বুধবার, ১৯শে জানুয়ারি, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

বিএনপি’র সমাবেশে কায়কোবাদ অনুসারীদের হামলায় আহত ৫

আজকের কুমিল্লা ডট কম :
ডিসেম্বর ১, ২০২১
news-image

মাহবুব আলম আরিফ, মুরাদনগরঃ

বিএনপি’র চেয়ারপার্সন ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়ার নিঃশর্ত মুক্তি ও উন্নত চিকিৎসার জন্য বিদেশ প্রেরণের দাবিতে কুমিল্লায় বিভাগীয় সমাবেশের আয়োজন করেন জেলা ও মহানগর বিএনপি।

মঙ্গলবার সকালে সমাবেশে যোগদানকে কেন্দ্র করে একই দলের নেতাকর্মীদের দ্বারা হামলার শিকার হন প্রফেসর ড. শাহিদা রফিক অনুসারী বিএনপির ৫ নেতা।

পরে আহত নেতাকর্মীদেরকে কুমিল্লা টাওয়ার হসপিটালে প্রাথমিক চিকিৎসা সেবা প্রদান করা হয়। তবে হামলার শিকার হলেও আহতরা যথাসময়ে বিভাগীয় ওই সমাবেশে যোগদান করেছেন বলে জানা গেছে।

হামলায় আহত নেতাকর্মীরা হলেন কুমিল্লা উত্তর জেলা বিএনপির সিনিয়র সহ-সভাপতি ও মুরাদনগর উপজেলা বিএনপি’র সদস্য মনিরুল হক জর্জ, উপজেলা বিএনপির সাবেক যুগ্ম আহ্বায়ক আমিরুল ইসলাম, কুমিল্লা উত্তর জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের যুগ্ম সম্পাদক মোজাম্মেল হক নাসির, উপজেলা যুবদল নেতা মোঃ জহির ইসলাম সিদ্দিকী ও চৌধূরী আলম।

আহত কুমিল্লা উত্তর জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের যুগ্ম সম্পাদক মোজাম্মেল হক নাসির বলেন, আমরা দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার নিঃশর্ত মুক্তি ও বিদেশে চিকিৎসার দাবিতে কুমিল্লায় বিভাগীয় সম্মেলনে যোগদান করার পথে দফায় দফায় আমাদের উপর সাবেক এমপি কায়কোবাদের সন্ত্রাসী বাহিনী হামলা চালিয়েছে। সমাবেশে আমার সাথে থাকা কুমিল্লা উত্তর জেলা বিএনপি’র সিনিয়র সহ-সভাপতি মনিরুল হক সাহেবের বক্তব্য দেওয়ার কথা ছিল। তিনি যেন ওই সমাবেশে বক্তব্য দিতে না পারেন তাই উনিসহ আমাদের উপর কায়কোবাদের অনুসারী সোহেল সামাদ ও ছোট মাসুদ হামলা চালায়।

মুরাদনগর উপজেলা বিএনপির সাবেক যুগ্ম আহবায়ক আমিরুল ইসলাম বলেন, যারা হামলা চালিয়েছে তারা সাবেক এমপি কায়কোবাদের অনুসারী ও দুস্কৃতিকারী। কারণ তারা যদি বিএনপির কেউ হতো তাহলে এমন সমাবেশে আমাদের উপর হামলা চালাত না। যেখানে আমার নেত্রীর জীবন মরণ নিয়ে যুদ্ধ চলছে সেই আন্দোলনে হামলা এটা কেবল দুস্কৃতিকারীদের দ্বারাই সম্ভব।

অভিযুক্ত সাবেক এমপি কাজী শাহ মোফাজ্জল হোসাইন কায়কোবাদের অনুসারী ছোট মাসুদ বলেন, সমাবেশে কোন বিএনপির নেতাকর্মীদের উপর হামলা চালানো হয়নি।

আর পড়তে পারেন