বুধবার, ১৭ই আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

শতাধিক আসনে শক্তিশালী বিকল্প প্রার্থীর নাম চুড়ান্ত করেছে আওয়ামী লীগ

আজকের কুমিল্লা ডট কম :
ডিসেম্বর ১, ২০১৭
news-image

 

ডেস্ক রিপোর্ট :

টানা তৃতীয়বারের মতো ক্ষমতায় আসতে আটঘাট বেধে এবারও নির্বাচনী মাঠে নামতে যাচ্ছে ১৪ দলীয় জোটের প্রধান শরিক আওয়ামী লীগ। একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে কে আসলো আর কে আসলো না-তা বিবেচনা করবে না দলটি। তারা সংবিধান মোতাবেক যথাসময়ে নির্বাচন করবে। এ লক্ষ্যে দলীয় কোন্দল-বিবেদ এবং নানাভাবে বির্তকে জড়িত-মাদক, সন্ত্রাস ও জনপ্রিয়তা তলিনিতে নেমেছে এমন শতাধিক আসনে শক্তিশালী বিকল্প প্রার্থীর নাম চুড়ান্ত করেছে আওয়ামী লীগ।

ইতোমধ্যে এসব আসনে মনোনয়ন পাবেন-এমন নেতাদের গ্রীণ সিগনাল দেয়া হয়েছে। গ্রীণ সিগনাল পাওয়া মনোনয়ন প্রত্যাশিরাও তৃণমূলের নেতাদের মনজয়ে সাধ্যমতো চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন। দিবস ভিত্তিক দলীয় অনুষ্ঠান ছাড়াও সামাজিক-সাংস্কৃতিক নানা ধরনের সভা-সমাবেশ ও ঘরোয়া আলোচনা সভায় যোগ দিয়ে মাঠ গোছাচ্ছেন একাদশ নির্বাচনের এমপি প্রার্থীরা।

শতাধিক আসনে আওয়ামী লীগের শক্তিশালী বিকল্প প্রার্থীরা একাদশ সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে মাঠ চষে বেড়াচ্ছেন। তাদের অনেকেরই মনোনয়ন পাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে বলে সরকারি দলের উচ্চ পর্যায়ের সূত্র জানিয়েছে। সরকারের বিভিন্ন সংস্থার জরিপ ও আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক নেতাদের পর্যবেক্ষণে এসব প্রার্থীদের শক্তিশালী অবস্থান এবং জনপ্রিয়তার বিষয়টিও উঠে এসেছে। তবে তাদের কারো মনোনয়নের বিষয় নিশ্চিত না হলেও প্রধানমন্ত্রীর টেবিলে রয়েছে তাদের নাম। নির্বাচনী মাঠ আরো গভীর পর্যবেক্ষণ ও বিএনপির তৎপরতা দেখে প্রার্থী বাছাইয়ের চূড়ান্ত কাজটি সারবেন আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

দলীয় দায়িত্বপ্রাপ্ত নেতারা বলছেন, আগামী নির্বাচনে প্রার্থী বাছাইয়ে বেশ পরিবর্তন আসতে পারে। এ জন্যই প্রধানমন্ত্রী কয়েক দফায় এমপিদের সতর্ক করে বলে দিয়েছেন-কারো মুখ দেখে তিনি আগামী নির্বাচনে মনোনয়ন দেবেন না। নির্বাচনে প্রার্থী বাছাইয়ের কয়েকটি জরিপ হয়েছে। সর্বশেষ জরিপে তারকা চিহ্ন দিয়ে প্রার্থীদের জনপ্রিয়তার বিষয়টি চিহ্নিত করা হয়েছে। এসব জরিপে সবচেয়ে জনপ্রিয় প্রার্থীর পাশে দেয়া হয়েছে পাঁচটি তারকা। তারপর ধারাবাহিকভাবে চার ও তিন তারকা দিয়ে চিহ্নিত করা হয়েছে।

সূত্র জানায়, আগামী নির্বাচন অংশগ্রহণমূলক হবে এবং বিএনপি নির্বাচনে অংশ নেবে এ হিসাব করেই আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নিজ দলের প্রার্থী বাছাই করবেন। বর্তমান সংসদের এমপিদের মধ্যে অন্তত দেড়শ’ জনপ্রিয় এমপি পুনরায় মনোনয়ন পাওয়ার ব্যাপারে আশাবাদী। তবে বিভিন্ন জরিপ পর্যালোচনা করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এখনো কারো নাম চূড়ান্ত করেননি। বিএনপির নির্বাচনী প্রস্তুতি ও প্রার্থী বাছাই দেখে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেবেন বলে জানা গেছে।

তবে হাইকমান্ডের গ্রীণ সিগন্যাল পেয়ে অন্তত শতাধিক (১০০) আসনে বর্তমান এমপির বিকল্প শক্তিশালী প্রার্থী নির্বাচনী মাঠে কাজ শরু করেছেন। জোট শরিকদের ছেড়ে দেয়া অনেক আসনেও আওয়ামী লীগের প্রার্থী রয়েছেন নির্বাচনী মাঠে। এসব প্রার্থীদের তালিকাও আওয়ামী লীগের হাইকমান্ডের হাতে রয়েছে। এসব প্রার্থীর অনেকেরই জনপ্রিয়তা রয়েছে। তালিকায় বর্তমান এমপির সন্তান কিংবা আওয়ামী লীগের প্রয়াত ও সাবেক নেতার পরিবারের সদস্যের নামও রয়েছে।

এসব প্রার্থীদের মধ্যে রয়েছেন- মাগুড়া-১ সাইফুজ্জামান শিখর, বাগেরহাট-৪ আমিরুল ইসলাম মিলন ও এইচএম বদিউজ্জামান সোহাগ, খুলনা-৩ এসএম কামাল, খুলনা-৬ সোহরাব হোসেন, পটুয়াখালী-১ অ্যাডভোকেট আফজাল হোসেন, ভোলা-১ ও ২ দুটি আসনে তোফায়েল আহমেদ, বরিশাল-২ সাংবাদিক গোলাম সারওয়ার, বরিশাল-৫ তালুকদার মো. ইউনুস, টাঙ্গাইল-১ শামসুন্নাহার চাঁপা, টাঙ্গাইল-২ মসিউজ্জামান রুমেল (বর্তমান এমপি খন্দকার আসাদুজ্জামানের ছেলে), টাঙ্গাইল-৩ ডা. কামরুল আহসান ও শহীদুল ইসলাম লেবু, টাঙ্গাইল-৬ তারানা হালিম, টাঙ্গাইল-৮ এডভোকেট জোয়াহেরুল ইসলাম, অধ্যক্ষ সাইয়ীদ, ইঞ্জিনিয়ার আতাউর, জামালপুর-২ মাহজাবিন খালিদ, ময়মনসিংহ-৭ রেজা আলী, ময়মনসিংহ-৮ আব্দুস সাত্তার, ময়মনসিংহ-৯ মেজর জেনারেল (অব.) আব্দুস সালাম, নেত্রকোনা-১ মানু মজুমদার, নেত্রকোনা-২ আহমদ হোসেন, নেত্রকোনা-৩ অসীম কুমার উকিল/আবদুল মতিন, কিশোরগঞ্জ-২ ড. জায়েদ মোহাম্মদ হাবিবুল্লাহ্, কিশোরগঞ্জ-৫ আজিজুল হাসান রানা, মুন্সীগঞ্জ-১ ডা. বদিউজ্জামান ভূঁইয়া ডাব্লু, ঢাকা-২ শাহীন (উপজেলা চেয়ারম্যান), ঢাকা-৫ আসনে আলহাজ মশিউর রহমান মোল্লা, ঢাকা-৭ কামরুল ইসলাম, ঢাকা-৮ ইসমাইল চৌধুরী সম্রাট, ঢাকা-১৪ সাবিনা আক্তার তুহিন, ঢাকা-১৫ এসএ মান্নান কচি, ঢাকা-১৮ ডা. দীপু মনি, ঢাকা-১৯ যুবলীগ নেতা তুহিন, ঢাকা-২০ বেনজীর আহমেদ, গাজীপুর-৫ আখতারুজ্জামান, নারায়ণগঞ্জ-৩ আসনে সাবেক এমপি আবদুল্লাহ আল কায়সার হাসনাত ও এএইচএম মাসুদ দুলাল, ফরিদপুর-৪ কাজী জাফরউল্লাহ, মাদারীপুর-৩ আবুল হোসেন, শরীয়তপুর-২ এনামুল হক শামীম, এডভোকেট শিমুল, শরীয়তপুর-৩ বাহাদুর বেপারী, রাজবাড়ী-২ শেখ সোহেল রানা টিপু, নরসিংদী-৩ জহিরুল হক ভূঁইয়া মোহন, সুনামগঞ্জ-১ অ্যাড. রণজিত, সুনামগঞ্জ-৩ আজিজুস সামাদ ডন, সিলেট-৬ সারোয়ার হোসেন, ব্রাহ্মণবাড়ীয়া-২ মঈন উদ্দিন মঈন, কুমিল্লা-৭ ডা. প্রাণ গোপাল, কুমিল্লা-৮ নজরুল ইসলাম, চাঁদপুর-৩ সুজিত রায় নন্দী, চাঁদপুর-৪ সাংবাদিক শফিকুর রহমান, ফেনী-১ আলাউদ্দিন নাসিম, ফেনী-২ সাইফুদ্দিন নাসির, ফেনী-৩ জহির উদ্দিন মাহমুদ লিপ্টন, নোয়াখালী-২ আতাউর রহমান মানিক, লক্ষ্মীপুর-৪ ফরিদুন্নাহার লাইলী। ঠাকুরগাঁও-২ আসনে প্রবীর চন্দ্র রায়, ঠাকুরগাঁও-৩ আসনে সেলিনা আক্তার রিটা এবং অধ্যক্ষ সুজাউল করিম চৌধুরী বাবুল, দিনাপুর-১ এ জাকারিয়া জাকা, নীলফামারী-৩ শহীদ হোসেন রুবেল, নীলফামারী-৪ দেওয়ান কামাল আহমেদ, লালমনিরহাট-১ রুহুল আমিন বাবুল, লালমনিরহাট-৩ সংরক্ষিত আসনের এমপি সফুরা বেগম ও জেলা আওয়ামী লীগ নেতা মতিয়ার রহমান, রংপুর-১ আসনে রেজাউল করিম রাজু, রংপুর-২ আসনে টুটুল চৌধুরী, রংপুর-৫ আসনে জাকির হোসেন, কুড়িগ্রাম-১ আসনে গোলাম মোস্তফা, কুড়িগ্রাম-২ আসনে জাফর আলী, কুড়িগ্রাম-৩ আসনে মতি শিউলি, গাইবান্ধা-১ আসনে আফরোজা, গাইবান্ধা-২ সারোয়ার, গাইবান্ধা-৩ মাহমুদ হাসান রিপন, জয়পুরহাট-২ সোলায়মান, বগুড়া-৫ আসনে মজিবর রহমান মজনু, বগুড়া-৬ আসনে রাকিবুল হাসান রিপু, চাঁপাইনবাবগঞ্জ-১ আসনে ডা. শিমুল, ইঞ্জিনিয়ার মাহতাব, চাঁপাইনবাবগঞ্জ-২ আবদুল কাদির, নওগাঁ-৫ আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক আবদুল জলিলের পরিবারের কেউ, রাজশাহী-৩ আসনে আসাদুজ্জামান আসাদ, রাজশাহী-৫ আহসানুল হক মাসউদ, রাজশাহী-৬ লায়েবুদ্দিন লাবু, নাটোর-২ রমজান, সিরাজগঞ্জ-২ জান্নাত আরা হেনরী, সিরাজগঞ্জ-৪ মুক্তি মির্জা (লতিফ মির্জার মেয়ে), সিরাজগঞ্জ-৫ লতিফ বিশ্বাস ও বর্তমান এমপি মজিদ মন্ডলের ছেলে মমিন মন্ডল, সিরাজগঞ্জ-৬ চয়ন ইসলাম, পাবনা-১ অধ্যাপক আবু সাইয়ীদ, পাবনা-২ মীর্জা জলিল ও মজিবুর রহমান, মেহেরপুর-২ আবদুল খালেক, ঝিনাইদহ-৩ শফিকুল আজম খান চঞ্চল, যশোর-১ আশরাফুল আলম লিটন, যশোর-২ অধ্যাপক রফিকুল ইসলাম, যশোর-৫ পিযুষ কান্তি ভট্টাচার্য ও বীর মুক্তিযোদ্ধা এস এম ইউনুস আকবর ও যশোর-৬ সাদেক সিদ্দিকী (অভিনেত্রী শাবানার স্বামী)।

আর পড়তে পারেন