রবিবার, ১৪ই জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

বুড়িচংয়ে বিপুল পরিমাণ ভারতীয় শাড়ি ও মেডিসিন জব্দ; আটক ২

আজকের কুমিল্লা ডট কম :
সেপ্টেম্বর ৭, ২০২২
news-image

 

বুড়িচং সংবাদদাতা:

কুমিল্লার বুড়িচং সীমান্তে ২১ লাখ ৯০ হাজার টাকার ভারতীয় আমদানি নিষিদ্ধ চোরাচালান পণ্য ভারতীয় শাড়িসহ একটি নাম্বার বিহীন মিনি পিকআপ ও একটি অটোরিকশা জব্দ করেছে থানা পুলিশ । এ সময় দুইজন চোরাকারবারিকে  আটক করা হয়েছে।  অপরদিকে ১ কোটি ৯০ লাখ টাকার আমদানি নিষিদ্ধ মেডিসিন জব্দ করেছে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশের (বিজিবি) সদস্যরা। এ সময় কোনো পাচারকারীকে আটক করতে পারেনি বিজিবির সদস্যরা।

মঙ্গলবার বিকেলে বিষয়টি নিশ্চিত করেন বুড়িচং থানার এসআই মোঃ শরীফুর রহমান।

পুলিশ সূত্রে জানা যায়,(৫ সেপ্টেম্বর) সোমবার দুপুরে বুড়িচং উপজেলার বাকশীমূল ইউনিয়ন সীমান্ত এলাকা থেকে মিনি পিকআপ ও অটোরিকশা দিয়ে আমদানি নিষিদ্ধ ভারতীয় জর্জেট শাড়ি নিয়ে কুমিল্লা-বুড়িচং সড়ক দিয়ে যাচ্ছে। এমন গোপন সংবাদের ভিত্তিতে থানার ওসি মোঃ মারুফ রহমানের নির্দেশনায় এসআই শরীফুর রহমানের নেতৃত্বে কুমিল্লা-বুড়িচং সড়কে অভিযান পরিচালনা করেন। এসময় পুলিশ দেখে চোরাকারবারি দল তাদের গাড়ি দ্রুত গতিতে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে। পরে পুলিশ চোরাকারবারীদের ধাওয়া করে গাড়িসহ এসব পণ্য ষোলনল মধ্যপাড়া হাজী বাড়ি এলাকা থেকে জব্দ করে।জব্দকৃত মালামাল ৬৯০ পিস বিভিন্ন রংয়ের ভারতীয় তৈরী আমদানি নিষিদ্ধ শাড়ি ও তাদের গাড়ি জব্দসহ দুইজন চোরাকারবারিকে আটক করে পুলিশ। এ সময় একজন পালিয়ে যায়।

অপরদিকে খাড়েরা বিওপি’র সুবেদার মোঃ আবু বক্কর প্রতিনিধিকে জানান,একই দিনে তাদের কাছে গোপন খবর আসে চোরাকারবারীরা ভারত থেকে বিপুল পরিমাণে পণ্য নিয়ে সীমান্ত অতিক্রম করছে।পরে বিজিবি সদস্যরা অভিযান চালিয়ে কালিকাপুর বাজার থেকে আমদানি নিষিদ্ধ মেডিসিন জব্দ করে।যাহার মূল্য ২ কোটি ৯০ হাজার টাকা। এর আগে বিজিবি সদস্যদের উপস্থিতি টের পেয়ে পালিয়ে যায় পাচারকারীরা।উক্ত জব্দকৃত মালামাল ও পিকাআপ বুড়িচং থানাতে হস্তান্তর করা হয়েছে।

বুড়িচং থানার এসআই শরীফুর রহমান জানান, জব্দকৃত মালামাল শাড়ি ও মেডিসিন এবং মিনি পিকআপ ও অটোরিকশাসহ সর্বমোট মূল্য ২ কোটি ৩৮ লাখ ৩০ হাজার অধিক টাকা।

আটককৃত আসামি মোঃ রুবেল(১৯) ষোলনল ইউনিয়নের আগানগর এলাকার আব্দুর রশিদের ছেলে মোঃ হোসেন মিয়া,বুড়িচং সদরের শিরু বেপারী বাড়ির আব্দুর রশিদের ছেলে মোঃ বাবুল মিয়া(৪৫)। পলাতক আসামি বুড়িচং সদরের শিরু বেপারী আব্দুর রশিদের ছেলে মোঃ আবুল হোসেন প্রকাশ অনিক।

পলাতক আসামির বিরুদ্ধে কুমিল্লার বিভিন্ন থানায় ৪টি মামলা রয়েছে।

আটকৃত আসমিদের বিরুদ্ধে বুড়িচং থানায় মামলা দায়ের করে কুমিল্লা কোর্টের মাধ্যমে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।

আর পড়তে পারেন