রবিবার, ১৪ই আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

দেবিদ্বারে দুঘর্টনাকবলিত বাস উদ্ধার, মরদেহ ও আহত যাত্রী পাওয়া যায়নি

আজকের কুমিল্লা ডট কম :
নভেম্বর ১৫, ২০১৭
news-image

ইমতিয়াজ আহমেদ জিতু/জামাল উদ্দিন দুলালঃ
কুমিল্লার দেবিদ্বার উপজেলার বারেরায় কোম্পানিগঞ্জ থেকে ছেড়ে আসা যাত্রীবাহী বৈশাখী পরিবহনের একটি বাস নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে খাদে পড়ে একজন ছেলে শিশু (৬) নিহত হয়েছে। পরে প্রায় সাড়ে ৩ ঘন্টা উদ্ধার কাজ শেষে কোন মরদেহ কিংবা আহত যাত্রী পায়নি উদ্ধার কর্মীরা। তবে বাসটি খাদে পড়ে যাওয়ার কিছু সময় পরে মৃত শিশুটিসহ ৪ জনকে উদ্ধার করা হয়। বাকি ২৬ জন যাত্রীর কোন খবর পাওয়া যায়নি।


বুধবার (১৫ নভেম্বর) বিকেল পৌণে ৪ টায় কুমিল্লা-সিলেট আঞ্চলিক মহাসড়কের বারেরায় এলাকায় প্রায় ৩০ জন যাত্রী নিয়ে বাসটি খাদে পড়ে যায়। মুরাদনগর থেকে ফায়ার সার্ভিসের একটি টিম বিকেল ৪ টায় এসে ঘটনাস্থলে পৌছলেও প্রয়োজনীয় যন্ত্রপাতি না থাকায় উদ্ধার কাজ শুরু করতে পারেনি। বিকেল সোয়া ৫ টায় রেকার এসে উদ্ধার কাজ শুরু করে । রাত ৭ টায় উদ্ধার কাজ সম্পন্ন হয়। বাসটিকে খাদ থেকে উঠানো হয়। তবে কোন মরদেহ পাওয়া যায়নি বাসটিতে। কিংবা আহত যাত্রীও পাওয়া যায়নি।

স্থানীয় সূত্র জানায়, পুকুরে হয়তো যাত্রীদের লাশ রয়েছে। দীর্ঘ ৩ ঘন্টায় যাত্রীদের বেচে থাকার সম্ভাবনা ক্ষীণ। আরবাস থেকে যাত্রীদের বের হতেও দেখা যায় নি। প্রায় ২৬ জন যাত্রীর খবর নেই।

দেবিদ্বার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মিজানুর রহমান জানান, বাসটিকে উদ্ধার করা হয়েছে। যাত্রীরা হয়তো নিজে নিজে বের হয়ে যার যার মত চলে গেছে। দেবিদ্বার স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে কয়েকজন চিকিৎসাধীন রয়েছেন। ডুবুরিরা কাজ করছে।

উপ-সহকারি পরিচালক ফরিদ আহমেদ জানান, কুমিল্লা থেকে দুটি, মুরাদনগর থেকে ফায়ার সার্ভিসের একটি টিম ঘটনাস্থলে রয়েছে। ডুবুরিরা কাজ করছে ।

আর পড়তে পারেন