সোমবার, ২৬শে সেপ্টেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

দেবিদ্বারে শোক র‌্যালিতে যুব মহিলা লীগের নেত্রীদের হাতাহাতি

আজকের কুমিল্লা ডট কম :
আগস্ট ১৬, ২০২২
news-image

 

ডেস্ক রিপোর্ট:

কুমিল্লার দেবিদ্বারে জাতীয় শোক দিবসের র‌্যালিতে হাতাহাতিতে জড়িয়েছেন যুব মহিলা লীগের নেত্রীরা। এ ঘটনায় দুজন আহত হয়েছেন বলে খবর পাওয়া গেছে। মারামারির একটি ভিডিও ফুটেজ সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়েছে।

সোমবার (১৫ আগস্ট) সকালে উপজেলা সদরে এ ঘটনা ঘটে।

আহত নেত্রীরা হলেন কুমিল্লা উত্তর জেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সংগঠনিক সম্পাদক সারমিন আক্তার ও দেবীদ্বার উপজেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি রিনা আক্তার। তারা দুজনই মধ্যস্থতা করতে গিয়ে আহত হন।

প্রত্যক্ষদর্শী উপজেলা আওয়ামী লীগের একাধিক নেতা জানান, সকালে দেবিদ্বার উপজেলা থেকে একটি শোক র‌্যালি বের করা হয়। এতে উপজেলা ছাত্রলীগ, যুবলীগ, মহিলা আওয়ামী লীগ, যুব মহিলা লীগসহ বিভিন্ন সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরা অংশ নেন। র‌্যালিতে আগে পরে থাকাকে কেন্দ্র করে বাগবিতণ্ডা হয়। একপর‌্যায়ে উপজেলা যুব মহিলা লীগের সদস্য লিলি আক্তারের ওপর হামলা করেন অপর সদস্য সুমি আক্তার।

৪৪ সেকেন্ডের একটি ভিডিও ফুটেজে দেখা গেছে, বাগবিতণ্ডার একপর্যায়ে দেবিদ্বার উপজেলা যুব মহিলা লীগের সদস্য লিলি আক্তারের ওপর হামলা করেন আরেক সদস্য সুমি আক্তার। এ সময় সুমি আক্তারের সঙ্গে অন্যরাও যোগ দেন। পাশে ছিলেন কুমিল্লা উত্তর জেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সভাপতি শিরিন সুলতানা ও সদস্য বিথি আক্তার।

র‌্যালিতে অংশ নিয়েছিলেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আবুল কালাম আজাদ, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আশিক উন নবী তালুকদার, থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কমল কৃষ্ণ ধর, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মনিরুজ্জামান মাস্টার ও সাংগঠনিক সম্পাদক ভিপি বাবুলসহ বিভিন্ন পর্যায়ের নেতাকর্মীরা।

কুমিল্লা উত্তর জেলা মহিলা লীগের সভাপতি শিরিন সুলতানা  বলেন, ‘র‌্যালি চলাকালীন লিলি আক্তার উপজেলা মহিলা আওয়ামী লীগের কৃষিবিষয়ক সম্পাদিকা সুলতানা আক্তার মিনার ভ্যানিটি ব্যাগের চেইন খুলে হাত দেন। এ নিয়ে তাদের মধ্যে হাতাহাতি হয়। পরে দলীয় নেত্রীরা এসে তাদের শান্ত করেন।’

দেবিদ্বার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কমল কৃষ্ণ ধর  বলেন, ভিডিওটি আমার নজরে এসেছে। এ বিষয়ে অভিযোগ পেলে তদন্তপূর্বক প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

আর পড়তে পারেন