শুক্রবার, ২০শে মে, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

চৌদ্দগ্রামের যুগিরকান্দিতে দিনদুপুরে কেটে নিয়ে যাচ্ছে খালের বাঁধ

আজকের কুমিল্লা ডট কম :
জানুয়ারি ১৯, ২০২২
news-image

স্টাফ রিপোর্টার:
অস্ত্র হাতে মহড়া দিয়ে দিনদুপুরে কুমিল্লা চৌদ্দগ্রাম উপজেলার কাশিনগর ইউনিয়নের যুগিরকান্দি (বোয়াল ঝুড়ি) খালের বাঁধ কেটে নিয়ে যাচ্ছে প্রভাবশালী সিন্ডিকেট।

এতে বাঁধা দিলেই হামলার শিকার হচ্ছেন নিরিহ কৃষক শ্রেণির লোকজন। কৃষি জমি রক্ষা ও খালের পানি প্রবাহের জন্য নির্মিত বাঁধ কেটে মাটি লুটপাট করে নিয়ে যাওয়ায় বর্তমানে হুমকির মুখে কয়েক’শ কৃষকের কৃষি জমি।

জানা যায়,আইনের কোনো প্রকার তোয়াক্কা না করেই কুমিল্লার চৌদ্দগ্রাম কাশিনগর ইউনিয়নের যুগিরকান্দি (বোয়াল ঝুড়ি) খালের ৩/৪ টি স্পটে বাঁধ কাটায় খালের সৌন্দর্য ও আশপাশের পরিবেশ নষ্ট এবং খাল পাড় ক্ষত-বিক্ষত করে মাটি কেটে নেয়া হচ্ছে।  দিন-রাত বাধাহীন মাটি লুট চলছে নির্বিঘে। খালের বাঁধ কাটার সংবাদ সংগ্রহ করতে গেলে সাংবাদিকদেরও স্থানীয় মেম্বার সিন্ডিকেটের অস্ত্রের মহড়া মুখে পড়তে হয়েছে।

এ দিকে খালের বাঁধ কেটে ফসলী জমিনের লেভেল করার ফলে কয়েক’শ কৃষকের ফসলী জমি হুমকির মুখে পড়েছে। বাংলার ঐতিহ্য আর প্রাকৃতিক অপরূপ সৌন্দর্যের অহংকার খাল পাড়ের মূল্যবান মৃত্তিকা সম্পদ লুটে নিচ্ছে স্থানীয় জনপ্রতিনিধিসহ প্রভাবশালীরা। প্রায় সময় এ খালের নয়নাভিরাম সৌন্দর্য উপভোগ করতে আশপাশের এলাকার লোকজন ছুটে এলেও এখন অবৈধ মাটি খেকোদের সিন্ডিকেটের কবলে পড়ে তার নান্দনিক সৌন্দর্য হারিয়ে ফেলেছে।

খালের বাঁধ কেটে নিয়ে যাওয়ার খবর পেয়ে সরেজমিনে গেলে আব্দুল ওয়াদুদসহ স্থানীয় একাধিক কৃষক জানায়, গত দুই সপ্তাহ যাবত যুগিরকান্দির বর্তমান মেম্বার গিয়াস উদ্দিন ও সাবেক মেম্বার সালেহ আহমদ এর নেতৃত্বে যুগিরকান্দির সেলিম মোল্লা,শাহাদাত,ইমান ৩/৪ টি বেকু দিয়ে কাশিনগর ইউনিয়নের জয়মঙ্গলপুর-যুগিরকান্দি (দূর সমুদ্র) জলা দিয়ে প্রবাহিত খালটির বাঁধ দিনদুপুরে কেটে নিয়ে যাচ্ছে। বিভিন্ন স্পটের প্রায় ২/৩ কিলোমিটার খাল পাড়ের মাটি কেটে নিয়ে গেছে সিন্ডিকেটটি। মাটি কাটার সাথে জড়িতদের দৃষ্টান্তমুলক শাস্তির দাবি জানিয়েছেন কৃষকরা। এদিকে সোমবার দুপুরে (১৭ জানুয়ারী) স্থানীয় কৃষকরা বাঁধ কাটার প্রতিবাদ জানাতে গেলে দিনদুপুরে প্রকাশ্যে দা, ছেনি নিয়ে ধাওয়া করে ৩ জনকে কুপিয়ে মারাত্মক আহত করে। এছাড়াও মাটি কাটা সিন্ডিকেটের হামলায় অন্তত আরো ৮/১০ আহত হয়। এ বিষয়ে স্থানীয় সংসদ সদস্য ও সাবেক রেলপথমন্ত্রী মুজিবুল হক মুজিব, কুমিল্লা জেলা প্রশাসক, পানি উন্নয়ন বোর্ডসহ সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন ভুক্তভোগী কৃষকেরা।

এ বিষয়ে কুমিল্লার চৌদ্দগ্রাম উপজেলার নির্বাহী অফিসার এস এম মঞ্জুরুল হক বলেন, খালের বাঁধ কাটার সাথে জড়িতদের আইনের আওতায় আনা হবে। কাউকে ছাড় দেয়ার সুযোগ নেই।

আর পড়তে পারেন