শুক্রবার, ২০শে মে, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

তিতাসে মাদ্রাসার সুপারের বিরুদ্ধে নানা অনিয়ম ও দুর্নীতির অভিযোগ

আজকের কুমিল্লা ডট কম :
জানুয়ারি ১৫, ২০২২
news-image

মোঃ জুয়েল রানা, তিতাসঃ

কুমিল্লার তিতাস উপজেলার দুধঘাটা নুরে মোহাম্মদি (সঃ) দাখিল মাদ্রাসার সুপার মোঃ ইব্রাহিম খলিলের বিভিন্ন অনিয়ম ও দুর্নীতির কারনে অপসারণের দাবিতে মানববন্ধন করেছে মাদ্রাসার অবিভাবকবৃন্দ ও এলাকাবাসী।

শনিবার (১৫ জানুয়ারি) বেলা এগারোটায় মাদ্রাসা সংলগ্ন সড়কে এই মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। ঘন্টা ব্যাপী মানববন্ধন শেষে সুপার ইব্রাহিম খলিলের বিভিন্ন অনিয়ম তুলে ধরে বক্তব্য রাখেন সাবেক মেম্বার সাইদুল ইসলাম, মুক্তিযোদ্ধা আঃ রশিদ, যুবলীগ নেতা রুহুল আমিন, ফারুক সরকার, মোহাম্মদ আনিছ মিয়া, মোঃ ফজল সরকার, সাবেক মেম্বার আবুল হোসেন, উনুস মিয়া, সজল সরকার, মোশারফ হোসেন, মদ্রাসার সাবেক অভিভাবক সদস্য হাজী সামসুল হক, ও শাহিন আলম প্রমূখ।

বক্তারা বলেন, মাদ্রাসার সুপার ইব্রাহিম খলিল একাধিক বাউচারে টাকা আত্মসাৎ, অবিভাবক ও শিক্ষার্থীদের সাথে খারাপ আচরণ, সাবেক সভাপতি দেলোয়ার হোসেনের নামে মিথ্যাচার করাসহ এবং প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে অবস্থান নিয়ে স্থানীয় কিছু দুষ্কৃতকারীদের সাথে আঁতাত করে মাদ্রাসাটি বন্ধ করার জন্য লিপ্ত রয়েছে। বক্তারা আরো বলেন এই সুপার ইব্রাহিম খলিলের কারনে প্রতি বছরই শিক্ষার্থী কমে আসছে। সনামধন্য এই মাদ্রাসাটি টিকিয়ে রাখতে অবিলম্বে সুপার ইব্রাহিম খলিলকে অপসারণ করতে সংশ্লিষ্ট কতৃপক্ষের প্রতি দাবি জানিয়েছেন।

এ বিষয়ে মাদ্রাসার প্রতিষ্ঠাতা মরহুম আবদুর রহমান সরকারের দ্বিতীয় ছেলে মাদ্রাসার সাবেক সভাপতি আলহাজ্ব দেলোয়ার হোসেন বলেন, আমি দায়িত্বে থাকাকালিন সময়ে সুপারের অনেক অনিয়ম ও দুর্নীতি ধরা পরে তখন তিনি অসুস্থতার বান করে এক মাসের ছুটি নিয়ে যায়। তখন এটি রেজুলেশন করা হয়। এই সুপার ক্ষমা চেয়ে পার পেয়ে যায়।আজ ওনি আমার পিতার প্রতিষ্ঠিত মাদ্রাসাটি বন্ধ করার জন্য স্থানীয় কিছু কুচক্রী মহলের সাথে আঁতাত করেছে। আজ এলাকাবাসী সুপারের অপসারণের দাবিতে মানববন্ধন করেছে আমি এলাকাবাসীর সাথে একমত।

সুপার ইব্রাহিম খলিলের নিকট এ বিষয়ে জানতে চাইলে, তিনি বলেন আমি এখন এ বিষয়ে কিছু বলবো না সময় হলে বলবো। মাদ্রাসার সহকারী শিক্ষক রফিকুল ইসলাম বলেন সুপার সাহেব আমাদের সাথেও খারাপ আচরণ করেন, আমিও ওনার অপসারণ চাই।

আর পড়তে পারেন