মঙ্গলবার, ৩০শে নভেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

কাউন্সিলর সোহেল হত্যা: সন্ত্রাসীরা গুলি চালিয়েছিল এলাকাবাসীর দিকেও

আজকের কুমিল্লা ডট কম :
নভেম্বর ২৫, ২০২১
news-image

 

স্টাফ রিপোর্টার:

কুমিল্লা সিটি করপোরেশনের ১৭ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর ও আওয়ামী লীগ নেতা সৈয়দ মো. সোহেলকে হত্যায় অংশ নেওয়া সন্ত্রাসীদের গুলি করার একটি ক্লোজ সার্কিট টেলিভিশন (সিসিটিভি) ক্যামেরার ফুটেজ সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে। ভিডিওতে দেখা গেছে, সন্ত্রাসীরা শুধু কাউন্সিলর কার্যালয়েই নয়, গুলি চালিয়েছে স্থানীয় এলাকাবাসীর দিকেও।

তবে ভিডিওটি নগরীর সুজানগরের পাথুরিয়াপাড়ায় থ্রি-স্টার এন্টারপ্রাইজে কাউন্সিলর কার্যালয়ে ঢুকে গুলির দৃশ্যের নয়। ঘটনাস্থলের প্রায় ৫০ গজ পশ্চিমে মুখোশ পরা দুই অস্ত্রধারীর আশপাশের বাসাবাড়িতে লক্ষ্য করে গুলি ছুড়ছে- এমন দৃশ্য ধরা পড়েছে ওই সিসিটিভি ক্যামেরায়।

২ মিনিট ৫১ সেকেন্ডের ওই ভিডিওটিতে দেখা যায়, সোহেলের কার্যালয় থেকে পশ্চিম দিকে সুজানগর থেকে পাথুরিয়াপাড়া সড়কে কালো পোশাক ও মুখোশ পরিহিত দুই ব্যক্তি প্রকাশ্যে গুলি চালাচ্ছে। এ সময় আশপাশের সব দোকানপাট বন্ধ ছিল। রাস্তায়ও কাউকে চলাচল করতে দেখা যায়নি। তারা বিভিন্ন বাসাবাড়ির ছাদের দিকে লক্ষ্য করে গুলি করছেন। ওই সময় ওপর থেকে তাদের দিকে ইটপাটকেল নিক্ষেপ করলে তারা আরও উত্তেজিত হয়ে গুলি ছুড়তে ছুড়তে পশ্চিম দিকে গিয়ে ফের পূর্ব দিকে কাউন্সিলরের কার্যালয়ের দিকে চলে যায়। ভিডিও ফুটেজে এক যুবকের হাতে দুটি এবং আরেক যুবকের হাতে একটি পিস্তল দেখা যায়। এর কিছুক্ষণ পরই স্থানীয়রা বাড়িঘর থেকে বের হয়ে দৌড়ে পূর্ব দিকে কাউন্সিলরের কার্যালয়ের দিকে যান। এর পর পরই ঘাতকরা গুলি করতে করতে এবং ককটেল বিস্ফোরণ ঘটিয়ে পাশের বউবাজার দিয়ে পালিয়ে যায়।

র‌্যাব-১১, সিপিসি-২ কুমিল্লার কম্পানি অধিনায়ক মেজর মোহাম্মদ সাকিব হোসেন বলেন, ওই এলাকার সকল সিসিটিভি ফুটেজ সংগ্রহ করে পরীক্ষা করা হচ্ছে। আশা করি শিগগিরই জড়িতদের গ্রেপ্তার করা সম্ভব হবে।

গত সোমবার (২২ নভেম্বর) বিকেল ৪টার দিকে নগরীর পাথরিয়াপাড়া থ্রি স্টার এন্টারপ্রাইজে কাউন্সিলর কার্যালয়ে সন্ত্রাসীদের গুলিতে নিহত হন দুজন। কাউন্সিলর সোহেলকে এলোপাতাড়ি ৯টি গুলি করেছে ঘাতকরা। এতে তার মৃত্যু নিশ্চিত হয়ে যায়। হামলাকারীদের পিস্তলের দুটি গুলি সোহেলের মাথায়, দুটি বুকে, অন্য পাঁচটি পেট ও শরীরের বিভিন্ন স্থানে লাগে।

কাউন্সিলর সোহেল কুমিল্লা মহানগর আওয়ামী লীগের সদস্য ও ওই ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি ছিলেন। নিহত হরিপদ সাহা নগরীর ১৭ নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সদস্য এবং সাহাপাড়া এলাকার বাসিন্দা। তার বুকে ও পেটে গুলি লেগেছিল। এছাড়া এ ঘটনায় গুলিবিদ্ধ আরও ৫ জন কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

আর পড়তে পারেন