রবিবার, ১৪ই আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

চান্দিনায় পৌর ছাত্রলীগনেতাকে গ্রেফতার করে মামলায় ফাসাঁনোর চেষ্টার অভিযোগ

আজকের কুমিল্লা ডট কম :
মে ৩১, ২০২২
news-image

স্টাফ রিপোর্টার:

বিগত  ইউপি নির্বাচনে কুমিল্লার চান্দিনার বরকড়ই ইউনিয়নে নৌকা প্রতীকের উঠান বৈঠককে কেন্দ্র করে ম্যাজিস্ট্রেট কর্তৃক দায়ের করা মামলায় পৌর ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি সজিবকে গ্রেফতার দেখিয়ে আদালতে প্রেরণ করে থানা পুলিশ।  তবে আদালতের বিচারক তার জামিন মঞ্জুর করেন। মিথ্যা মামলায় আসামি করে সজিবকে গ্রেফতার দেখিয়ে ফাসাঁনোর চেষ্টা করা হয়েছে বলে পৌর ছাত্রলীগ কর্তৃপক্ষ দাবি করে।

সোমবার (৩০ মে) রাতে চান্দিনা থানার সামনে থেকে সজিবকে গ্রেফতার করে থানা পুলিশ।

পৌর ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি সজিব জানান, আমি পৌর এলাকার বাসিন্দা। রাজনীতি করি পৌর এলাকায়। বিগত নির্বাচনে বরকরই ইউনিয়নে নৌকার পক্ষে উঠান বৈঠক করার সময় ম্যাজিষ্ট্রেটের সাথে কথা কাটাকাটির মামলায় ১০০ জনকে অজ্ঞাত আসামি করা হয়। সেই অজ্ঞাত মামলায় আমাকে আসামি দেখিয়ে ফাসাঁনো হয়েছে। মূলত আমি মোন্তাকিম আশরাফ টিটু ভাইয়ের সাথে আছি। এটাই আমার  অপরাধ। ইউপি নির্বাচনে নৌকার পক্ষে কাজ করেছি, এটাই আমার অপরাধ। আ’লীগের অপর পক্ষ আমাকে মিথ্যা মামলায় হয়রানি করার চেষ্টা করছে।

পৌর ছাত্রলীগের সভাপতি মো: ইকবাল জানান, ওই মামলায়  ৪ জনের নামে মামলা হয়েছিল। অজ্ঞাত আসামি ছিল ১ শত জন। সজীবকে অজ্ঞাত আসামির তালিকায় যুক্ত করে গ্রেফতার করে পুলিশ। সজীব ওই মামলার ঘটনায় জড়িত ছিল না। সজীবের অপরাধ সে মূল ধারার ছাত্রলীগের রাজনীতির সাথে জড়িত। তার অপরাধ সে নৌকার প্রার্থীর পক্ষে কাজ করেছে। চান্দিনায় ছাত্রলীগের রাজনীতিকে সমূলে ধ্বংস করার জন্য অপচেষ্টা চলছে। এখানে আ’লীগের একটি অংশ বিএনপি-জামায়াতের দোসরদের এখানে প্রতিষ্ঠিত করতে চেষ্টা করছে। অপশক্তিগুলো মাননীয় প্রধানমন্ত্রী আমাদের অভিভাবক শেখ হাসিনার হাতকে দুর্বল করতে চায়। তাই তারা মিথ্যা মামলায় আমাদের হয়রানি করছে। আমরা এমন মিথ্যা মামলায় হয়রানির ঘটনাকে তীব্র নিন্দা জানাচ্ছি।

এ বিষয়ে জানতে চান্দিনার থানার ইন্সপেক্টর (তদন্ত) এর মুঠোফোন ও হোয়াটসঅ্যাপে একাধিকবার কল করলেও তিনি কল রিসিভ করেন নি।

আর পড়তে পারেন