় রীতা বেগম নামে(৪৭) এক নারী খুন হয়েছেন। উপজেলার মানিকারচর ইউনিয়নের আমিরাবাদ গ্রামের এঘটনায় পুলিশ তিনজনকে আটক করেছে।

এলাকাবাসী ও পুলিশ জানায়, ওই গ্রামের আসাদ মিয়া ও দুলাল মিয়ার সাথে একই বাড়ীর সোলেমান ও মান্নান মিয়ার জমি নিয়ে দীর্ঘদিন যাবৎ মামলা চলে আসছিলো। ওই জমিতে সোলেমানের লোকজন ধান চাষ করে। গত ২৮ এপ্রিল সোলেমানের লোকজন ওই ধান কাটতে গেলে আসাদ ও দুলাল মিয়ার লোকজন বাধা দেয়। এতে উভয়ের মধ্যে মারামারি শুরু হয়। পরে পুলিশ স্থানীয় মেম্বারকে নিয়ে নিয়ে সোলেমানকে ধান কাটার অনুমতি দেয়। পুলিশ চলে যাওয়ার পর বিকেলে সোলেমানের লোকজন আসাদ ও দুলাল মিয়ার বাড়ীতে হামলা চালায়। এতে আসাদ মিয়া, তার স্ত্রী রীতা বেগম ও দুলাল মিয়া আহত হয়। আহতদের মেঘনা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে রীতা বেগমকে আশংকাজনক অবস্থায় ঢাকা মেডিকেল পাঠালে রাতে মারা যায় সে। এঘটনায় পুলিশ তিনজনকে আটক করে। আটককৃতরা হলেন একই গ্রামের সালাউদ্দিনের ছেলে শাহ আলম(২৫), মৃত আক্কাস আলীর ছেলে আনিস(৩২) ও মান্নান মিয়ার ছেলে জমির উদ্দিন।
আহত দুলাল মিয়া জানান, মামলার রায় পাওয়ার পর ২৭ এপ্রিল সোমবার থানায় লিখিতভাবে দরখাস্ত করি। কেন দরখাস্ত করলাম এজন্য আমাদের বাড়ীতে এসে হামলা করে ।

নিহত রীতা বেগমের মেয়ে কুহিনুর বেগম জানান, আমাদের বাড়ীতে এসে বাবা ( আসাদ) ও চাচা দুলাল মিয়ার উপড় হামলা করে কাসেম ও সোলেমানের লোকজন। বাবাকে মারতে দেখে মা ছুটাইতে(থামাতে) গেলে কাসেমের ছেলে বিল্লাল ও লাল মিয়ার ছেলে দেলোয়ায়, কুদ্দুস আমার সামনে মারে পিডাইয়া মারে।

মেঘনা থানার ওসি আব্দুল মজিদ জানান, আমিরাবাদ গ্রামে ওয়ারিশ সম্পত্তির নিয়ে দীর্ঘদিন যাবৎ দ্বন্দ্ব চলছিল। এনিয়ে গত পরশু দিন (২৮এপ্রিল মঙ্গলবার) ওই জমির ধান কাটা নিয়ে উত্তেজনা দেখা দেয়। আমার অফিসার স্থানীয় গন্যমান্য লোকদের নিয়ে বিষয়টি সমজোতা করে দেয়। একইদিন বিকালে আবার উভয়ের মধ্যে উত্তেজনা দেখা দেয় এবং উভয় পক্ষের মধ্যে ইটপাটকেল নিক্ষেপ হয়। এতে আসাদ মিয়ার স্ত্রী রীতা বেগমসহ ৫/৬জন আহত হয়। রীতা বেগমকে আশংকাজনক অবস্থায় ঢাকা প্রেরণ করলে ওই রাতেই সে মারা যায়। এঘটনায় ওই রাতেই তিনজনকে আটক করা হয়েছে। আজ (বৃহস্পতিবার) মামলার প্রক্রিয়া চলছে।