Tag Archives: কুমিল্লা শিক্ষা বোর্ডে এসএসসিতে পাসের হার ৯১.২৮ শতাংশ

কুমিল্লা শিক্ষা বোর্ডে এসএসসিতে পাসের হার ৭৯.২৩%

উজ্জ্বল হোসেন বিল্লাল:

এসএসসি ও সমমান পরীক্ষার ফলাফল আজ রবিবার প্রকাশ করা হয়েছে। কুমিল্লা শিক্ষা বোর্ডের অধীনে ২০২৪ সালের এসএসসি পরীক্ষায় পাসের হার ৭৯ দশমিক ২৩। ২০২৩ সালের এসএসসি পরীক্ষায় পাসের হার ছিল ৭৮ দশমিক ৪২। এ বোর্ডে জিপিএ ৫ পেয়েছে ১২ হাজার ১ শত জন। যা গতবারের তুলনায় বেশি। ৫ হাজার ২৬৪ জন ছেলে ও ৬ হাজার ৮৩৬ জন মেয়ে জিপিএ ৫ পেয়েছে।

কুমিল্লা শিক্ষা বোর্ডের অধীন বৃহত্তর কুমিল্লা ও নোয়াখালীর ছয়টি জেলায় এসএসসি পরীক্ষায় ১ লাখ ৮০ হাজার ৬৯৩ পরীক্ষার্থীর মধ্যে পরীক্ষায় অংশগ্রহণকারী ১ লাখ ৭৯ হাজার ৩২৫ জনের মধ্যে পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়েছে ১ লাখ ৪২ হাজার ৮১ জন।

এর মধ্যে ছেলেদের পাসের হার ৭৮ দশমিক ৬৬। মেয়েদের পাসের হার ৭৯ দশমিক ৬৪।

এ শিক্ষা বোর্ডে বিজ্ঞান বিভাগের পাসের হার ৯৫ শতাংশ। মানবিক বিভাগে পাসের হার ৬৬ দশমিক৯৪। ব্যবসা শিক্ষা বিভাগে পাসের হার ৭৫ দশমিক৪৯।

এবার এ শিক্ষা বোর্ডে এসএসসি পরীক্ষায় জিপিএ-ও পেয়েছে ১১ হাজার ৬২৩ জন। জিপিএ-ও পাওয়া শিক্ষার্থীদের মধ্যে ছাত্র ৪ হাজার ৭০৫ জন ও ছাত্রী ৬ হাজার ৯১৮ জন।

জানা যায়, শিক্ষা বোর্ডের অধীন এসএসসি পরীক্ষায় এবার ৯৮ টি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে শতভাগ পরীক্ষার্থী এসএসসি পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়েছে। পরীক্ষা চলাকালীন সময়ে ৬২ পরীক্ষার্থী অসদুপায় অবলম্বনের জন্য বহিষ্কৃত হয়েছে।

কুমিল্লা শিক্ষা বোর্ডে এসএসসিতে পাসের হার ৯১.২৮ শতাংশ, জিপিএ-৫ পেয়েছে ১৯ হাজার ৯৯৮ জন

স্টাফ রিপোর্টার:

কুমিল্লা শিক্ষা বোর্ডের এসএসসি পরীক্ষার ফলাফলে তিনটি বিভাগে গড় পাসের হার ৯১.২৮ শতাংশ। এ বছর ১ লাখ ৮৬ হাজার ৭৭৫ জন পরীক্ষার্থীর মধ্যে পাস করেছে ১ লাখ ৭০ হাজার ৪৮৪ জন। গত বছরের তুলনায় কমেছে পাসের হার, কিন্তু জিপিএ -৫ এর সংখ্যা বেড়েছে। ৩টি বিভাগে জিপিএ-৫ পেয়েছে ১৯ হাজার ৯৯৮ জন।

বোর্ড সূত্রে জানা যায়, এ বছর বিজ্ঞান বিভাগে পাসের হার ৯৮ দশমিক ৬১ শতাংশ। এ বিভাগে ৫৪ হাজার ৯৯২ জন পরীক্ষায় অংশ নিয়ে উত্তীর্ণ হয়েছে ৫৪ হাজার ২২৬ জন। মানবিক বিভাগে পাসের হার ৮৪.২৪ শতাংশ। এ বিভাগে ৬৭ হাজার ৭৯৬ জন পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করে পাস করেছে ৫৭ হাজার ১০৮ জন এবং ব্যবসায় শিক্ষা বিভাগে পাসের হার ৯২ দশমিক ৪৪ শতাংশ। এ বিভাগে ৬৩ হাজার ৯৮৭ জন পরীক্ষার্থীর মধ্যে পাস করেছে ৫৯ হাজার ১৫০ জন। এ বোর্ডে এবার ফলাফলে ছেলেরা এগিয়ে রয়েছে। ছেলেদের পাসের হার ৯১.৫৬ শতাংশ এবং মেয়েদের পাসের হার ৯১ দশমিক ০৬ শতাংশ। এ বছর ১ হাজার ৭৬৬টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের মধ্যে ২১১টি প্রতিষ্ঠান শতভাগ পাসের কৃতিত্ব অর্জন করেছে এবং কোন প্রতিষ্ঠানে পাসের হার শূন্য নেই। গত বছর শতভাগ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ছিল ৩৫৫টি। গত বছর এ বোর্ডে পাসের হার ছিল ৯৬.২৭ শতাংশ এবং জিপিএ-৫ পেয়েছিল ১৪ হাজার ৬২৬ জন। গত বছরের তুলনায় এবার পাসের হার কমেছে ৪.৯৯ শতাংশ এবং জিপিএ-৫ বেড়েছে ৫ হাজার ৩৭২ জন।