শুক্রবার, ২০শে মে, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

ক্রেতাদের পদচারণায় জমে উঠেছে চাঁদপুরের শতবর্ষী বৈশাখী মেলা গলিয়া

আজকের কুমিল্লা ডট কম :
এপ্রিল ১৬, ২০১৯
news-image

মাসুদ হোসেন, চাঁদপুর :
চাঁদপুর সদর উপজেলার ঐতিহ্যবাহী মহামায়া বাজারে মিলেছে জমজমাট বৈশাখী মেলা (গলিয়া)। প্রতি বছরের ন্যায় এবারো সোমবার (১৫ এপ্রিল) মিলেছে জমজমাট বাজার। যদিও সরকারীভাবে পহেলা বৈশাখ ছিল ১৪ এপ্রিল রবিবার। হিন্দু ধর্মানুসারে বছরের প্রথম দিন হয়েছে সোমবার ১৫ এপ্রিল। মেলায় সরগম হয়ে উঠেছে বিভিন্ন বয়সের মানুষের ভিড়ে। সৃষ্টি হয়েছে চাঁদপুর-কৃমিল্লা আঞ্চলিক মহাসড়ক মহামায়া বাজারে দীর্ঘ যানজট।

মেলায় বিভিন্ন মালামাল ক্রয় করার পাশাপাশি দর্শনার্থীদের উপস্থিতিও লক্ষ করা গেছে। এ বৈশাখী মেলায় বসেছে মৃৎশিল্প, বাঁশ ও বেতশিল্প, নকশীকাঁথা, শতরঞ্জি, হাতপাখা, গহনা, ঝিনুকপণ্য, বাচ্চাদের চরকি গাড়ি, জিলাপী, চিড়া, মুড়ি, খই, তরমুজ, বাঙ্গি, ছটপটি-হালিম, বাঁশি, মেয়েদের প্রসাধনী সামগ্রী, বটি-দা, কুড়াল, মাছ শিকারের জন্য ঝাঁকি জাল, হাতপাখা, ঘুড়ি ও বিভিন্ন কাঠের মালের দোকান। এসব পণ্যের পসরা সাজিয়ে মৌসুমী ব্যবসায়ীরা আকৃষ্ট করেছেন ক্রেতা ও দর্শনার্থীদের। তপ্ত রোদ উপেক্ষা করে ক্রেতারা মেলায় এসে কিনছেন পছন্দের জিনিসপত্র। মেটাচ্ছেন শিশুদের আবদার।

সোমবার (১৫ এপ্রিল) সরেজমিনে ঘুরে দেখা যায়, শতবর্ষী এ বৈশাখী মেলায় উপচে পড়া ভিড় প্রায় প্রতিটি দোকানে। মহাব্যস্ততায় সময় কাটলেও ক্লান্তি নেই বিক্রেতাদের মধ্যে। হাসিমুখেই ক্রেতাদের সন্তষ্ট করার চেষ্টা করেছেন তারা। আর এ বৈশাখী মেলা উপলক্ষে মহামায়া বাজারে প্রায় কোটি টাকা বেচা বিক্রি হয়েছে বলে ধারনা করছেন বাজার পরিচালনা কমিটির সদস্যরা।

মেলার সবগুলো দোকানে ক্রেতাদের উপচেপড়া ভিড় লক্ষ করা যায়। বিভিন্ন শ্রেণী-পেশার মানুষ মেলা থেকে শিশুদের খেলনা, খাবার ও সাধ্যমত কিনেছেন তাদের পছন্দের জিনিসটি। চাঁদপুর সদর উপজেলার ৪নং শাহমাহমুদপুর ইউনিয়নের ঐতিহ্যবাহী মহামায়া বাজারে শত বছর ধরে অনুষ্ঠিত হচ্ছে বৈশাখী মেলা। সব কিছু মিলিয়ে শতবর্ষী পুরাতন এ মেলাটি এক মিলন মেলায় রুপ নেয়। এছাড়া মেলা উপলক্ষে মহামায়া বাজার মন্দিরে হাজারো পূর্ণ্যার্থীদের মিলন ঘটে। হিন্দু ধর্মালম্বীদের উপস্থিতির কারনে এক মিলনমেলায় রুপ নেয় মহামায়া বাজার মন্দির প্রাঙ্গনে।

অন্যদিকে বৈশাখী মেলাকে ঘিরে ইউনিয়নের কোন স্থানে যাতে জুয়ার আসর বসতে না পারে সেজন্য কঠোর প্রদক্ষেপ নিয়েছে চাঁদপুর জেলা প্রশাসনসহ ইউপি চেযারম্যান স্বপন মাহমুদ। ইউপি চেযারম্যান স্বপন মাহমুদের উদ্যোগে মেলার আগেরদিন পুরো ৪নং শাহমাহমুদপুর ইউনিয়নের প্রতিটি ওয়ার্ডে মাইকিং করে সবাইকে সতর্ক করে দিয়েছে এবং মেলার দিন সকল ইউপি সদস্য ও গ্রাম পুলিশদের সাথে নিয়ে অভিযান চালিয়ে জুয়ার কোটসহ কয়েকজন জুয়ারিকে আটক করে শাস্তির আওতায় এনেছেন। জেলা প্রশাসন ও ইউপি চেয়ারম্যানের অভিযানের পরও সবার চোখ ফাঁকি দিয়ে কিছু কিছু স্থানে জমজমাট জুয়ার আসর বসতে দেখা গিয়েছে।

আর পড়তে পারেন