শুক্রবার, ২০শে মে, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

কুমিল্লা-১০ আসনে নেতাকর্মীদের জানমালের ক্ষতি এড়াতে গণসংযোগ না করার ঘোষণা বিএনপির

আজকের কুমিল্লা ডট কম :
ডিসেম্বর ২৬, ২০১৮
news-image

স্টাফ রিপোর্টারঃ
কুমিল্লা-১০ (সদর দক্ষিণ, লালমাই, নাঙ্গলকোট) সংসদীয় আসনের বিএনপি ও অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মীদের জানমালের ক্ষয়-ক্ষতি এড়াতে আনুষ্ঠানিকভাবে গণসংযোগ ও প্রচার-প্রচারণা না করার ঘোষণা দেয়া হয়েছে।

বুধবার (২৬ ডিসেম্বর) বিকালে বিএনপির প্রার্থী ও দলের চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার উপদেষ্টা কারাবন্দি মনিরুল হক চৌধুরীর পক্ষে তাঁর সদর দক্ষিণ উপজেলার নোয়াগ্রামস্থ বাসভবনে সাংবাদিক সম্মেলন করে এ ঘোষণা দেন তাঁর মেয়ে ও প্রধান নির্বাচনী এজেন্ট ড. চৌধুরী সায়মা ফেরদৌস।

সংবাদ সম্মেলনে ড. চৌধুরী সায়মা ফেরদৌস বলেন, গত দুই সপ্তাহে এ আসনের ৩টি উপজেলা এলাকায় বিএনপি ও অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে ভৌতিক অভিযোগে প্রায় অর্ধশত মামলা দেয়া হয়েছে। বহু নেতাকর্মীকে গ্রেফতার করে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। এ সময়ে নাঙ্গলকোটের রায়কোট দক্ষিণ ইউনিয়নের বেতাগাঁও গ্রামের প্রায় ৫০টি বাড়িঘর ও গোয়ালঘর আগুন দিয়ে পুড়িয়ে দেয়াসহ অনেক বাড়িঘরে লুটপাট চালানো হয়েছে। এছাড়া সদর দক্ষিণ উপজেলার ভুলুইন উত্তর ইউনিয়নের দূর্গাপুর ও ছোট চলুন্ডা গ্রামে অতর্কিত হামলা চালিয়ে বাড়িঘর ভাংচুর করা হয়েছে এবং বাজারের বিএনপি সমর্থকদের দোকানপাট বন্ধ করে দেয়া হয়েছে।

তিনি অভিযোগ করে আরও বলেন, এ আসন এলাকার বিভিন্ন গ্রামে ডিবি পুলিশ পরিচয়ে সাদা পোষাকে এবং আওয়ামী লীগের লোকজন বিএনপির নেতাকর্মী ও ভোট কেন্দ্রের এজেন্টসহ সমর্থকদের বাড়ি বাড়ি গিয়ে হুমকি দিচ্ছে। এতে আতংকে অনেক নেতাকর্মী এলাকাছাড়া হয়ে পড়েছে।

ড. সায়মা তাঁর বাবা মনিরুল হক চৌধুরীর বরাত দিয়ে বলেন, তাঁর বাবার নির্দেশ অনুযায়ী দলের নেতাকর্মীদের জীবন রক্ষা ও বাড়িঘরসহ মালামালের ক্ষতির বিষয়টি চিন্তা করে আনুষ্ঠানিকভাবে গণসংযোগসহ নির্বাচনী প্রচার-প্রচারণা থেকে বিরত থাকার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। এসময় তিনি আগামী ৩০ ডিসেম্বর ধানের শীষে ভোট বিপ্লবের মাধ্যমে সকল অত্যাচার নির্যাতন, মামলা-হামলা, হয়রানী ও জেল-জুলুমের সমুচিত জবাব দেয়ার জন্য ওই নির্বাচনী এলাকার জনগণের প্রতি উদাত্ত আহবান জানান।

 

আর পড়তে পারেন