Tag Archives: রোগী আটকে দিনে দেড় লক্ষাধিক টাকার বিল

টেস্ট না করেই পজিটিভ রিপোর্ট , রোগী আটকে দিনে দেড় লক্ষাধিক টাকার বিল

 

ডেস্ক রিপোর্ট:

করোনা টেস্ট না করেই রোগীকে পজিটিভ রিপোর্ট দিতো। এরপর সেই রোগীকে হাসপাতালে ভর্তি করে নানাভাবে খরচ বাড়াতো। এমনও হয়েছে একদিনে এই হাসপাতাল দেড় লক্ষ টাকার মতো বিল করেছে। অথচ এমন কোন সেবাই দেওয়া হয়নি রোগীকে। র‌্যাব রাত ১০.২০ মিনিটে সংবাদ সম্মেলন করে এ তথ্য জানায়।

বিভিন্ন অনিয়মের অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে রোববার (১৯ জুলাই) রাজধানীর গুলশান-২ এ অবস্থিত সাহাবুদ্দিন মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে অভিযান চালায় র‌্যাব। এতে নেতৃত্ব দেন র‌্যাব সদর দফতরের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সারোয়ার আলম।

এছাড়া, সাহাবউদ্দিন মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে অভিযান চালিয়ে হাসপাতালটির ওপারেশন থিয়েটারে (ওটি) মেয়াদোত্তীর্ণ সার্জিক্যাল সামগ্রী উদ্ধার করেছে র‌্যাব।

এসব সার্জিক্যাল সামগ্রী অপারেশন করার সময় রোগীদের অজ্ঞান করার কাজে ব্যবহৃত হতো বলে জানিয়েছেন অভিযানে অংশ নেয়া কর্মকর্তারা।

হাসপাতালটির একটি অপারেশন থিয়েটারে অভিযান চালায় র‌্যাব। এ সময় ওপারেশন থিয়েটারটিতে মেয়াদোত্তীর্ণ পাঁচটি সার্জিক্যাল সামগ্রী (এনডোট্রাসিয়াল টিউব) উদ্ধার করা হয়। পরে এসব সার্জিক্যাল সামগ্রী যাচাই করে দেখা যায়, এগুলোর কোনোটির মেয়াদ ২০০৯ সালে আবার কোনোটির মেয়াদ ২০১১ সালে শেষ হয়েছে। হাসপাতালটির বাকি চারটি ওপারেশন থিয়েটার তালা মারা।

অভিযানে উপস্থিত ওষুধ প্রশাসন অধিদফতরের এক কর্মকর্তা জানান, এসব সার্জিক্যাল সামগ্রী অপারেশন করার সময় রোগীর গলার ভেতর ঢোকানো হয়। তবে এই সামগ্রীগুলো মেয়াদোত্তীর্ণ হওয়ায় ‘রোগীর মৃত্যুঝুঁকি’ রয়েছে।

এদিকে অভিযানে অসহযোগিতা করায় সাহাবউদ্দিন মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের সহকারী পরিচালক ডা. মোহাম্মদ আবুল হাসনাত ও ইনভেন্টরি অফিসার শাহজির কবির সাদিকে নিজেদের হেফাজতে নিয়েছে র‌্যাব।

র‌্যাব জানায়, রোগী স্থানান্তর করে এই হাসপাতাল সিলগালা করা হবে। এই হাসপাতোলের নবায়ন শেষ হয়েছে একবছর আগে। তাই এর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

রোববার (১৯ জুলাই) বিকেল ৩টার দিকে অভিযান শুরু হয়। র‌্যাব জানায়, করোনা টেস্ট না করেই তারা রিপোর্ট দিতো। একটি সূত্র জানিয়েছে, করোনার র‌্যাপিড কিট টেস্ট, অ্যান্টিবডি নিয়ে বেশকিছু অভিযোগ খতিয়ে দেখতে হাসপাতালটিতে অভিযান পরিচালনা করা হয়।

কোভিড-১৯ (করোনাভাইরাস) রোগীদের চিকিৎসায় যুক্ত বেসরকারি মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মধ্যে অন্যতম ৫০০ শয্যার সাহাবুদ্দিন মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল। সম্প্রতি বেশকিছু অনিয়মের অভিযোগ ওঠে হাসপাতালটির বিরুদ্ধে।