শনিবার, ১৩ই আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

বরুড়ায় ঝড়ে ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি, ২৭টি বসত ঘর বিধ্বস্ত

আজকের কুমিল্লা ডট কম :
জুলাই ১, ২০২১
news-image

এমডি. আজিজুর রহমান, বরুড়া:
কুমিল্লার বরুড়া উপজেলার ইটাখোলা গ্রামে প্রচন্ড ঝড়ে ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। প্রাথমিকভাবে ২৭ টি বসত ঘর বিধ্বস্ত হয়েছে বলে জানা যায়।

জানা গেছে, উপজেলার চিতড্ডা ইউনিয়নের ৩নং ওয়ার্ড ভঙ্গুয়া ইটাখোলা গ্রামের উপর দিয়ে (৩০ জুন) সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে কয়েক মিনিটের প্রচন্ড ঝড়ে ২৭ টি বসত বাড়ি মুহুর্তের মধ্যে বিধ্বস্ত হয়। এতে করে ঘরের মালিকদের প্রায় ৬০ লক্ষ টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়। আহত হয় দুই শিশুসহ দুই নারী। এছাড়াও গাছ ও বৈদ্যুতিক পিলারও ক্ষতিগ্রস্থ হয়।

ক্ষতিগ্রস্তরা হলেন রুহুল আমীন, আবুল কালাম, মাওলানা খিজির আহমদ, শাহজান মিয়া, গিয়াস উদ্দিন, জসিম, কাওছার, রশিদ মিয়া, এমরান হোসেন, হাছন মিয়া, মঞ্জিল হক, ওমর ফারুক, আবুল হাসেম, মিজান, আবদুল খালেক, মোতালেব, সেলিনা আক্তার ও কাইয়ুম।

এ ব্যাপারে শাহজান মিয়া জানান, কয়েক মিনিটের মধ্যে এ ঘটনা ঘটে। প্রত্যেকের বসতঘর, রান্নাঘর ও গোয়ালঘরসহ ২ থেকে ৩ টি করে ঘর বিধ্বস্ত হয়। আমরা সর্বস্ব হারিয়ে এখন দিশেহারা। আমরা মাথাগোছার জন্য সরকারের কাছে সহযোগীতা কামনা করছি।

এ ব্যপারে পল্লী বিদ্যুৎ বরুড়া জোনাল অফিসের কর্মকর্তা মো. জালাল উদ্দিন জানান, দুর্ঘটনা এরাতে ক্ষতিগ্রস্তদের বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন করা হয়েছে। পরবর্তী বিনামূল্যে সংযোগ প্রদান করা হবে।

এ বিষয়ে ইউপি চেয়ারম্যান ওমর ফারুক জানান, আমি ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি। ভয়াবহ অবস্থা। তাদের একমাত্র মাথাগোছার ঠাই ঝড়ে উড়িয়ে নিয়ে গেছে। ইউএনও‘র নির্দেশে কিছু চাউল, ডাল, তৈল ও বিভিন্ন খাদ্যসামগ্রী দেওয়ার উদ্যোগ নিয়েছি।

এ বিষয়ে উপজেলা নিবার্হী কর্মকর্তা মো. আনিসুল ইসলাম জানান, প্রাথমিকভাবে তাদের জন্য কিছু ত্রানের ব্যবস্থা করা হচ্ছে। তাৎক্ষনিক থাকার ব্যবস্থাও করা হবে। পাশা-পাশি জরুরী ভিত্তিতে ঘর নির্মাণ সামগ্রী ব্যবস্থা করে দেওয়া হবে। এছাড়াও ঢাকাস্থ বরুড়া জনকল্যাণ সমিতি কর্তৃক সহযোগীতা করা হবে।

আর পড়তে পারেন