শুক্রবার, ২০শে মে, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

কুবিতে এক শিক্ষার্থীকে ছাত্রলীগের মারধর

আজকের কুমিল্লা ডট কম :
নভেম্বর ৬, ২০১৭
news-image

কুবি প্রতিনিধিঃ
কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ে ব্যবস্থাপনা বিভাগের এক শিক্ষার্থীকে মারধরের অভিযোগ উঠেছে বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে। রবিবার (৫ নভেম্বর) বিকেলে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান ফটকের সামনে ঐ শিক্ষার্থীকে মারধর করে শাখা ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা।
জানা যায়, ব্যবস্থাপনা বিভাগের ৭ম ব্যাচের শিক্ষার্থী মো: রায়হান ইসলামকে শিবির অভিযোগে মারধর করে শাখা ছাত্রলীগের বেশ কয়েকজন নেতাকর্মী। শাখা ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক সাইফুল ইসলাম সাদী(কম্পিউটার বিজ্ঞান ও প্রকৌশল বিভাগের ৭ম ব্যাচ) ও গোলাম দন্তগীর ফরহাদ (গনিত বিভাগের ৭ম ব্যাচ) এবং ছাত্রলীগ কর্মী হাসান বিদ্যুৎ (পদার্থ বিজ্ঞান বিভাগের ৬ষ্ঠ ব্যাচ) এর নেতৃত্বে ছাত্রলীগের বেশ কয়েকজন নেতাকর্মী রায়হানকে কাঠ দিয়ে বেধড়ক মারধর করে। গুরুতর আহত অবস্থায় বন্ধুরা রায়হানকে অটো রিক্সায় করে নিয়ে যাওয়ার পথে সাংবাদিকদের বলেন, ‘আমাকে তারা ডেকে নিয়ে শিবির বলে মারধর শুরু করে।’ তিনি কোন রাজনীতির সাথেই জড়িত নয় বলে জানান রায়হান ইসলাম।
অভিযুক্ত শাখা ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক সাইফুল হাসান সাদীর মুঠোফোনে বারবার যোগাযোগ করা হলেও কথা বলা সম্ভব হয়নি।
বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি ইলিয়াস হোসের সবুজ বলেন, ‘যদি ঐ শিক্ষার্থী শিবির করে থাকে তাহলে মারধর করা ঠিক আছে। আর যদি শিবির না করে তাহলে মারধর কেন করেছে এ বিষয়ে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।’ শিবির হলেই ছাত্রলীগ আইন হাতে তুলে নিতে পারে কিনা এমন প্রশ্ন এড়িয়ে যান ইলিয়াস হোসেন।
এ বিষয়ে প্রক্টর ড. কাজী মোহাম্মদ কামাল উদ্দিন বলেন, ‘মারধরের বিষয়ে কোন অভিযোগ এখনও আমি পাইনি। সুনির্দিষ্ট অভিযোগ পেলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’
এর আগেও শাখা ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক সাইফুল হাসান সাদীর বিরুদ্ধে সাংবাদিকদের হুমকি দেয়াসহ সাধারণ শিক্ষার্থীদের মারধরের অভিযোগ রয়েছে। গত ৯ আগস্টও দুই শিক্ষার্থীকে শিবিরের অভিযোগে মারধর করে শাখা ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা। এছাড়াও বিভিন্ন সময় দলীয় অন্তঃকোন্দলের কারনে শাখা ছাত্রলীগের বেশ কয়েকজন নেতাকর্মীকে মারধরের অভিযোগ রয়েছে এদের বিরুদ্ধে।

আর পড়তে পারেন